রবিবার, ১৬ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

রাজধানীর সড়কগুলোও ছেয়ে গেছে মুসল্লিদের অংশগ্রহণে

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
এপ্রিল ১৬, ২০২১
news-image

 

ডেস্ক রিপোর্টঃ

পবিত্র রমজান মাসের প্রথম জুমা অনুষ্ঠিত হয়েছে আজ শুক্রবার (১৬ এপ্রিল)। দুপুরে রাজধানীর বড় থেকে ছোট প্রায় সবগুলো মসজিদেই ছিল মুসল্লিদের ব্যাপক অংশগ্রহণ।

সড়কের পাশের মসজিদগুলোতে ভেতরে মুসল্লিদের সংকুলান না হওয়ায় তা ছড়িয়েছে মূল সড়কেও। এ কারণে দুপুর সোয়া একটা থেকে প্রায় পৌনে দুইটা পর্যন্ত রাজধানীর অনেক সড়কই ছিল প্রায় বন্ধ। কোনও-কোনও সড়কের উভয় পাশেই কড়া রোদে দাঁড়িয়ে সৃষ্টিকর্তার প্রতি প্রার্থনা জানিয়েছেন মুসল্লিরা।

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে মুসল্লিরা সামাজিক দূরত্ব মেনেই নামাজে অংশগ্রহণ করেছেন। তবে, অন্যান্য মসজিদে সুরক্ষানীতি মেনে চলার তেমন কোনও প্রচেষ্টা চোখে পড়েনি।

ঢাকার মোহাম্মদপুর জামে মসজিদে স্বাভাবিক সময়ের মতো মুসল্লিদের অংশগ্রহণ ছিল জুমার নামাজে। তবে সামাজিক দূরত্ব সেখানে পরিলক্ষিত হয়নি বলেই জানা গেছে।

রাজধানীর পান্থপথ, কলাবাগান, গ্রিনরোড এলাকার অন্তত ছয়টি মসজিদ সরেজমিনে দেখা গেছে, মুসল্লিদের উপচেপড়া অংশগ্রহণ। পশ্চিম পান্থপথ জামে মসজিদের জুমার নামাজে ছিল মুসল্লিদের ব্যাপক অংশগ্রহণ। সড়কের উভয়পাশেই মুসল্লিরা জায়নামাজে দাঁড়িয়েছেন কড়ারোদ মাথায় নিয়েই। দু’রাকাত জুমা ও নামাজের পর বিশেষ মোনাজাতেও হাত তুলেছেন তারা। একই দৃশ্য দেখা গেছে, কলাবাগান বশিরউদ্দিন রোডের মসজিদেও। সামনের সড়কটিতে পুরোপুরি বন্ধ রেখে নামাজ পড়েছেন মুসল্লিরা। গ্রিন রোড স্টাফ কোয়ার্টার মসজিদে, মসজিদের ছাদে ও সড়কে দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করেছেন আগত মুসল্লিরা। যদিও এসব জমাতে সুরক্ষানীতি মেনে চলার মতো কোনও পরিস্থিতি দেখা যায়নি।

গত ১২ এপ্রিল ধর্ম মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. সাখাওয়াৎ হোসেন স্বাক্ষরিত নির্দেশনায় বলা হয়, ‘করোনা পরিস্থিতিতে সুরক্ষা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে মসজিদে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের প্রতি ওয়াক্তে সর্বোচ্চ ২০ জন মুসল্লি অংশ নিতে পারবেন। রমজানে তারাবির নামাজে খতিব, ইমাম, হাফেজ, মুয়াজ্জিন ও খাদিমসহ সর্বোচ্চ ২০ জন মুসল্লি অংশগ্রহণ করবেন। জুমার নামাজে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে মুসল্লিরা অংশ নেবেন। মুসল্লিদের পবিত্র রমজানে তিলাওয়াত ও জিকিরের মাধ্যমে মহান আল্লাহর রহমত ও বিপদ মুক্তির জন্য দোয়া করার অনুরোধ করা হলো।’

জানা যায়, রাজধানীর শান্তিপুর মসজিদে রাস্তায় দাঁড়িয়ে জুমার নামাজ আদায় করেছেন মুসল্লিরা। মসজিদের ভেতরে সামাজিক দূরত্ব বজায় ছিল। রাস্তায় সামান্য ফাঁকা অবস্থায় দাঁড়ান মুসল্লিরা। তবে মসজিদের ভেতর ছিল কানায় কানায় পূর্ণ।

পল্টন লেন জামে মসজিদেও মুসল্লিদের ব্যাপক অংশগ্রহণ ছিল বলে জানান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী। তিনি বলেন, ‘মসজিদের বাইরেও রাস্তায় মানুষ ছিল। সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার কোনও সুযোগ ছিল না।’

রাজধানীর পুরান ঢাকার চৌধুরী বাজার জামে মসজিদে জুমা আদায় করা একজন তরুণ মুসল্লি বলেন, ‘আমরা চৌধুরী বাজার জামে মসজিদে নামাজ পড়েছি। আজানের সঙ্গে সঙ্গেই ছাদ পর্যন্ত মুসল্লিরা অবস্থান নেন। নামাজ শুরু হওয়ার পর মানুষ রাস্তায় দাঁড়ান। চৌধুরী বাজার মোড় ছাড়িয়ে যায় মুসল্লিদের অংশগ্রহণ।’

আর পড়তে পারেন