মঙ্গলবার, ১২ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

নগরীর বিষ্ণুপুরে ঘুমের ঔষধ খাইয়ে পুত্রবধূকে ধর্ষণ: জামিনে এসে হত্যাচেষ্টা

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
অক্টোবর ৬, ২০২১
news-image

 

স্টাফ রিপোর্টারঃ

কুমিল্লা নগরীর বিষ্ণুপুর এলাকায় ঘুমের ঔষধ খাইয়ে বুদ্ধি প্রতিবন্ধি ছেলের স্ত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত শ্বশুর জামিনে এসে পুত্রবধূকে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে। এ ঘটনায় ভূক্তভোগি নারী কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানায় জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সাধারণ ডায়েরী করেছে।

জানা যায়, নগরীর এক নং ওয়ার্ডের বিষ্ণুপুর এলাকার মৃত হযরত আলীর ছেলে বাচ্চু মিয়া রুমি (৪৫) ২০১৯ সালের জানুয়ারী মাসে তার বুদ্ধি প্রতিবন্ধি ছেলে নূরুল ইসলামের সাথে নগরীর ১৮ নং ওয়ার্ডের হযরতপাড়া এলাকার একটি মেয়ের সাথে বিয়ে দেয়।

নূরুল ইসলাম বুদ্ধি প্রতিবন্ধি হওয়ায় পুত্রবধূর উপর কু-নজর পরে বাচ্চু মিয়ার। বিভিন্ন সময় কু-প্রস্তাব দেয় পুত্রবধূকে। পরে কৌশলে খাবারের সাথে ঘুমের ঔষধ খাইয়ে পুত্রবধূকে অচেতন করে ধর্ষণ করে শ্বশুর বাচ্চু মিয়া। একাধিকবার এ ঘটনা ঘটার পর পুত্রবধূ বিষয়টি বুঝতে পেরে তার শ্বাশুড়িকে জানায়।

শ্বশুরের হাত থেকে বাঁচতে স্বামীকে নিয়ে অন্যত্র হাউজিং এস্টেট এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস শুরু করে সে। গত বছরের ২০ অক্টোবর রাত ১০ টায় বাচ্চু মিয়া ভাড়া বাড়িতে প্রবেশ করে পূনরায় পুত্রবধূকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। ধর্ষিতার চিৎকারে স্থানীয় লোকজন একত্রিত হয়ে বাচ্চু মিয়াকে আটক করে।

এ ঘটনায় ভূক্তভোগী নারী কুমিল্লা আদালতে সরকারি খরচে আইনগত সহায়তা কেন্দ্রের মাধ্যমে আদালতে অভিযোগ দায়ের করে। আদালত বিষয়টি আমলে নিয়ে কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশকে এফ.এ.আর দায়ের করার নির্দেশ প্রদান করেন। পরবর্তীতে পুলিশ আসামী বাচ্চু মিয়াকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

সম্প্রতি সময়ে বাচ্চু মিয়া জামিনে বের হয়ে মামলাটি তুলে নেয়ার জন্য লোক মাধ্যমে হুমকী-ধমকি প্রদান করতে থাকে।
গত শনিবার বিকেলে ভুক্তভোগী নারী হাউজিং এস্টেট এর গোল মার্কেট এলাকায় বাজার করতে গেলে বাচ্চু মিয়া তার উপর হামলা চালায়। এসময় স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় রক্ষা পায় ওই নারী।

এ ঘটনায় সোমবার সন্ধ্যায় ওই নারী কোতয়ালী মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করে।

ভূক্তভোগী ওই নারী জানান, বাচ্চু মিয়া ও তার সহযোগীরা তাকে হত্যার জন্য ঘুরে বেড়াচ্ছে। মামলা তুলে না নিলে তাকে ও তার পরিবারের সদস্যদের হত্যার হুমকি ধমকি দিয়ে আসছে। সে নীরাপত্তাহীনতায় ভূগছে।

বাদী পক্ষের আইনজীবী এডভোকেট তাহমিনা বেগম জানান, ভূক্তভোগি ওই নারী একেবারে অসচ্ছল, তাই সরকারি খরচে আইনগত সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। আসামী জামিনে গিয়ে বাদীকে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে। আমরা আদালতের কাছে আসামীর জামিন বাতিলের আবেদন করবো।

এ বিষয়ে কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনওয়ারুল আজিম জানান, মামলাটি তদন্ত করে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে চার্জসীট (পুলিশ রিপোর্ট) আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। ভূক্তভোগি নারীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে।

আর পড়তে পারেন