শনিবার, ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সদর দক্ষিণের রতনপুর, বারপাড়াসহ প্রায় প্রতিটি গ্রাম যুব সমাজের লক ডাউন ঘোষনা

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
এপ্রিল ৭, ২০২০
news-image

সালাহ উদ্দিন সোহেল:

বংলাদেশে মহামারী করোনা ভাইরাসের আক্রমণ বেড়েই চলছে । কোনভাবেই থামছেনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা তাই এ ভয়ংকর ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ  উপজেলার প্রতিটি গ্রামকে সচেতন যুব সমাজ এক ব্যতিক্রমি উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

প্রত্যক গ্রামের যুব সমাজ তাদের পুরো গ্রামকে লক ডাউন করে দিয়েছে। সরকার করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে নানান ধরনের বড় বড় পদক্ষেপ নিয়ে সাড়া দেশে সেনা বাহিনীসহ বিপুল পরিমান আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী মোতায়েন করেন। সেনাবাহিনীসহ আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীরা হাটবাজার সহ সকল যায়গায় টহল শেষ করে যাওয়ার পরই অসচেতন জনগন আবার হাট বাজার রাস্তা ঘাটে পূনরায় ভিড় জমায় আড্ডায় মেতে উঠে।

তাই সদর দঃ উপজেলার রতন পুর, ববারপাড়া, হরশপুর, গ্রামের যুব সমাজের সিদ্ধান্ত ক্রমে, আজ মঙ্গলবার থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উল্লেখিত গ্রাম সম্পুর্ণ লক ডাউনে রাখার সিদ্ধান্ত নেয়। ঐ সকল গ্রামের সচেতন যুব সমাজ যানান সমাজের সকল মুরুব্বী ও সর্ব সাধারনের সম্মতি ক্রমে যে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে তা হলো প্রতিদিন সকাল ৭ টা থেকে ১১টা পর্যন্ত দোকান পাঠ খোলা থাকবে, প্রতি পরিবারের এক জন সদস্য উক্ত সময়ে তাদের যাবতীয় কেনা কাটা ধ্রুত শেষ করতে হবে। এবং একজনকে ২য় বার ও এক পরিবার থেকে পূনরায় অন্য কাউকে ঐ দিন বাজারে প্রবেশ করতে দেয়া হবেনা। বাজারে কেনা কাটার সময় একজন থেকে আরেক জনের নির্দিষ্ট দুরুত্ব বজায় রেখে গোল দাগ চিহ্নিত  স্থানে দাড়িয়ে কেনা কাটা করতে হবে। এছাড়াও ফার্মেসি ২৪ ঘন্টা খোলা থাকবে।

ঐ গ্রাম গুলোতে অনির্দিষ্ট কালের জন্য কোন বহিরাগত লোক (মেহমান) প্রবেশ সম্পৃর্ন নিষেধ করা হয়েছে। রোগী বহনকারী গাড়ি ব্যতিত অন্য কোন যানবাহন প্রবেশ করতে দেয়া হবেনা বলে জানান। যুব সমাজ আরো বলেন ভাইরাসের সংক্রমন ঠেকাতে প্রয়োজনে আরো কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করবে তারা। এদিকে রতনপুর, বারাপাড়া হরশপুর গ্রাম লক ডাউন ঘোষণার সংবাদ ছড়িয়ে পরার পর সদর দঃ উপজেলার আশপাশের প্রতিটিটি গ্রামে লক ডাউন শুরু হয়েছে।

নগরীর ২২ নং ওয়ার্ডের শ্রীবল্লভ পুরের পূর্বও পশ্চিম পাড়া, উত্তর রামপুরসহ বেশ কয়টি গ্রাম লক ডাউন করা হয়েছে।

আর পড়তে পারেন