বুধবার, ২০শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সারাদেশে এক দিনের সড়ক দুর্ঘটনায় ২১ জন নি হত, শতাধিক আ হত

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
আগস্ট ১৫, ২০১৯
news-image

ডেস্ক রিপোর্ট :

 

বৃহস্পতিবার (১৫ আগস্ট) সারাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় ২১ জন নি হত ও শতাধিক আ হত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

ফেনী, ফরিদপুর, কিশোরগঞ্জ, সিরাজগঞ্জ, টাঙ্গাইল, গোপালগঞ্জ ও বরিশাল এই ৭ জেলায় এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

ফেনী: ফেনীতে কক্সবাজারগামী পিকনিকের একটি বাস দুর্ঘটনায় ৮ জন নি হত ও ২০ জন আ হত হয়েছেন।

ভোর পৌনে ৬টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ফেনীর লেমুয়ায় ব্রিজের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহতদের মধ্যে সাতজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

মহিপাল হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এসআই কাওসার জানান, ঘটনাস্থলেই ৬ জনের মৃ ত্যু হয়। আর হাসপাতালে নেয়ার পথে আরও ২ জন মারা যান।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জ থেকে কক্সবাজারের উদ্দেশে যাচ্ছিল প্রাইম পরিবহনের বাসটি। ফেনীর লেমুয়ায় পৌঁছলে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মহাসড়কে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে।

ফরিদপুর: ফরিদপুর-বরিশাল মহাসড়কের ভাঙ্গা উপজেলায় দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালকসহ তিনজন নি হত ও কমপক্ষে ৫০ যাত্রী আ হত হয়েছেন।

নি হতরা হলেন- বাসচালক রওশন মিয়া, মীরাকুণ্ড নামে এক নারী ও অজ্ঞাত এক বৃদ্ধ।

সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ভাঙ্গার নওপাড়া নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ওসি আতাউর রহমান এ দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আ হত ৫০ জনকে প্রথমে ভাঙ্গা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে গুরুতর আ হত ২৫ জনকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। এদের মধ্যে ফরিদপুর মেডিকেলে অজ্ঞাতনামা এক বৃদ্ধের মৃ ত্যু হয়।

এদিকে দুর্ঘটনার পর রাস্তার দুই পাশে শত শত যানবাহন আটকা পড়লে হাইওয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের সহায়তায় ফের যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ওসি আতাউর রহমান জানান, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বরিশাল থেকে রাজশাহীগামী তুহিন পরিবহন ও ফরিদপুর থেকে টেকেরহাটগামী লোকাল বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। বাস দুটি সামনের অংশ সম্পূর্ণ দুমড়ে-মুচড়ে যায়।

খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে হাইওয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উদ্ধারকাজ শুরু করেন। আ হতদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

কিশোরগঞ্জ: কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে ট্রাকের ধাক্কায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার তিন যাত্রী নি হত হয়েছেন। এ ঘটনায় আ হত হয়েছেন আরও চারজন।

বেলা ১১টার দিকে কিশোরগঞ্জ-ভৈরব মহাসড়কের কটিয়াদী উপজেলার আছমিতা ইউনিয়ন পরিষদের পাশে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নি হতরা হলেন- তোফাজ্জাল হোসেন, ওমর ও সিএনজিচালক জামাল।

আ হতরা হলেন- আবুদাল কাদের, পরিমল, গিয়াস উদ্দিন ও সিরাজ মিয়া।

নি হতদের মধ্যে সিএনজিচালক জামাল উদ্দিনের বাড়ি করিমগঞ্জ উপজেলার নিয়ামতপুর গ্রামে। অন্য দুজনের বাড়ি ইটনা উপজেলার জয়সিদ্ধি ইউনিয়নে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, সকালে যাত্রীবোঝাই একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা কিশোরগঞ্জ থেকে কটিয়াদীর দিকে যাচ্ছিল।

অটোরিকশাটি আছমিতার ভিটাদিয়া এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাক চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই একজন নি হত হয়। উদ্ধার করে বাকিদের বাজিতপুর জহুরুল ইসলাম হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক আরও দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

এছাড়া আ হত চারজনকে কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

কটিয়াদী হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নাসির উদ্দিন মজুমদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

টাঙ্গাইল: টাঙ্গাইলের সখীপুরে পিকআপভ্যানের চাপায় ইসতিয়াক আহমেদ (১৭) নামে এক কলেজছাত্র নি হত হয়েছেন।

সকাল সাড়ে ৯টার দিকে সখীপুর-গোড়াই সড়কের বোয়ালী উত্তরপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ইসতিয়াক আহমেদ পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের শাকিল আজাদের ছেলে। তিনি সরকারি মুজিব কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিলেন।

সখীপুর থানার ওসি আমির হোসেন জানান, সকালে ইসতিয়াক আহমেদ মোটরসাইকেলযোগে সখীপুর থেকে নলুয়া যাওযার সময় বোয়ালী উত্তরপাড়া এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি পিকআপভ্যান তাকে চাপা দিয়ে চলে যায়। এ সময় তিনি মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে গিয়ে রাস্তায় পড়ে ঘটনাস্থলেই নি হত হন।

সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জের কোনাবাড়ীতে তিন বাসের সংঘর্ষে দুজন  নি হত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আ হত হয়েছেন অন্তত ১৫ জন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, দুপুর আড়াইটার দিকে সড়ক বিভাজকের ওপর একটি বাস উঠে যায়। এ সময় পেছনে থাকা আরও দুটি বাস এসে ওই বাসটির সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে ঘটনাস্থলেই দুজন নি হত হন।

আ হতদের উদ্ধার করে স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গোপালগঞ্জ: গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার গোপালপুর এলাকায় প্রাইভেটকারের ধাক্কায় তুহিন মোল্লা (৩০) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নি হত হয়েছেন। এতে গুরুতর আ হত হয়েছেন তার স্ত্রী সাথী বেগম (২৫)।

দুপুরে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তুহিন জেলা সদর উপজেলার লতিফপুর ইউনিয়নের ঘোষেরচর উত্তরপাড়া গ্রামের আশরাফ মোল্লার ছেলে।

কাশিয়ানী থানার এসআই প্রকাশ সরকার জানান, কাশিয়ানীর ভাটিয়াপাড়া থেকে তুহিন তার স্ত্রী সাথীকে সঙ্গে নিয়ে মোটরসাইকেলে করে বাড়িতে ফিরছিলেন। পথে গোপালপুর এলাকায় বিপরীত দিকে থেকে আসা একটি প্রাইভেটকার তাদের মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে তুহিন নি হত এবং তার স্ত্রী গুরুতর আ হত হন।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে নি হতের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে এবং আ হত সাথীকে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এ ছাড়া বরিশালের বাবুগঞ্জে বাসচাপায় এক মোটরসাইকেল চালক নি হত হয়েছেন।

আর পড়তে পারেন