বুধবার, ১৪ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দায়িত্ব ফিরে পাওয়ায় দেবিদ্বারের ভানী ইউপি চেয়ারম্যানকে সংবর্ধনা

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
অক্টোবর ৫, ২০২০
news-image

 

মোঃ জামাল উদিন দুলালঃ

টানা ৪ বছরের অধিক সময় পর আনুষ্ঠানিকভাবে সোমবার কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার ১২নং ভানী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন নুরুজ্জামান ভূইয়া মুকুল।

এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দেবিদ্বার উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আবুল কাশেম (ওমানী)। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ও ভাণী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিগণ।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে অনুষ্ঠিত ভাণী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রথম পর্যায়ে দেবিদ্বার উপজেলার ভানী ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে মোঃ নুরুজ্জামান ভূইয়া মুকুলকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়। কিন্তু বিসিআইসি’র সারের ডিলার হওয়ার কারনে উপজেলা ও জেলা রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক আওয়ামীলীগের প্রার্থী নুরুজ্জামান ভূইয়া মুকুলের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। পরে তিনি প্রার্থীতা ফিরে পেতে রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে রিট মামলা নং ২৫৫৩/২০১৬ দায়ের করেন। ওই রিটের চলতি বছরের ২ মার্চ তারিখের আদেশে রুলের চুড়ান্ত আদেশের মাধ্যমে পিটিশনের ভাগ্য নির্ধারিত হবে এই শর্তে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতা করার অনুমতি প্রদান করেন। এ আদেশ বলে মোঃ নুরুজ্জামান ভূইয়া মুকুল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে চেয়ারম্যান হিসেবে বিজয়ী হন। কিন্তু শপথ গ্রহনের পর রিট মামলার শর্তানুযায়ী রুল এর চুড়ান্ত শুনানি না করে মামলাটি তুলে নেন। রিট মামলার চুড়ান্ত শুনানি না করে মামলাটি তুলে নেওয়ায় উপজেলা ও জেলা রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক রায়টি বৈধ দাবী করে ওই নির্বাচনে নুরুজ্জামান ভূইয়া মুকুলের প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান এম.এ হান্নান, স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয়ের সচিব বরাবর চেয়ারম্যান পদ থেকে নুরুজ্জামান ভূইয়া মুকুলকে অপসারনের জন্য আবেদন করেন। প্রতিদ্বন্ধী ওই প্রার্থীর আবেদনের প্রেক্ষিতে বিষয়টি নিয়ে দীর্ঘ তদন্ত শেষে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয়, স্থানীয় সরকার বিভাগ, ইপ-১ অধিশাখা এর ২২/৩/২০১৭ তারিখে ৪৬.০০.০০০০.০১৭.৯৯.০১০.১৬ (অংশ-১)-২২৮ নং অফিস আদেশে স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন, ২০০৯ এর ৩৪ (৪) (খ) ধারা মোতাবেক মোঃ নুরুজ্জামান ভূইয়া মুকুলকে তার স্বীয় পদ থেকে অপসারন করেন এবং দেবিদ্বার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে পদটি শূন্য ঘোষণা করে গেজেট বিজ্ঞপ্তি জারী করার জন্য বলা হয়।

আর পড়তে পারেন