রবিবার, ৭ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বাইডেনের যাত্রা শুরু যাদের নিয়ে

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জানুয়ারি ১৯, ২০২১
news-image

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

সময়ের হিসাবে আর বাকি কয়েক ঘন্টা। এরপরই হোয়াইট হাউজে ট্রাম্প অধ্যায়ের যবনিকাপাত হবে। পর্দা উঠবে নতুন প্রশাসনের। সেই প্রশাসনে প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্বে থাকবেন ডেমোক্রেট জো বাইডেন। তার সঙ্গে সাহস যোগাবেন ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত কমালা হ্যারিস। বুধবার ( ২০ জানুয়ারি) এই প্রশাসন তারা শুরু করতে যাচ্ছেন হাতেগোণা মাত্র কয়েকজন ডেপুটিকে সঙ্গে নিয়ে। তার আগে বাইডেন মনোনীত ডেমোক্রেট দলের মন্ত্রীপরিষদের অনুমোদন নিতে হবে সিনেট থেকে। তাদের নিয়োগ নিশ্চিত করতে মঙ্গলবার সিনেটে শুনানি হবে।

প্রথম নারী অর্থমন্ত্রী হবেন ইয়েলেন
প্রেসিডেন্ট মনোনীত ট্রেজারি সেক্রেটারি বা অর্থমন্ত্রী মনোনীত জ্যানেট ইয়েলেন। তার নিয়োগ চূড়ান্ত করা নিয়ে স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে শুনানি হবে সিনেট ফাইন্যান্স কমিটিতে। যুক্তরাষ্ট্রের আইনপ্রণেতাদের কাছে তিনি কোনো আগন্তুক নন। তিনি দীর্ঘ সময় অর্থনৈতিক নীতিনির্ধারকের ভূমিকা পালন করে আসছে। ফলে তার নিয়োগ সিনেটে নিশ্চিত হলে তিনি হবেন এই মন্ত্রণালয়, ফেডারেল রিজার্ভ এবং হোয়াইট হাউজের কাউন্সিল অব ইকোনমিক এডভাইজার-এর প্রথম নেতৃত্বাদানকারী। একই সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রণালয়কে সামনে এগিয়ে নেয়ার জন্য প্রথম নারী অর্থমন্ত্রী হবেন তিনি। করোনা মহামারির ফলে যে সময়ে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতি টিকে থাকার জন্য সংগ্রাম করছে তখন তিনি এ দেশটির আর্থিক নীতি সামনে চালিয়ে নিতে ব্যবহার করবেন তার বিস্তৃত ক্ষমতা। কিন্তু করোনার ক্ষতি পুনরুদ্ধারে বিপুল পরিমাণ অর্থের জন্য এবং আয়কর বাড়ানোর যে প্রস্তাব করেছেন বাইডেন তা নিয়ে বিতর্কে জড়াবে রিপাবলিকানরা।

গোয়েন্দা সংস্থার ডিরেক্টর অরভিল হেইন্স
যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএর ডেপুটি ডিরেক্টরের দায়িত্বেও ছিলেন অরবিল হেইন্স। এ পদে এ যাবতকাল তিনিই প্রথম নারী ছিলেন। তিনি হলেন সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাপক ওবামার সময়ের জাতীয় নিরাপপত্তা বিষয়ক হোয়াইট হাউজের ডেপুটি এডভাইজার। গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএর ডেপুটি দায়িত্বে প্রথম নারী ছিলেন। তাকে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার ডিরেক্টর হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছেন জো বাইডেন। ২০০১ সালের ১১ই সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে সন্ত্রাসী হামলার পর এ পদটি সৃষ্টি করা হয়। এর মধ্য দিয়ে তিনি হবেন এ পদে প্রথম নারী। এ পদের দায়িত্ব হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের ১৭টি গোয়েন্দা বিষয়ক এজেন্সির মধ্যে সমন্বয় করা। রিপাবলিকান ও ডেমোক্রেট সিনেটরদের সূত্রগুলো বলেছে, হেইন্স তার নিয়োগ নিশ্চিত করার পক্ষে ভোট পাবেন। তবে জাতীয় নিরাপত্তা ইস্যুতে যেসব চ্যালেঞ্জ সে সম্পর্কে তার দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়তে পারেন। রাশিয়া থেকে যে সাইবার যুদ্ধ চালানো হয়, তার প্রেক্ষিতে তাকে প্রশ্ন করা হতে পারে। তার নিয়োগ চূড়ান্ত করা নিয়েও সিনেটে আজ স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় শুরু হবে। এই শুনানি করবে সিনেট সিলেক্ট কমিটি অন ইন্টেলিজেন্স।

