মঙ্গলবার, ১৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বরুড়ায় স্বামীকে মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারের প্রতিবাদে স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
আগস্ট ৩, ২০১৯
news-image

 

স্টাফ রিপোর্টার: কুমিল্লার বরুড়ায় স্বামীকে মিথ্যে মামলায় গ্রেফতারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেন এক স্ত্রী।

শনিবার (৩ আগস্ট) দৈনিক বৈচিত্র্যময় বাংলাদেশ অনলাইন পত্রিকার বরুড়ার আঞ্চলিক অফিসে এ সংবাদ সম্মেলন করেন ওই স্ত্রী নাছিমা বগেম। সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করে বলেন, আমি ও আমার স্বামী সন্তানদের নিয়ে বরুড়া পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের কামেড্ডা গ্রামে সুখে শান্তিতে ভালো ভাবে বসবাস করছিলাম। গত শুক্রবার (২ আগস্ট) একটি কুচক্রী মহলের চক্রান্তে তার প্রতিবেশী আঃ রহমানকে ভূল বুঝিয়ে তার মানসিক প্রতিবন্ধী মেয়ে সাদিয়া আক্তার (১৪) কে ধর্ষনের চেষ্টা করেছে মর্মে বরুড়া থানায় একটি মিথ্যা ও বানোয়াট মামলা দায়ের করে। প্রকৃত পক্ষে বিগত ৭/৮ মাস পূ্র্বে আমার ছোট ছেলে মইনুল ইসলাম বিদেশ থেকে ছুটিতে দেশে আসেন। ওই দিন ছেলের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি ঘর থেকে ছুরি করে নিয়ে যায় আবদুর রহমানের ছেলে মার্জান ও মেয়ে আয়েশা। এ বিষয়টি নিয়ে মইনুল ইসলাম প্রতিবাদ করায় আবদুর রহমানের পরিবারের সাথে ধন্দের সৃষ্টি হয়। পরে মইনুল তাদেরকে ভবিষ্যতে তার বাড়ী সীমানায় যেতে নিষেধ করে এবং সে বাড়ীর আশে পাশে সীমানা প্রাচীর নির্মান করে।

গত ১৮ জুলাই ২০১৯ তারিখে নাছিমা বেগমের স্বামী আবদুল ওহাব (৬২) ঘরে শুয়ে ছিলেন। এমতাবস্থায় সাদিয়া ঘরে প্রবেশ করে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় তাকে আটক করেন। পরে তার কাছ থেকে মোবাইলটি রেখে দিয়ে বাঁশের কঞ্চি দিয়ে দু’একটা বেত্রাঘাত করে ছেড়ে দেয়া হয়। তখন সে কান্না কাটি করে বাড়ি চলে যায়। এসময় নাছিমা বেগম সহ তার মেয়ে ও দুই পুত্র বধুরাও বাড়িতে অবস্থান করছিলো। উক্ত ঘটনাকে ধামা চাপা দিতে পাল্টা তার স্বামীর বিরুদ্ধে চক্রান্ত মুলক মিথ্যে অভিযোগ এনে সামাজিকভাবে শালিস ডেকে তার স্বামীকে অপরাধী বানানোর অপচেষ্টা চালানো হয়।

পরবর্তিতে আরো একটি শালিস ডেকে তারা নিজেরাই করে ১ লক্ষ টাকা দাবী করে। উক্ত টাকা আমার স্বামী দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় তারা মামলার হুমকি দেয়। ঐ ঘটনার প্রায় ১৭ দিন পর হঠাৎ করে বরুড়া থানা থেকে খবর দিয়ে ওসি সাহেবের সাথে দেখা করতে বলা হয়। গত বৃহস্পতিবার ১ আগস্ট সে দেখা করতে গেলে, পুলিশ তাকে আটক করে মামলা দিয়ে দেয়। শুক্রবার সকালে তাকে কুমিল্লা জেল হাজতে প্রেরন করে।

শনিবার সংবাদ সম্মেলনে নাছিমা বেগম তার স্বামীর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলার তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়। অবিলম্বে সে তার স্বামীর নিশ্বর্ত মুক্তি চায়। এ বিষয়ে তিনি প্রধানমন্ত্রীর কাছে সহযোগীতা কামনা করেন।

এ বিষয়ে বরুড়া থানার সাব-ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র) রাসেদুল ইসলাম বলেন, বাদীর অভিযোগের ভিত্তিতে প্রাথমিকভাবে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে তাকে আটক করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আর পড়তে পারেন