বুধবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদকে একটু অন্যভাবে জেনে নিন

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ডিসেম্বর ৬, ২০১৯
news-image

 

ডেস্ক রিপোর্টঃ

সমাবর্তন অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ একটু রসিকতা করেন বলে অনেকেই তার সমালোচনা করে! তবে সেই সংখ্যাটা খুবই কম। কারণ মানুষ ওনাকে এভাবেই ভালোবাসেন।

যেই শিক্ষিত জনগণেরা (specially young blood) উনার সমালোচনা করেন একটু নিজের সাথে মিলিয়ে নিতে পারেন যে আপনি কি করেছেন! আপনার বয়সে আব্দুল হামিদ কি করেছিলেন

-২৬ বছর বয়সে আমরা যখন চাকরির বই পড়তে পড়তে মুখে ফেনা তুলে ফেলি..আবদুল হামিদ সাহেব সেই ২৬ বছর বয়সে বঙ্গবন্ধুর সামনে দাড়িয়ে বলেন ” আমি ইলেকশনে প্রার্থী হমু। নমিনেশন দ্যান। “এবং ১৯৭০ সালে পাকিস্তান পার্লামেন্টে সর্বকনিষ্ঠ প্রতিনিধি হিসেবে নির্বাচিত হন।

-২৬ বছরের শিক্ষিত ছেলে-মেয়েদের মাইক হাতে ধরলে হাটু কাপা শুরু করবে আর আবদুল হামিদ সাহেব সেই বয়সে পার্লামেন্টে দাড়িয়ে ভাষণ দিয়েছিলেন।

– আবদুল হামিদ সাহেব দেশের দুর্যোগের মুহুর্তে আপনার মতন ফেইসবুকে আন্দোলন করেননি,তিনি ৬৯ এর গণ অভ্যুত্থানে অংশ নেন। ১৭ মার্চ তিনি কিশোরগঞ্জে স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলিত করেন। যুদ্ধ শুরু হলে তিনি মুক্তিযুদ্ধের ব্যয় নির্বাহের জন্য ১১ কোটি টাকা সংগ্রহ করে ফান্ডে জমা দেন। তিনি একজন সাব সেক্টর কমান্ডার হিসেবে যুদ্ধ করেন।

– আবদুল হামিদ সাহেব একটি আসন থেকে ৭ বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য। এই আঞ্চলিক টোনে কথা বলা মানুষটাই নিজ উদ্যোগে ৭৫ টি প্রাইমারি স্কুল ,২৪ টি হাইস্কুল এবং ৩ টি কলেজ প্রতিষ্ঠা করেছেন। আর উনি এমনই একজন রাজনীতিবিদ যার বিরুদ্ধে কোন দুর্নীতি বা অনিয়মের অভিযোগ নেই।

আর পড়তে পারেন