শুক্রবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দেবিদ্বারে স্বপ্নের ঘর পেয়ে আনন্দে আত্মহারা গৃহহীন পরিবার

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জানুয়ারি ২৪, ২০২১
news-image

 

মোঃ জামাল উদিন দুলাল:

কুমিল্লা জেলার দেবিদ্বার উপজেলার গৃহহীন-ভূমিহীন ১০৫টি গৃহহীন পরিবার পেয়েছে তাদের ‘স্বপ্নের ঠিকানা’ ঘর উপহার।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় উপজেলার হলরুমে প্রথম দফায় ৩৫টি পরিবারকে ঘরের চাবি, দলিলসহ অন্যান্য কাগজপত্র তুলে দেন স্থানীয় সংসদ সদস্য রাজী মোহাম্মদ ফখরুল।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে সারাদেশে প্রায় ৬৬ হাজার ১৮৯টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমিসহ ঘর বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

জানা গেছে, দেবিদ্বারে আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর আওতায় ৮৫টি ঘরের মধ্যে শনিবারে প্রথম দফায় ৩৫টি ঘর হস্তান্তর করা হয়েছে। অন্যদিকে স্থানীয় সংসদ সদস্য রাজী মোহাম্মদ ফখরুলের নিজস্ব অর্থায়নে ২১টি ঘর বিতরণের প্রক্রিয়া চলছে। যা খুব শীঘ্রই বিতরণ করা হবে বলে জানা গেছে।
এ উপজেলায় ১৭ কোটি ৫৫ লক্ষ ৫হাজার টাকা ব্যয়ে সর্বমোট ১০৫টি ঘর বিতরণের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। প্রতিটি ঘর ২শতাংশ জমির উপর নির্মাণ করা হবে। প্রতিটার ঘর নির্মাণে ব্যয় হবে ১ লক্ষ ৭১ হাজার টাকা। প্রতিটি ঘরে ৯ফুট ৩ইঞ্চি বাই ৯ফুট ৮ইঞ্চি এবং ৯ফুট বাই ৯ফুট ৮ইঞ্চি সাইজের দুটি কক্ষ।

এছাড়াও ৫ ফুট বাই ৬ফুট ৫ ইঞ্চির একটি কিচেনরুম এবং মাঝখানে ইউটিলিটি আছে ৩ ফুট বাই ৩ ফুটের। ৪ ফুট বাই ৩ ফুটের এটাচ একটি বাতরুম এবং ৫ ফুট বাই ১৯ ফুট ৬ ইঞ্চির একটি বারান্দা। পর্যাপ্ত আলো বাতাসসহ থাকছে বিনামূল্যে বিদ্যুতের ব্যবস্থা। একটি ঘরের স্বপ্ন ছিল। আজ
গৃহহীনরা ঘরে পেয়ে আনন্দে আত্মহারা। তারা প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানায়।

বিতরণ অনুষ্ঠানে রাজী মোহাম্মদ ফখরুল বলেন, স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধু এমন একটি বাংলাদেশের স্বপ্নই দেখিয়েছিলেন, যে বাংলাদেশে কোন গৃহহীন থাকবে না। বঙ্গবন্ধুর কন্যা সে স্বপ্ন পূরণ করে দেখিয়ে দিয়েছেন। আমরা একটি স্বনির্ভর বাঙালি জাতি হিসেবে বিশ্বে পরিচিতি পেয়েছি। এভাবে দেশরত্ব শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  রাকিব হাসান বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর একটি স্বপ্ন ছিলো এদেশে কেউ না খেয়ে থাকবে না, আজ বাংলাদেশ খাদ্যে স্বয়ং সম্পন্ন। প্রধানমন্ত্রীর আরেকটি স্বপ্ন এদেশে কেউ গৃহহীন থাকবে না, তাও আজ বাস্তবায়িত। বঙ্গবন্ধু যে বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখেছিলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সেই বাংলাদেশ আমাদের উপহার দিবেন। আমরা প্রথম পর্যায়ে ৩৫টি গৃহহীন পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহার ঘর বিতরণ করেছি। আরও ৫০টি ঘর নির্মাণের কাজ চলমান রয়েছে।

ইউএনও রাকিব হাসানের সভাপতিত্বে ঘর উপহার অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো. আবুল কাশেম ওমানী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একেএম মনিরুজ্জামান মাস্টার, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. গোলাম মাওলা, সমাজসেবা কর্মকর্তা মো. আবু তাহের, অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. জহিরুল আনোয়ার, জেলা পরিষদ সদস্য মোসা. শিরিন সুলতানা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট নাজমা বেগম।

আর পড়তে পারেন