সোমবার, ১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শাহরাস্তিতে বসতবাড়ি দোকানপাট নষ্ট করে ব্রিজ নির্মাণের অভিযোগ

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
মে ৩, ২০২১
news-image

 

মোঃ রুহুল আমিনঃ

চাদঁপুরের শাহরাস্তি উপজেলার চিতোষী পূর্ব ইউনিয়নের বড়তুলা বাজারের উপর ব্রিজ নির্মাণ আপত্তি  জানিয়ে অভিযোগ পাওয়া গেছে । এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার।

বড়তুলা গ্রামের মৃত আনামিয়া মুন্সির পুত্র মোঃ নুর আলম জানান, পৈতৃক সূত্রে ১০০ বছর ভোগদখল করে বসবাস করছি। বর্তমানে আমাদের বসতবাড়ির পাশে বড় তুলা রাস্তার মাথা থেকে কাদরা পর্যন্ত জনসাধারণের চলাচলের জন্য পাকা রাস্তা রয়েছে। রাস্তাটি আমাদের বসতবাড়ির সংলগ্ন । বড় তুলা বাজারসংলগ্ন পাকা রাস্তার  উপর ১৯৮৬ সালে ছোট বক্স কালভার্ট নির্মাণ করে। ২০০৭ সাল থেকে রাস্তার উত্তর পাশ দিয়ে পানি নিষ্কাশন ধীরে ধীরে বন্ধ হয়ে আসে। এক সময় আমাদের বাড়ির চারপাশে নৌকা দিয়ে আমরা চলাফেরা করেছি। বর্তমান সরকারের উন্নয়নের কারণে আজকে যোগাযোগব্যবস্থা অনেক উন্নত হয়েছে। জনগণের প্রয়োজনেই ব্রিজ। কিন্তু এখানে এই ব্রিজের কোনো প্রয়োজন নেই। জনগণের টাকাগুলো এখানে অপচয় না করার আমরা জোর দাবি জানাচ্ছি ।

আমরা এই বাড়িতে ১৫ টি পরিবার বসবাস করছি। এখানে ব্রিজ করলে ১৫ টি পরিবারের রাস্তায় বন্ধ হয়ে যাবে। যেখানে পানি নিষ্কাশনের কোন জায়গা নেই। সেখানে ব্রিজ নির্মাণ করা প্রয়োজন আছে কিনা তদন্ত করে প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানাই।

রাস্তার উত্তর পাশে সরকারি কোনো হালট নেই। ব্রিজ করলে পানি নিষ্কাশনের যে জায়গা সেখানে নেই । ১৫ টি পরিবারের কথা বিবেচনা করে জেলা প্রশাসক উপজেলা প্রশাসনের প্রতি আমরা ন্যায়বিচারের স্বার্থে এই ব্রিজটি অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার আবারো জোর দাবি জানাচ্ছি।

ইউনিয়নের ভুক্তভোগীরা জানান , বাধার মুখে ব্রিজ এর কাজ বন্ধ থাকার কারণে বিভিন্ন সময়ে যানবাহন নিয়ে চলাফেরা করা অনেক ভোগান্তির মধ্যে পড়তে হচ্ছে । ব্রিজ না করে রাস্তাটি মেরামত করলে চলাফেরার  উপযোগী হবে। এই রাস্তাটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ । রাস্তা দিয়ে ইউনিয়নের অনেক মানুষ চলাফেরা করে। ব্রিজের জন্য বাধার কারণে কাজ বন্ধ থাকার কারণে সাধারণ জনগণকে অনেক ভোগান্তির মধ্যে পড়তে হচ্ছে। ভারী কোনো মালামাল নেওয়া যাচ্ছে না । আমরা প্রশাসনের কাছে ব্রিজ না হলে দ্রুত রাস্তাটি সংস্কার করার জোর দাবি জানাচ্ছি। এ বিষয়ে সংসদ সদস্য মেজর রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম, নির্বাহী প্রকৌশলী এলজিইডি, শাহরাস্তি উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহি অফিসার ,শাহরাস্তি থানা ভারপ্রাপ্ত অফিসার, উপজেলা প্রকৌশলী ও ইউপি চেয়ারম্যানকে অনুলিপি প্রদান করা হয়েছে।

আর পড়তে পারেন