সোমবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

নাঙ্গলকোটে হোটেল কর্মচারীর রহস্যজনক মৃত্যু,আটক-৩

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
সেপ্টেম্বর ১০, ২০২১
news-image

নাঙ্গলকোট প্রতিনিধিঃ
কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে আরিফুর হোসেন (২১) নামক এক হোটেল কর্মচারীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে বৃহষ্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) রাতে উপজেলার বটতলী ইউনিয়নের কাশিপুর গ্রামের আলী আজগর ভূঁইয়ার পরিত্যাক্ত একটি টিনশেড ঘরে। পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

নিহত আরিফ হোসেন লক্ষীপুর জেলার কমলনগর থানার চর কাদিরা ইউপির চর পাগলা গ্রামের ইব্রাহিমের ছোট ছেলে।

থানা পুলিশ আরিফের স্ত্রী আয়েশা আক্তার (১৯), বাড়ির মালিক আলী আজগর ভূঁইয়া (৪২) এবং হোটেল মালিক আবদুল হকের ছেলে লিটনকে (২৪) আটক করেছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে সিএনজি অটো রিক্সা চালক সালাহউদ্দিন পলাতক রয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত তিন বছর থেকে আরিফ উপজেলার জোড্ডা বাজারের আবদুল হকের হোটেলে চাকুরী করে আসছেন। তার সাথে মুন্সীগঞ্জ জেলার সদর উপজেলার পোড়া বাজার ইউপির ঢালীকান্দি গ্রামের আশাদ ঢালীর মেয়ে আয়েশার (১৯) সাথে মোবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্কে গত ১০ দিন আগে বিয়ে হয়। বিয়ের পর সে বটতলী ইউনিয়নের কাশিপুর গ্রামের আলী আজগর ভূঁইয়ার বাড়ীতে একটি টিন সেড ঘর ভাড়া নেয়। ভাড়া বাড়িতে উঠার তিনদিনের মধ্যে বৃহষ্পতিবার রাতে গলায় ওড়না পেচানো অবস্থায় ঘরের ভুতুরের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ পাওয়া যায়। এসময় স্ত্রী আয়েশা আক্তারকে মানসিক ভারসাম্যহীন অবস্থায় ঘরের ভিতর পাওয়া যায়। ধারণা করা হচ্ছে,অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা তাকে হত্যা করে ওড়না পেচিয়ে লাশ ঝুঁলিয়ে রেখেছে।
আরিফের পিতা মোহাম্মদ ইব্রাহিম বলেন, ৫দিন পূর্বে আরিফ বাড়ি থেকে নাঙ্গলকোটে আসেন। শুক্রবার সকালে থানা পুলিশের ফোনের মাধ্যমে আমার ছেলের মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে থানায় এসে ছেলের লাশ দেখতে পাই। তিনি তার ছেলে হত্যার সুষ্ঠ বিচার দাবী করেন।

নাঙ্গলকোট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আ স ম আব্দুন নুর বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছি। ঘটনটি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আর পড়তে পারেন