সোমবার, ২রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দেবীদ্বারে আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দাদের মাঝে এমপির ঈদ উপহার গরু ও খাদ্য সামগ্রী প্রদান

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুলাই ২০, ২০২১
news-image

স্টাফ রিপোর্টার:
কুমিল্লার দেবীদ্বারে প্রধানমন্ত্রীর উপহার দুইটি আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দাদের মাঝে ঈদ উল আজহার আনন্দ ভাগাভাগি করতে ২ টি কোরবানীর গরু ও খাদ্য সামগ্রী উপহার প্রদান করা হয়েছে।

সোমবার বিকেলে দেবীদ্বার কাচিসাইর ও বারুর আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দাদের হাতে ঈদ উপহার গরু দুটি ও খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন কুমিল্লা- ৪ (দেবীদ্বার) আসনের সংসদ সদস্য রাজী মোহাম্মদ ফখরুল।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাকিব হাসান, সহকারি কমিশনার (ভূমি) মোঃ গিয়াস উদ্দিন, থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আরিফুর রহমান, উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান ও যুবলীগ সভাপতি হাজী আবুল কাশেম ওমানী, ট্রাফিক ইউনিট’র টি আই মোঃ সালেহ আহাম্মেদ, ইউপি চেয়ারম্যার সিরাজুল ইসলাম, সোহরাব হোসেন, আওয়ামীলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন, কেন্দ্রিয় ছাত্র লীগের সাবেক সদস্য ও প্রভাষক সাইফুল ইসলাম শামিম, পৌর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মশিউর রহমান সুমন, কুমিল্লা উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেকলীগে সদস্য মোঃ নুরুল আমিন, সাদ্দাম হোসেন, কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু কাউছার অনিক, পৌর যুবরীগের সহ-সভাপতি তরিকুল ইসলাম কাজি সুমন, দেবীদ্বার এস এ কলেজ ছাত্র লীগ সভাপতি মোঃ বিল্লাল হোসেন, সাধারন সম্পাদক মোঃ কাজী সিহাব, কুমিল্লা উ:জেলা ছাত্রলীগ সহ সম্পাদক মোঃ, আনোয়ার হোসেন বাপ্পু, পৌর ছাত্রলীগসহ সভাপতি নাজমুল হাসান, উপজেলা ছাত্রলীগ এর সদ্যস রাতুল রহমান আশিক সহ আওয়ামীলীগের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

কোরবানির গরু ও ঈদ সামগ্রী পেয়ে খুশি বারুর আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দারা জানান, গত ঈদে আশ্রয়হীন ছিলাম, এ ঈদে মাথা গুজার আশ্রয় পেয়েছি। আমাদের এমপি সাহেব সবার ঘরে ঘরে গরুর গোসত ও ঈদের খাবারও ব্যবস্থা করেছেন। ছেলে-মেয়েদের নিয়ে ভালোভাবে ঈদ কাটাতে পারব।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাকিব হাসান বলেন, আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দারের জন্য কোরবানির দুটি গরু ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়াও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার খাদ্য সামগ্রী জেলা প্রশাসক মহোদয়ের পক্ষে মাননীয় সংসদ সদস্য রাজী মোহাম্মদ ফখরুল বিতরন করেন।

সংসদ সদস্য এমপি রাজী মোহাম্মদ ফখরুল বলেন, সব ঈদেই আমরা সকল নেতা কর্মীরা ঈদের পরের দিন আমার বাড়িতে মেজবানী খায়, এবার আমরা চিন্তা করেছি আমরা মেজবানী না করে গরীব-অসহায় মানুষের সাহায্য করব। তাই আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দারের জন্য ২টি কোরবানীর গরু দিয়েছি এবং প্রতিটি ইউনিয়নের অসহায় দরিদ্রদের ঘরে ঘরে কোরবানির গোশত পৌছে দিতে নেতা-কর্মীদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

এছাড়াও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে পাঠানো আশ্রয়ণ প্রকল্পের ৩৪টি পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করেন তিনি। এই ঈদ খাদ্য সামগ্রীর প্যাকেটে ছিল ৬ কেজি চাল, ১ কেজি পোলার চাল, ১ কেজি মসুর ডাল, ১ প্যাকেট সেমাই, ১ কেজি চিনি, ১ কেজি লবন, ১ লিটার তেল, ১০০ গ্রাম রাঁধুনী হলুদ, ১০০ গ্রাম মরিচ রাঁধুনী ও ২ কেজি পেঁয়াজ ।

আর পড়তে পারেন