হোমল্যান্ড সিকিউরিটির সেক্রেটারি হবেন আলেসান্দ্রো
অন্যদিকে সিনেটের হোমল্যান্ড সিকিউরিটি এন্ড গভর্নমেন্টাল অ্যাফেয়ার্স প্যানেল সাক্ষাতকার নেবে আলেজান্দ্রে মায়োরকাসের। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক ফেডারেল প্রসিকিউটর এবং কিউবার অভিবাসী। হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিষয়ক সেক্রেটারি হিসেবে তাকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। তিনি বাইডেনের আমলে সীমান্ত নিরাপত্তা ও এজেন্সিগুলোর ভিতর জরুরি বিষয়ে দেখাশোনা করার মতো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন। ওদিকে বুধবার ক্ষমতা নেয়ার পর কংগ্রেসে অভিবাসন বিষয়ক আইনের বিস্তৃত সংস্কার বিষয়ে একটি প্রস্তাব উত্থাপনের প্রস্তুতি নিয়েছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। আলেজান্দ্রো মায়োরকাস নেতৃত্ব দেবেন হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে। এর অধীনে আছে দুই লাখ ৪০ হাজার সদস্য। তারা সীমান্ত টহল এবং সাইবার নিরাপত্তা, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা এবং ত্রাণ বিষয়ে দায়িত্ব পালন করে। এর মধ্যে রয়েছে ইউএস কোস্ট গার্ড এন্ড সিক্রেট সার্ভিস। তার শুনানিও আজ সকাল ১০টায় হবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী হচ্ছেন ব্লিঙ্কেন
সিনেট ফরেন রিলেশন্স কমিটিতে শুনানি হবে জো বাইডেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে মনোনীত অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেনের। এক সময় এই কমিটিতে তিনি ছিলেন একজন স্টাফ, আর বাইডেন ছিলেন চেয়ারম্যান। তার শুনানি হবে আজ যুক্তরাষ্ট্রের সময় বিকাল ২টায়। তাকে দেখা হয় বাইডেনের অতি ঘনিষ্ঠ এবং দীর্ঘদিনের নীতি বিষয়ক একজন হিসেবে। শুনানিতে তিনি রিপাবলিকানদের নানা প্রশ্নের মুখোমুখি হবে। এই শুনানিতে গুরুত্বপূর্ণ পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক চ্যালেঞ্জ নিয়ে চীনা ইস্যুতে বাইডেনকে নমনীয় বলে অভিযুক্ত করেছেন রিপাবলিকানরা। উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ‘আমেরিকা ফার্স্ট’ নীতি ভঙ্গ করার পরিষ্কার প্রত্যয় ঘোষণা করেছেন জো বাইডেন। এর মধ্যে রয়েছে ইরানের পারমাণবিক চুক্তি। যদি ইরান চুক্তির শর্ত মেনে চলে তাহলে যুক্তরাষ্ট্র এই চুক্তিতে ফেরার পরিকল্পনা করছে। এ ছাড়া আইডেন প্যারিস জলবায়ু চুক্তিতে যুক্তরাষ্ট্রকে ফিরিয়ে আনার প্রত্যয় ঘোষণা করেছেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্রকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায়ও ফিরিয়ে আনার প্রত্যয় ঘোষণা করেছেন।

