সোমবার, ২৫শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

মেঘনায় ছেলেদের সম্পত্তি লিখে দিয়ে বৃদ্ধা” মা ” বাস করে গরুর ঘরে

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
মে ৪, ২০১৮
news-image

 

এম এইচ বিপ্লব সিকদার, মেঘনা :

কুমিল্লার মেঘনা উপজেলায় সৎ ছেলেদের নিজের সম্পত্তি লিখে দিয়ে বৃদ্ধা মা বাস করছেন গরুর ঘরে। উপজেলার মহেশখোলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটতেছে। গোপন অনুসন্ধানে এ ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়।

অনুসন্ধানে জানা যায় মহেশ খোলা গ্রামের মৃত বাচ্চু মিয়ার ২ য় স্ত্রী কামিনী বেগম(৭৫)। মৃত বাচ্চু মিয়ার প্রথম সংসারে ২ ছেলে ১ মেয়ে। কামীনী বেগমের সংসারে ১ ছেলে হয় অনুমান ২৫ বছর বয়সে ছেলেটি হারিয়ে যায় পরে আর ফেরত আসেনি কামীনীর কোলে। স্বামী মারা যাওয়ার পর সৎ ছেলেদের আশ্রয়ে জীবন যাপন করছিলেন কামীনী বেগম।

অনুমান ১৫ বছর পূর্বে গ্রামের পঞ্চায়েত কিছু জমি কামীনী বেগমের নামে লিখে দেওয়ার ব্যবস্থা করে ছেলেদের কাছ থেকে।মৃত বাচ্চু মিয়ার ১ম সংসারের বড় ছেলের নাম শাহজাহান ২য় ছেলে হারুন।বড় ছেলে শাহজান ২ ছেলে ২ মেয়ে রেখে মৃত্যু বরন করে। মৃত বাচ্চু মিয়ার ১ম সংসারের ছেলেদের আর্থিক অবস্থা ভালো ই চলছে। বিধবা কামীনী বেগম কে লালন পালন করার কথা বলে ফুসলিয়ে তার সম্পত্তি লিখে নেয় সৎ ছেলেদের পরিবার। কামীনী বেগম স্বর্বস্বান্ত হয়েও শেষ বয়সে তার ভাগ্য আর শুখ জোটলনা। বসবাস করতে পারলোনা সৎ ছেলেদের বড় বড় ঘর আর শুখী পরিবারের সাথে বাস করছে এখন ছেলেদের গরুর ঘরের এক কোণায়।

গরুর মল, মূত্র, দূর্গন্ধ, এখন কামীনী বেগমের নাকে লাগেনা। ৭৫ বয়সী এই বৃদ্ধাকে দুই ছেলের সংসার থেকে ১০ কেজি চাল আর ৬০০টাকা দেয়া হয় মাসে বরন পোষনের দায়ে।নিজে নিজে কষ্ট করে কোন রকম দিনাতিপাত করছে কামীনী বেগম। স্যাত স্যাতে আবহাওয়ায় দূর্গন্ধ, অযন্ত অবহেলায় ধীরে ধীরে মৃত্যুর দিকে ঝুঁকে পড়ছে তার জীবন। কামীনী বেগম কে এখন আর দেখার কেউ নেই।

আর পড়তে পারেন