বুধবার, ৩রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সংকটে আওয়ামী লীগের হেভিওয়েটরা নীরব !

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২১
news-image

 

ডেস্ক রিপোর্ট:

আওয়ামী লীগের অনেক জনপ্রিয় সিনিয়র নেতা রয়েছেন। এই নেতাদের জাতীয় রাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান যেমন রয়েছে, তেমনি রয়েছে জনপ্রিয়তা। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে দেখা যাচ্ছে যে, বিভিন্ন সংকটে এই নেতারা এক ধরনের মৌনব্রত অবলম্বন করে। ভাস্কর্য ইস্যুতেও এই নেতারা প্রথমদিকে নীরব ছিল, পরে আবার সরব হয়েছিল। যখন কোটা বিরোধী আন্দোলন, ধর্ষণ বিরোধী আন্দোলনের সময়ও এই শীর্ষ নেতাদের অনেকেই মুখ খোলেননি। কিন্তু এই নেতাদের বিপুল কর্মী-সমর্থক রয়েছে এবং জনগণ তাদের বক্তব্য শুনতে চায়।

সাম্প্রতিক সময়ে আল জাজিরায় ‘অল দ্যা প্রাইম মিনিস্টারস ম্যান’ শিরোনামে একটি তথ্যচিত্র প্রচারিত হয়েছে। এই তথ্যচিত্র নিয়ে সারা বাংলাদেশে আলোচনা হচ্ছে। সরকারের পক্ষ থেকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে আইএসপিআর এই তথ্যচিত্রের প্রতিবাদ করেছে। আওয়ামী লীগের নেতাদের মধ্যে সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সহ কয়েকজন নেতৃবৃন্দ আল জাজিরার এই প্রতিবেদনের সমালোচনা করেছেন। দলের অসংখ্য নেতাকর্মী এই প্রতিবেদনের প্রতিবাদ করে ‘উই অল আর শেখ হাসিনা’স ম্যান’ শিরোনামে তাদের ফেসবুক প্রোফাইলের ছবি দেন। কিন্তু এক্ষেত্রে আওয়ামী লীগের সিনিয়র, জনপ্রিয় এবং জাতীয় নেতৃবৃন্দ মৌনব্রত অবলম্বন করতে দেখা যাচ্ছে।

আমির হোসেন আমু: আওয়ামী লীগের অন্যতম জ্যেষ্ঠ নেতা হলেন আমির হোসেন আমু। এই বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো কথা বলতে দেখা যায়নি আমির হোসেন আমুকে। যদিও ভাস্কর্য ইস্যুতে তিনি সরব ছিলেন। আমির হোসেন আমু শুধু আওয়ামী লীগের হেভিওয়েট নেতাই নন, ১৪ দলের সমন্বয়কারীও। তিনি সমন্বয়কারী হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত ১৪ দলকে সক্রিয় করার কোন উদ্যোগ দেখা যায়নি। আমির হোসেন আমু সাম্প্রতিক সময়ে দেখা যাচ্ছে যে দলের এবং সরকারের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে নিজেকে গুটিয়ে রাখেন।

তোফায়েল আহমেদ: স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য তোফায়েল আহমেদ এখন ভারতে অবস্থান করছেন। তারপরও এই সময় তার একটি বক্তব্য জাতি প্রত্যাশা করেছিল।

বেগম মতিয়া চৌধুরী: বিভিন্ন সংকটের সময় বেগম মতিয়া চৌধুরীকে পাওয়া যায়, তিনি কথাও বলেন। কিন্তু আল জাজিরার প্রতিবেদন ইস্যুতে এখনও পর্যন্ত তার কোনো বক্তব্য জনগণ পায়নি।

শেখ ফজলুল করিম সেলিম: আওয়ামী লীগের একজন প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং গুরুত্বপূর্ণ নেতা শেখ ফজলুল করিম সেলিম। তিনিও এই সংকটের সময় এক ধরনের নীরবতা পালন করছেন।

তথ্যচিত্রটি প্রকাশিত হওয়ার পর আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতাদের এই ক্ষেত্রে নীরবতা অনেকের মধ্যেই প্রশ্ন তুলেছে।

আর পড়তে পারেন