মঙ্গলবার, ৩রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

লাকসাম ও মনোহরগঞ্জে ভোটের আমেজ নেই

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
মার্চ ৫, ২০১৯
news-image

 

ডেস্ক রিপোর্টঃ
চতুর্থ ধাপে দেশের ১২২টি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তারমধ্যে লাকসাম এবং মনোহরগঞ্জ উপজেলা দুটিতেও এই ধাপে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সে অনুযায়ী গত ২০ ফেব্রুয়ারি যথারীতি নির্বাচনের তপসিল ঘোষণা করা হয়েছে। নির্বাচনের তপসিল ঘোষণা মোতাবেক সোমবার ৪ মার্চ, ছিল মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন।

ওইদিন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ছাড়া অন্য কোনো রাজনৈতিক দল কিংম্বা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবেও এই দুটি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কেউ কোনো মনোনয়নপত্র জমা দেননি। ফলে এই দুটি উপজেলায় চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীরাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

লাকসাম উপজেলায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীরা হলেন, চেয়ারম্যান পদে মো. ইউনূস ভূঁইয়া, ভাইস চেয়ারম্যান পদে মহব্বত আলী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে রাশিদা বেগম ও পড়শী সাহা। পড়শী সাহা এবার নূতন মূখ। এ ছাড়া, অন্যরা ২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী হন।

মনোহরগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীরা হলেন, চেয়ারম্যান পদে মো. জাকির হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে আমিরুল ইসলাম এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আফরোজা কুসুম।

২০১৪ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে মো. জাকির হোসেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ইলিয়াস পাটোয়ারীর কাছে হেরে যান। ওই নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী হিসেবে আফরোজা কুসুম বিজয়ী হন। এবার তিনি ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দেন।

মনোহরগঞ্জ উপজেলায় এবার ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ মনোনীত ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মো. আমিরুল ইসলাম নূতন মূখ। তিনি স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলামের ভাতিজা।

এদিকে লাকসাম ও মনোহরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ছাড়া কোনো রাজনৈতিক দল কিংম্বা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে অন্য কেউ নির্বচনে অংশ না নেওয়ায় ভোটারদের মাঝে ভোটের কোনো আমেজ নেই।

আর পড়তে পারেন