শনিবার, ৩১শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

মনোহরগঞ্জে সম্পত্তি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে বীর মুক্তিযাদ্ধা নুরুল ইসলামকে হত্যা চেষ্টা

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
অক্টোবর ২, ২০১৮
news-image

 

 শাহাদাত হোসেন:

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার বাইশগাঁও ইউনিয়নের শরীফপুর গ্রামের মৃত ইদ্রিস মিয়ার ছেলে বীর মুক্তিযাদ্ধা মো: নুরুল ইসলামকে সম্পত্তি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে তার আপন ছোট ভাই দেলোয়ার হোসেন দেশীয় অস্ত্র দিয়ে তার মাথায় আঘাত করে হত্যা চেষ্টা করেন।

এই বিষয়ে বীর মুক্তিযাদ্ধা নুরুল ইসলাম বাদী হয়েমনোহরগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার শরীফপুর গ্রামের বীর মুক্তিযাদ্ধা নুরুল ইসলাম এর তার আপন ছোট ভাই দেলোয়ার হোসেনের সাথে দীর্ঘ ২৪ বৎসর যাবত পৈত্রিক সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে।

২৫ সেপ্টেম্বর আনুমানিক দুপুর ২ টার দিকে যৌথ মালিকানা পুকুরে গোসল করতে যায় বীর মুক্তিযাদ্ধা নুরুল ইসলাম। সেখানে সে দেখতে পায়, তার বিল্ডিং এর পাঁচ হাত দুরে পুকুরে ২৫- ৩০ হাত লম্বা একটি মাচা তৈরি করে দেলোয়ার হোসেন। মাচা তৈরির উদ্দ্যেশ জিজ্ঞাস করলে দেলোয়ার হোসেন মুক্তিযাদ্ধা নুরুল ইসলামকে অশ্লীল ভাষায় গালাগাল করতে থাকে। প্রতিবাদ করলে দেলোয়ার আমার কোমরে ইট মেরে আমাকে আহত করে।

এবং পরে আমি সেখান থেকে প্রানভয়ে দৌড়ে বাঁচার চেষ্টা করলে দেলোয়ারের হাতে থাকা অস্ত্র দিয়ে আমার মাথায় খুব জোরে আঘাত করে। সাথে সাথে আমার মাথা থেকে রক্ত বের হতে থাকে। আমার  চিৎকারে স্থানীয় শ্রী সখা বর্মন ও মো: মহসিন আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

স্থানীয় সূত্রে আরো জানা যায়, শাহরাস্তি ও মনোহরগঞ্জ থানায় দেলোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।

বীর মুক্তিযাদ্ধা নুরুল ইসলাম বলেন আমি বাংলার প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার মাধ্যমে সুবিচার পাব। এবং আমি জননেত্রীর হস্তখেপ কামনা করি। এই বিষয়ে মনোহরগঞ্জ থানার ওসি আনোয়ার হোসেন খান বলেন, এই বিষয়ে মনোহরগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ঐ মুক্তিযাদ্ধা। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত চলেছে অভিযোগ প্রমানিত হলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আর পড়তে পারেন