মঙ্গলবার, ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, পুরাতন ৩১ শয্যার সরঞ্জাম দিয়েই চলছে ৫০ শয্যার কাজ

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
মে ৩, ২০১৮
news-image

 

 মো: জাহাঙ্গীর আলম হৃদয় :

চাঁদপুর জেলার শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পুরাতন ৩১ শয্যার সরঞ্জাম দিয়েই চলছে ৫০ শয্যার কাজ। শাহরাস্তি উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন ও ১ টি পৌরসভার বসবাসকারি লাখো জনসাধারণের চিকিৎসার কথা চিন্তা করে ১৯৮৪ সালে হাসপাতালের কার্যক্রম শুরু হয়।

শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: মানিক লাল মজুমদারের সাথে আলাপকালে তিনি এই প্রতিনিধিকে জানান, ১৯৮৪ সালে এই হাসপাতালের কার্যক্রম শুরু হলেও তখন তেমন কোন ডাক্তার বা নার্স ছিলনা ।

১৯৯৪ সালে স্থায়ীভাবে সরকারী অর্থায়নে ৩১ শয্যার মাধ্যমে নতুন ভাবে ৯ জন ডাক্তার, ১০ জন নার্স, ১ জন ওয়ার্ড বয়, ২ জন আয়া থাকার কথা থাকলেও একজনও নাই । ২ জন সুইপার ও একজন এক্সরে ম্যান হাসপাতালে বর্তমানে কাজ করছেন। উপজেলার জনসাধারনের কথা চিন্তা করে ২০০৮ সালে চাঁদপুর -৫ (হাজীগঞ্জ – শাহরাস্তি) স্থানীয় সাংসদ সাবেক স্বরাস্ট্রমন্ত্রী মেজর (অব:) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম এটিকে ৩১ শয্যা হাসপাতাল থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীত করেন। স্থানীয় সাংসদের সহযোগিতায় কিছু নতুন সরঞ্জাম ও এম্বুলেন্স হাসপাতালে আসে।

৫০ শয্যা হাসপাতালের জন্য যে হারে সরঞ্জাম, ডাক্তার, নার্স, ওয়ার্ড বয়, প্যাথলজিষ্ট, ইসিজি, এক্স-রে, টিকেটিং, আয়াসহ লোকবল থাকার কথা এই হাসপাতালে বর্তমানে তা নেই। আমরা ৩১ শয্যার লোকজন দিয়েই কোন মতে বর্তমানে পরিচালনা করছি। স্থানীয় সাংসদকে এই ব্যাপারে বলেছি এবং তিনি আশ্বাস দিয়েছেন দ্রুততম এই সমস্যার সমাধান করার। তিনি আরো বলেন, প্রতিনিয়তই হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। তাদের সিটে জায়গা দিতে পারিনা । অনেক সময় ফ্লোরেই রোগীদের রাখতে হয়। রোগীদের জন্য সরকারিভাবে দেওয়া হাসপাতালের এম্বুলেন্স রয়েছে। শাহরাস্তি থেকে কোন রোগীকে কুমিল্লা বা ঢাকায় নিতে হলে আসা যাওয়া বাবদ প্রতি কিলোমিটার ২০ টাকা হারে জমা দিতে হয়। এর বাড়তি কোন টাকা দাবি করলে আমার কাছে রোগীদের পক্ষ থেকে অভিযোগ আসলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আর পড়তে পারেন