শনিবার, ৩১শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শতাব্দীর সেরা ট্রান্সফার পাল্টে দিয়েছে ফুটবলের ইতিহাস

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
আগস্ট ৩, ২০১৭
news-image
ডেস্ক রিপোর্টঃ
ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমারের আলোচিত দলবদল নিয়ে শুধুমাত্র বার্সেলোনা কিংবা প্যারিস সেইন্ট-জার্মেই নয়, পুরো বিশ্ব ফুটবলে এখন তোলপাড় চলছে। তার সাথে পাল্লা দিয়ে বিশ্বের গণমাধ্যমগুলো যেন এ সম্পর্কিত নতুন নতুন তথ্য জানাতে প্রতিযোগিতায় মেতেছে। বিশেষ করে ফ্রেঞ্চ ও স্প্যানিশ গণমাধ্যমগুলো এ ব্যপারে দারুন সক্রিয় ভূমিকা রাখছে।
নেইমারকে নিয়ে তাদের প্রতিক্রিয়াটা যেন একটু বেশিই। তার তাইতো তাদের দাবি, নেইমারের এই দলবদলের সিদ্ধান্ত ও এর সাথে সম্পর্কিত অর্থের পরিমাণ পুরো ফুটবলের ইতিহাসই পাল্টে দিয়েছে। এখনো পর্যন্ত বিভিন্ন সূত্রমতে জানা গেছে, ব্রাজিলিয়ান এই স্ট্রাইকারকে দলে ভেড়াতে পিএসজি ২২২ মিলিয়ন ইউরো গুণতে হচ্ছে। যা ক্লাব ফুটবলে অবশ্যই একটি রেকর্ড। শেষ পর্যন্ত নেইমারের বার্সা ছাড়ার সাথে সাথে লিওনেল মেসি-লুইস সুয়ারেজ-নেইমারাকে নিয়ে গঠিত ‘এমএসএন’ অধ্যায়ও শেষ হতে চলেছে।
ব্রাজিলিয়ান এই সুপারস্টারকে দলে পেয়ে বৃহস্পতিবার ফ্রান্সের পত্রিকাগুলো ছিল পুরোটাই নেইমারময়। ফ্রান্সের স্থানীয় দৈনিক লে প্যারিসিয়ানের প্রথম পাতার তিন ভাগ জুড়েই ছিল বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলারের বিভিন্ন সংবাদ। বড় লাল ব্যানার হেডলাইনে ২৫ বছর বয়সী এই তারকা ছবির ওপরে তারা লি‡খছে, ‘নেইমার এখন পিএসজিতে- শতাব্দীর সেরা ট্রান্সফার’। ছবিটিতে ফটোশপের মাধ্যমে নেইমারের গায়ে পিএসজির জার্সিও পড়িয়ে দেয়া হয়েছে। ছবিটির ক্যাপশনে লেখা হয়েছে ‘নেইমার হয়তোবা চলতি সপ্তাহ থেকেই প্যারিসের জার্সি গায়ে জড়াবেন’। নেইমারের সম্ভাব্য এই দলবদল নিয়ে তারা পত্রিকার প্রথম পাঁচ পাতায় বিভিন্ন ধরনের সংবাদ ও ছবি প্রকাশ করেছে।
ফ্রেঞ্চ আরেক দৈনিক এল’ইকুয়েপ তাদের প্রথম পাতায় পুরোটা জুড়ে নেইমারের একটি ছবি প্রকাশ করেছে। সেখানে দেখানো হচ্ছে নেইমার তার গাড়ির পিছনে দাঁড়িয়ে লিওনেল মেসি ও বার্সা সতীর্থদের বিদায় জানাচ্ছেন। হেডলাইনে লেখা হয়েছে, ‘সে আসছে’।
স্পেনের পত্রিকাগুলো অবশ্য কিছুটা এই বিষয়ে প্রশান্ত ও মননশীল ভাব প্রকাশ করেছে। জনপ্রিয় স্পোর্টস দৈনিক মার্কায় লেখা হয়েছে, ‘এই চুক্তি ফুটবলের ইতিহাস পাল্টে দিয়েছে’। অন্যান্য পত্রিকাগুলোর ভাষাও মোটামুটি প্রায় একইরকম ছিল। লা ভনগার্ডিয়া লিখেছে, ‘নেইমারের প্রস্থান বার্সাকে নিজেদের নতুন করে চেনাতে বাধ্য করেছে’। বাসস।

আর পড়তে পারেন