বুধবার, ২০শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দাউদকান্দির কিশোরীকে অপহরণের ৯ মাস পর নেত্রকোনা থেকে উদ্ধার

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুলাই ৪, ২০২১
news-image

জাকির হোসেন হাজারী:
দাউদকান্দি থেকে অপহরন হওয়া কিশোরীকে ৯ মাস পর নেত্রকোনা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

দাউদকান্দি থানা পুলিশের একটি টিম রবিবার (৩ জুলাই) রাতে নেত্রকোনা জেলার সদর উপজেলার সাতবেড়িকান্দি গ্রামে অভিযান চালিয়ে শিরিন আক্তার(১৬) নামে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে দাউদকান্দি মডেল থানা পুলিশ। গ্রেপ্তার করা হয়েছে মূল অপহরনকারী নবীর হোসেন(২১) নামে একজনকে।

সে নেত্রকোনা জেলার সদর উপজেলার সাতবেড়িকান্দি গ্রামে ওয়াজেদ মিয়ার ছেলে বলে জানিয়েছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দাউদকান্দির গৌরীপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক রাজিব কুমার।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, দাউদকান্দি উপজেলার চর চারপাড়া গ্রামের ইয়াকুব সরদারের ১৬বছর বয়সী মেয়ে শিরিন আক্তার(১৬) । সে সিঙ্গুলা আলীয়া মাদ্রাসায় একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী। গত বছরের সেপ্টেম্বর সকালে নিজ গ্রামের আঞ্চলিক সড়কের রফিক মিয়ার দোকানের সামনে থেকে নবীর হোসেনসহ কয়েকজন শিরিন আক্তারকে টানা-হেচরা করে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় নিজেরা মেয়েকে খোঁজাখুজির এক পর্যায়ে সন্ধান না পেয়ে ১৫ সেপ্টেম্বর কিশোরীর বাবা নবীর হোসেনের নাম উল্লেখ করে দাউদকান্দি মডেল থানায় একটি অপহরন মামলা করেন।

ওই কিশোরীর বাবা ইয়াকুব সরদার জানান, আসামী নবীর হোসেন গলিয়ারচর মাদ্রাসার হোস্টেলে থেকে লেখাপড়া করত। আমার মেয়েও সেখানে পড়তো।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দাউদকান্দির গৌরীপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক রাজিব কুমার বলেন, মামলা করার পর থেকেই আমরা ভিকটিম উদ্ধার এবং অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার তৎপরতা চালাচ্ছিলাম। অবশেষে প্রযুক্তির সহযোগীতায় তাদের অবস্থান শনাক্ত করে রবিবার(৩জুলাই) রাতে নেত্রকোনা সদর উপজেলার সাতবেড়িকান্দি গ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, একই বাড়ি থেকে ভিকটিম কিশোরীকেও উদ্ধার করা হয়েছে। কিশোরী অসুস্থ্য হওয়ায় দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স গৌরীপুরে ভর্তি করা হয়েছে।

আর পড়তে পারেন