বুধবার, ১৪ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বাংলাদেশ দূতাবাস রিয়াদে জাতীয় শোক দিবস পালন

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
আগস্ট ১৭, ২০১৭
news-image

 

সাগর চৌধুরী, সৌদি আরব থেকেঃ

যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগম্ভীর পরিবেশের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ দূতাবাস রিয়াদে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন করা হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে ১৫ আগষ্ট মঙ্গলবার সকালে দূতাবাসে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করেন সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ।

এরপর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান রাষ্ট্রদূত। এসময় দূতাবাসের কর্মকর্তা, কর্মচারী, কমিউনিটি নেতৃবৃন্দসহ প্রবাসী বাংলাদেশীগণ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

জাতীয় শোক দিবস-২০১৭ উপলক্ষ্যে দূতাবাস প্রাঙ্গণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে শোক রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন যথাক্রমে ইকোনমি কাউন্সেলর ড. মোহাম্মদ আবুল হাসান, শ্রম কাউন্সেলর সারোয়ার আলম, সোনালী ব্যাংক প্রতিনিধি আব্দুল ওয়াহাব, প্রথম সচিব (পাসর্পোট) কাজী নুরুল ইসলাম।

উন্মুক্ত আলোচনায় রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ বঙ্গবন্ধুর দীর্ঘ সংগ্রামী জীবন, রাজনৈতিক আদর্শ ও বাংলাদেশ নামক একটি স্বাধিন রাষ্ট্র গঠনে তাঁর অবদানের কথা তুলে ধরেন্ । তিনি মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধুর কর্ম জীবন ও দীর্ঘ সংগ্রামের ইতিহাস নতুন প্রজন্মের কাছে আরো বেশি করে তুলে ধরার আহবান জানান। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসা করে রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ একটি উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হবে।

বঙ্গবন্ধু যে ত্যাগ তিতীক্ষার মাধ্যমে বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রের জন্ম দিয়েছেন, সে দেশের উন্নয়নের জন্য সকলকে দৃঢ়ভাবে কাজ করার আহবান জানান রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ। তিনি প্রবাসীদের দেশের মানুষের যেকোন প্রয়োজনে পাশে দাঁড়ানোর অনুরোধ জানান।

কাউন্সেলর ও কার্যালয় প্রধান ড. ফরিদ উদ্দিন আহমদের এর সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় উপ-মিশন প্রধান ড. এম ডি নজরুল ইসলাম বক্তব্য প্রদান করেন। তিনি বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনীদের দেশে ফিরিয়ে নিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও বিদেশে অবস্হিত বাংলাদেশ দূতাবাস কাজ করছে বলে জানান। এছাড়া প্রবাসী বাংলাদেশীদের বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃবৃন্দ এ সময় বক্তব্য প্রদান করেন ।

আলোচনা অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, তাঁর শহীদ পরিবারবর্গ এবং ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালোরাতে শাহাদাৎ বরণকারী সকলের সকলের সম্মানে এক মিনিট নিরবতা পালন এবং অনুষ্ঠান শেষে তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে ফাতিহা পাঠ, দোয়া মুনাজাত পরিচালনা করেন দূতাবাসের আইন সহকারি আবু তাহের মহিউদ্দীন।

অনুষ্ঠানে কমিউনিটি নেতৃবৃন্দসহ বিপুলসংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশীগণ যোগদান করেন। অনুষ্ঠান শেষে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের ওপর নির্মিত প্রামান্য চিত্র প্রদর্শণ করা হয়। এছাড়াও দূতাবাস প্রাঙ্গণে ̄রিয়াদের দুটি বেসরকারি ক্লিনিকের সহায়তায় প্রবাসীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়।

আর পড়তে পারেন