বৃহস্পতিবার, ২৮শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

নবজাতককে হাঁড়িতে ভাসিয়ে পোলিও টিকা খাওয়াতে নিয়ে এলেন বাবা

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১
news-image

 

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

টানা বৃষ্টিতে ডুবে গেছে বাড়ির আশেপাশের সব রাস্তা। এমতাবস্থায় শিশু সন্তানকে পাতিলে ভাসিয়ে পোলিও টিকা খাওয়াতে নিয়ে আসলেন এক ব্যক্তি। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে। ওই ঘটনার ছবি প্রকাশ করেছে সেখানকার জনপ্রিয় ‘আনন্দবাজার পত্রিকা’।

“জলে ডুবে ক্যানিং, হাঁড়িতে ভাসিয়ে শিশুকে পোলিও টিকা খাওয়াতে নিয়ে এলেন বাবা” শীর্ষক প্রতিবেদনটির ছবিতে দেখা যাচ্ছে- হাঁটু সমান পানিতে দাঁড়িয়ে সদ্য বাবা হওয়া নিজামুদ্দিন। সামনে বড় একটি হাঁড়ি ভাসছে, যার ভেতরে ফুটফুটে এক শিশু। তিনটি ছবির কোলাজে শেষেরটিতে দেখা যাচ্ছে, শিশুটিকে টিকা খাইয়েও দিচ্ছেন একজন টিকাকর্মী।
ওই ব্যক্তি শুধু ছোট শিশুকেই হাঁড়িতে ভাসিয়ে আনেননি, আরেকজনের কাঁধে চাপিয়ে এনেছিলেন আড়াই বছর বয়সের বড় ছেলে শামিমকেও।

তিনি বলছেন, বাচ্চা দু’টোকে পোলিও তো খাওয়াতেই হবে। তাই এভাবেই পৌঁছে গেলাম।

টিকা খাওয়াতে এ ভাবে নবজাতককে হাঁড়িতে ভাসিয়ে আনার দৃশ্য অবাক করেছে সেখানকার টিকাকর্মীদেরও।

সোনালি নামে একজন টিকাকর্মী বলেন, আচমকাই দেখি জলে (পানিতে) ভাসানো একটি হাঁড়ি ধরে ধীরে ধীরে এগিয়ে আসছেন নিজামুদ্দিন। পিছনে অন্য একজনের কাঁধে তার বড় ছেলে। প্রথমে চমকে উঠেছিলাম। পরে বুঝলাম, হাঁড়িতে করে একরত্তিটাকেই (শিশু) নিয়ে আসছে।

হাঁড়িতে করে কেন ভাসিয়ে আনা হলো? জানতে চাইলে নিজামুদ্দিন বলেন, স্ত্রী সাফিয়া খাতুনের পানি ঠেলে আসার ক্ষমতা নেই। আবার তিনি নিজেও ১৫ দিন বয়সের ছেলেকে কোলে নিয়ে জল ঠেলে আসতে ভয় পাচ্ছিলেন। কোনোভাবে যদি পড়ে যায়, তাই টিকাকর্মীদের ডাক শুনেই বাড়িতে থাকা বড় মুখের হাঁড়িতে ছেলেকে কাঁথায় মুড়িয়ে শুইয়ে নিয়ে আসার পরিকল্পনা করেন নিজামুদ্দিন।

আর পড়তে পারেন