মঙ্গলবার, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

নবীনগরে করোনা উপসর্গ নিয়ে রোগীর মৃত্যু বেড়েই চলছে

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুন ২৯, ২০২০
news-image

মো. দেলোয়ার হোসেন, নবীনগর :
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় দিন দিন করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা যেন বেড়েই চলছে। রবিবার রাতে উপজেলার লাউরফতেহপুর ইউনিয়নের আহম্মদপুর গ্রামের মরহুম লাল মিয়া সরকারের ছেলে মো. আলমগীর হোসেন করোনা ভাইরাস উপসর্গ নিয়ে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

পরে মৃত আলমগীর হোসেন এর লাশ তার গ্রামের বাড়ি উপজেলার আহম্মদপুুরে আনা হলে পরিবারের লোকজন ভয়ে দাফন কাজে এগিয়ে না আসলে, খবর পেয়ে উপজেলা লাশ কমিটির সদস্যরা উপস্থিত হয়ে ওই লাশের দাফন কাজ সম্পন্ন করেছেন বলে জানিয়েছেন দাফন কমিটির প্রধান মাওলানা মেহেদী হাসান। মাওলানা মেহেদী হাছান আরো জানান এই লাশ দাফনের মধ্য দিয়ে উপজেলায় মোট ৯টি লাশের দাফন তারা সম্পন্ন করেছে।

জানা যায়, করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া মো. আলমগীর হোসন চিকিৎসার প্রয়োজনে ঢাকার একটি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে রবিবার রাতে তিনি মৃতুবরণ করেন। মৃত আলমগীর হোসেন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন কিনা? এ বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য ঢাকাতেই তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে বলে জানান নবীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. হাবিবুর রহমান।

আজ সোমবার সকালে মাওলানা মেহেদী হাসানের নেতৃত্বে উপজেলা লাশ দাফন কমিটির অন্যান্য সদস্যরা মৃত মো. আলমগীর হোসেন এর বাড়ি গিয়ে সম্পূর্ণ ইসলামী নিয়ম অনুযায়ী আহাম্মদপুর কবরস্থানে মৃতের দাফন সম্পন্ন করেন। এর আগে লাশ দাফন কমিটির সহকারি টিম প্রধান মুফতি হেদায়েতুল্লাহ এর পরিচালনায় মরহুমের জানাযার নামাজ সম্পন্ন করা হয়।

লাশ দাফন কার্যে সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মনিরুজ্জামান মনির, উপজেলা করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুম, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: হাবিবুর রহমান, নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রনোজিত রায়, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রুহুল আমিন, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আব্দুস সালাম, ইসলামিক ফাউন্ডেশন এর রুহুল আমিন, টিম সহকারী মুফতি হেদায়েত উল্লাহ, মাওলানা নাদিম, মাওলানা সানাউল্লাহ, মাও: শাহ্ নেওয়াজ, মাওলানা আব্দুর রহমান, সাংবাদিক সঞ্জয় শীলসহ আরো অনেকে।

মৃত আলমগীর হোসেন এর দাফন সম্পন্ন শেষে মাওলানা মেহেদী হাসান শুকরিয়া আদায় করে বলেন ,জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আমরা এই মহান কাজটি করে যাচ্ছি, সকলেই আমাদের জন্য দোয়া করবেন, যাতে করে করোনার এই মহামারী সময়ে সুস্থ থেকে এই মহান কাজটি চালিয়ে যেতে পারি।

আর পড়তে পারেন