মঙ্গলবার, ১৯শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দেবিদ্বারে মসজিদের জায়গায় দোকান নির্মাণ, বাধাঁ দেওয়ায় মুসল্লীদের উপর হামলা

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২১
news-image

 

স্টাফ রিপোর্টারঃ

কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার বাকসার বাজার জামে মসজিদের জায়গা দখল করে অবৈধভাবে দোকান নির্মাণ করার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় বাসিন্দা আব্দুর রব মিয়ার বিরুদ্ধে ।

জানা যায়, বাকশার বাজার জামে মসজিদের জমি দখল করে দোকান ঘর নির্মাণের চেষ্টা চালাচ্ছেন এলাকার একটি প্রভাবশালী চক্র। এ ঘটনায় এলাকায় মুসল্লিদের মধ্যে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। মসজিদের জমি রক্ষার দাবি জানিয়ে এলাকাবাসী সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে বার বার বিষয়টি অবগত করেও কোনো সুরাহ না পাওয়ায় সৃষ্টি হয়েছে চাপা ক্ষোভের ।

স্থানীয়দের অভিযোগ সূত্রে আরো জানা গেছে, ৯নং গুনাইঘর ইউনিয়নের অন্যতম একটি বাজার বাকসার। স্থানীয় বাসিন্দা মরহুম আব্দুল আশ্রাব আলী দলিল দান করা জমিতে, এলাকাবাসীর প্রচেষ্টায় মসজিদটি নির্মাণ করা হয়।কয়েক যুগ ধরে এলাকার মুসল্লিগণ সেখানে নামাজ আদায় করে আসছেন।

সম্প্রতি মসজিদের অজুর করার ঘাটের পাশে অবৈধভাবে দোকান নির্মাণ করা হচ্ছে। মসজিদ কমিটি ও এলাকাবাসী এ ঘটনার প্রতিবাদ জানালেও আবদুল রব মিয়া তাদের তোয়াক্কা না করে রাতের আধাঁরে দোকান ঘর তৈরির চেষ্টা করে।

শুক্রবার রাতে দোকান নির্মানের সময় স্থানীয় মুসল্লিহ ও দোকান মালিকরা বাধাঁ দিলে,একদল যুবকের নেতৃত্বে মুসল্লিহদের উপর আক্রমন ও দোকানিদের দোকান পাট ভাংচুর করার অভিযোগ উঠেছে ।

মসজিদের জমি দখলের বিষয়ে জমি দাতা আশ্রাব আলীর নাতনি বলেন, জমি দখল করতে উঠে পরে লেগেছে। শুক্রবারে যখন গ্রামের মুসল্লিহরা বাধা দিতে গিয়েছে তখনই মুসল্লিদের উপর হামলা করা হয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দা হেলাল উদ্দিন বলেন, বিগত ৫ থেকে ৭ বছর যাবত মসজিদের জমি দখল করতে একটি চক্র বিভিন্নভাবে চেষ্টা করে যাচ্ছে । বিশেষ করে আব্দুল রব মিয়া তিনি জোরপূর্বকভাবে এই জায়গা দখল করার চেষ্টা করে আসছে। গত শুক্রবার রাতে দোকান নির্মাণের সময় একদল যুবক দোকানী ও মুসল্লিহদের উপর হামলা চালায়। আমরা এই হামলার তীব্র নিন্দা জানাই ।

এদিকে আবদুল রব মিয়া বলেন, কর্তৃপক্ষের নির্দেশে এই দোকান নির্মাণ করছি। আজকে থানায় বসার কথা কিন্তু দোকানী ও মুসল্লিহরা থানায় যায়নি। আমার জায়গায় আমি দোকান ঘর নির্মাণ করছি ।

৯নং গুনাইঘর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খোরশেদ আলম বলেন,মসজিদের জমি দখল বিষয়টি অত্যান্ত নিন্দাজনক একটি কাজ। বাকসার বাজারের দোকানি ও মুসল্লিহরা এখানে নামাজ আদায় করে। সামাজিকভাবে এই সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করেও সমাধান হয়নি। বিশেষ করে দখলকারীরা প্রভাবশালী হওয়ার কারনে মুসল্লিরা কোনঠাসা হয়ে পড়েছে ।

আর পড়তে পারেন