মঙ্গলবার, ১৯শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

মুরাদনগরে স্ত্রীর সাথে পরকীয়া সন্দেহে গৃহকর্তাকে ছুরিকাঘাতে হত্যার চেষ্টা মাদকাসক্ত স্বামীর

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২১
news-image

 

মাহবুব আলম আরিফ, মুরাদনগরঃ

কুমিল্লার মুরাদনগরে স্ত্রীর সাথে পরকীয়া সন্দেহে জাহাঙ্গীর সওদাগর (৫৫) নামে এক গৃহকর্তাকে ছুরিকাঘাত করে হত্যার চেষ্টা করেছে স্থানীয় সিএনজি চালক ইসমাইল মিয়া (৫০)।

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাতে উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানা সংলগ্ন মুন্সি বাড়ি জামে মসজিদ থেকে মাগরিব নামাজ শেষ নিজ বাড়ি ফিরার পথে এ ঘটনা ঘটে। আহত জাহাঙ্গীর সওদাগর বাঙ্গরা গ্রামের মৃত হাজী শুক্কুর আলীর ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সিএনজি চালক ইসমাইল তার ২য় স্ত্রী নাছরিনকে বিবাহের পর থেকে কোন ধরনের ভরন পোশন দিতেন না। স্বামীর কাছ থেকে কোন প্রকার সহযোগীতা না পেয়ে পাশের বাড়ির জাহাঙ্গীর সওদাগরের বাড়িতে গৃহকর্মীর কাজ করতো নাছরিন। এরই মধ্যে চালক ইসমাইল ও নাছরিনের ঘরে দুইটি কন্যা ও একটি ছেলে সন্তান জন্ম নেয়। তাতেও মন গলেনি ইসমাইলের কোন প্রকার ভরন পোশন দেয়াতো দুরের কথা উল্টো প্রতিনিয়ত শারিরীক নির্যাতনের শিকার হতো ওই গৃহবধূ।

একপর্যায় নিজের পাশাপাশি দুই মেয়েকেও জাহাঙ্গীরের বাড়িতে কাজ করতে নিয়ে যেতেন তিনি। কয়েক বছর আগে দুই মেয়ে শাবালক হলে ভাল পাত্র দেখে নিজ খরচে বিয়ে দিয়ে দেন গৃহকর্তা জাহাঙ্গীর। গৃহকর্তার এই কাজের উপর পরকীয়া সম্পর্কের সন্দেহ করেন স্বামী ইসমাইল। আর এতে করে তার স্ত্রীর উপর নির্যাতনের পরিমান আরো বেড়ে যায়। একপর্যায়ে মাদকাসক্ত স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে গত দু’মাস আগে কাউকে কিছু না বলে স্বামীর বাড়ি ছেড়ে চলে যায় ওই গৃহবধূ। তাকে ছেড়ে চলে যাওয়ার পেছনে গৃহকর্তা জাহাঙ্গীরের হাত আছে বলে সন্দেহ করতেন স্বামী ইসমাইল। সেই সন্দেহের জেরে শনিবার সন্ধ্যা রাতে বাঙ্গরা বাজার থানা সংলগ্ন মুন্সি বাড়ি জামে মসজিদ থেকে মাগরিব নামাজ শেষ নিজ বাড়ি ফেরার পথে জাহাঙ্গীর সওদাগরের উপর বোরকা পরে নারী বেশে হামলা চালায় ইসমাইল।

একপর্যায়ে হাতে থাকা ধারালো ছুড়ি দিয়ে জাহাঙ্গীরের উপর আঘাত করতে থাকে ইসমাইল। বাচাঁর জন্য জাহাঙ্গীর শোর চিৎকার করলে পাশের বাড়ির লোকজন এগিয়ে আসলে দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে ইসমাইল। এসময় স্থানীয় লোকজন তাকে ছুড়িসহ আটক করে বাঙ্গরা বাজার থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। পরে স্থানীয়রা জাহাঙ্গীর সওদাগরকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকার একটি বেসরকারী হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

এ বিষয়ে বাঙ্গরা বাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, এ ঘটনায় হামলাকারি ইসমাইলকে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। পাশাপাশি ঘটনায় ব্যবহৃত ছুড়িটি উদ্ধার করা হয়েছে।

 

আর পড়তে পারেন