সোমবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

নাঙ্গলকোটে ধ্বসে পড়া ব্রিজ মাটি দিয়ে ভরাট, দুর্ভোগে ৯ গ্রামের মানুষ

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুলাই ২৬, ২০২১
news-image

 

মেহেদী হাসান ভূঁইয়া আজিম:
কুমিল্লা নাঙ্গলকোট উপজেলার জোড্ডা পশ্চিম ইউপির গোড়াময়দান গ্রামে খালের উপর পাকা সড়কের ব্রিজ ভেঙে যাওয়ায় যান চলাচলে চরম দুর্ভোগ দেখা দিয়েছে। অন্যদিকে স্থানীয়রা মাটি ভরাট করে ঝুঁকিতে চলাচল ব্যবস্থা করায় ঐ খালে পানি প্রবাহে বাধাগ্রস্ত হয়ে এই এলাকার ফসলের জমিগুলোতে ব্যাপক জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। এই অবস্থার এক্ষুনি ব্যবস্থা গ্রহণ না করা হলে যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ জলাবদ্ধতার কারণে ফসলের উপর মারাত্মক প্রভাব পড়তে পারে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, মানিকমুড়া হইতে ঘোড়াময়দান হয়ে ভোলাইন বাজার পর্যন্ত এটি একটি জনবহুল সড়ক। যেখানে প্রায় ৯ টি গ্রামের মানুষের চলাচলের ব্যবস্থাসহ রয়েছে অনেকগুলো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যাতায়াত ব্যবস্থা। এই পথ ধরে অত্র এলাকার জনসাধারণের ভুমি অফিসে যোগাযোগ করার এটিই একমাত্র সড়ক। আর সেই সড়কের ব্রিজ ধ্বসে পড়ার কারণে প্রতিনিয়ত এই পথে যাতায়াতকারীদের চরম ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে বলে এলাকাবাসীর দাবি।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, নিম্নমানের মালামাল ব্যবহার করে ব্রীজ নির্মান ও যথাযথ নিয়ম অনুসরণ না করার কারনে এমনটা হচ্ছে। যার ফলে এলাকার বিভিন্ন সড়কে প্রতিনিয়ত ব্রিজ বা কালভার্ট ভেঙে যাওয়ার ঘটনা ঘটেই চলছে। এবং অসাধু ও স্থানীয় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে এই কাজগুলো দেওয়ার ফলে প্রভাব খাটিয়ে কোনরকমে নির্মাণ কাজ করেই বিল পাস করে নিয়ে যায়। এর পর আর কোনো তদারকি থাকে না। যার ফলে এমন ঘটনা এলাকার বিভিন্ন স্থানে ঘটতে দেখা গেছে বলে অভিযোগ করেছে স্থানীয়রা।

এ বিষয়ে জোড্ডা পশ্চিম ইউপির চেয়ারম্যান মোঃ মাসুদ বলেন, আমি এই ব্রিজের ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানিয়েছি , পাশাপাশি পিআইও এবং উপজেলা প্রকৌশলীকেও দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেছি। এর আগে মানিকমুড়া জিরো পয়েন্টে একটি ব্রিজ ভেঙে গেলে সেই ব্রিজ আমার নিজের অর্থায়নে সংস্কার করেছি।

এ বিষয়ে নাঙ্গলকোট উপজেলা প্রকৌশলী আল মামুন বলেন, এটি (সি এ এফ ডি আর আই আর পি)প্রজেক্ট এর প্রস্তাবনায় অনুমোদিত হয়েছে । কারিগরি কাজ সম্পন্ন করে দ্রুতই ব্রিজ এর কাজ শুরু করা হবে।

 

 

আর পড়তে পারেন