প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ প্রতিরক্ষামন্ত্রী হচ্ছেন লয়েড অস্টিন
সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওমাবার আমলে ইউএস সেন্ট্রাল কমান্ডের প্রধান ছিলেন অবসরপ্রাপ্ত জেনারেল লয়েড অস্টিন। তাকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছেন বাইডেন। ফলে তিনি হতে যাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ প্রতিরক্ষামন্ত্রী। আজ স্থানীয় সময় বিকাল ৩টায় তিনি সিনেট আর্মড সার্ভিসেস কমিটিতে শুনানির মুখোমুখি হবেন। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ স্থানীয় কোনো সেনা কর্মকর্তা কমপক্ষে সাত বছর না গেলে সাধারণ দায়িত্বে আসতে পারেন না, এ বিষয়ে আইনে শিথিলতা প্রয়োজন হবে প্রতিনিধি পরিষদ থেকে। এ জন্য বৃহস্পতিবার বিকাল ২টায় প্রতিনিধি পরিষদ শুনানিতে বসবে।

প্রতিদ্বন্দ্বী বুটিজেজ হবেন পরিবহনমন্ত্রী!
২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেট দল থেকে মনোনয়ন লড়াইয়ে বাইডেনের প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন ইন্ডিয়ানা রাজ্যের সাউথ বেন্ডের মেয়র পিট বুটিজেজ। তাকে বাইডেন পরিবহনমন্ত্রী হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছেন। এই মন্ত্রণালয় বেসামরিক বিমান চলাচল, মহাসড়ক, যানবান, পাইপলাইন এবং ট্রানজিট ইস্যু দেখাশোনা করে। যুক্তরাষ্ট্রের ট্রানজিট ব্যবস্থাকে সাহায্য করার জন্য বাইডেন এরই মধ্যে ২০০০ কোটি ডলারের একটি প্রস্তাব উত্থাপন করেছেন। করোনা ভাইরাস মহামারির মধ্যে একে অনেক বড় অংকের অর্থ হিসেবে দেখা হচ্ছে। এ ছাড়া তিনি আন্তঃরাজ্য সফরকালে ফেসমাস্ক বাধ্যতামূলক করার পরিকল্পনা করছেন। অবকাঠামো, জলবায়ু এবং কর্মসংস্থান বিষয়ক কর্মসূচিতে বাইডেন প্রায় ২ টিলিয়ন ব্যয়ের প্রস্তাব করেছেন। এসব প্রস্তাব কংগ্রেস থেকে অনুমোদিত হতে হবে। সিনেটের কমার্স, সায়েন্স এন্ড ট্রান্সপোর্টেশন প্যানেলে পিট বুটিজেজের মনোনয়ন নিয়ে শুনানি হবে বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকাল ১০টায়।

ভ্যাটের‌্যান বিষয়ক মন্ত্রী হচ্ছেন ম্যাকডনা
ভ্যাটের‌্যান বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নেতৃত্বে আসছেন হোয়াইট হাউজের সাবেক কর্মী ডেনিস ম্যাকডনা। তিনি ওবামা প্রশাসনের অধীনে বাইডেনের পাশাপাশি কাজ করেছেন। তাকে এ পদে মনোনয়ন দেয়ায় আপত্তি তুলেছেন অনেকে। কারণ, তিনি কখনোই সেনাবাহিনীতে দায়িত্ব পালন করেননি। এই মন্ত্রণালয়ে কমপক্ষে ১০০০ স্বাস্থ্যবিষয়ক ফ্যাসিলিটি সহ বিশাল এক স্বাস্থ্য বিষয়ক এজেন্সিও আছে। ডেনিস ম্যাকডনা’র শুনানি সিনেট ভ্যাটের‌্যানস অ্যাফেয়ার্স কমিটিতে হবে ২৭ শে জানুয়ারি স্থানীয় সময় বিকাল ৩টায়।

আর পড়তে পারেন