মঙ্গলবার, ১৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দাউদকান্দিতে যাত্রী পরিবহনে কঠোর অবস্থানে পুলিশ

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
এপ্রিল ৬, ২০২০
news-image

 

জাকির হোসেন হাজারী:
সারাদেশে যখন করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে সরকার নানা পদক্ষেপ নিচ্ছে তখন গুরুত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছেন পুলিশ সদস্যরাও।

কুমিল্লার দাউদকান্দি হাইওয়ে থানার আওতাধীন ইলিয়টগঞ্জ ফাঁড়ি পুলিশের সদস্যরাও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রোববার সকাল থেকে দেশের প্রধান জাতীয় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দাউদকান্দি অংশে কঠোর অবস্থানে রয়েছে। এ সময় যানচলাচল নিয়ন্ত্রণসহ অপ্রয়োজনে ঘর থেকে বের হওয়া মানুষদেরও ঘরে ফেরাতে মাইকিং করে পুলিশ।

সরেজমিন ঘুরে জানা যায়, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কটিতে এমনিতেই সবসময় যানবাহনের চাপ থাকে। সাম্প্রতিক সময়ে বিশ্বব্যাপী করোনার প্রভাব বাড়ায় সরকার করোনার বিস্তার রোধে নানামুখী পদক্ষেপ নেয়। এরই অংশ হিসেবে যাত্রীবাহী যানচলাচল বন্ধ করে দেয়। তবে পণ্যবাহী যানচলাচল স্বাভাবিক রাখার ঘোষণা দেয়। এদিকে যাত্রীবাহী যানচলাচল বন্ধ হলেও মানুষ নিত্য প্রয়োজনে ঘর থেকে নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছাতে পণ্যবাহী গাড়িতে যাতায়াত করা শুরু করলে সরকার পণ্যবাহী ট্রাক, কাভার্ডভ্যান, লরি, কন্টেইনার বা পিকআপে যাত্রী পরিবহনে নিষেধাজ্ঞা জারি করে। সরকারি দায়িত্ব পালনে সোববার সকাল থেকে দাউদকান্দিও ইলিয়টগঞ্জ, রায়পুর, গৌরীপুর বাজার, গৌরীপুর বাসস্ট্যান্ড, শহিদনগর ও বলদাখালসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে নিয়মিত টহল দেওয়া শুরু করে। এ সময় হাইওয়ে পুলিশ সদস্যরা যাত্রীবাহী যানচলাচল বন্ধসহ পণ্যবাহী যানচলাচল স্বাভাবিক এবং পণ্যবাহী যানবাহনে যাত্রী পরিবহনে কঠোর অবস্থান গ্রহন করে। পুলিশ সদস্যরা মাইকযোগে অপ্রয়োজনে বাড়ি থেকে বের হওয়া লোকজনদের ঘরে অবস্থানের আহ্বান জানায়।

মহাসড়কের ইলিয়টগঞ্জে দায়িত্ব পালন করতে দেখা যায় ইলিয়টগঞ্জ ফাড়ির ইনচার্য মো. গোলাম মোস্তফাকে। তিনি বলেন, সরকারী নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ট্রাক, পিকআপ, মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকার, সিএনজি ও ব্যাক্তিগত যানবাহনে যাত্রীবহন ঠেকাতে বিভিন্ন পয়েন্টে কঠোর অবস্থানে আমাদের সদস্যরা দায়িত্ব পালন করছে। দেশের যে কোন দুর্যোগ মোকাবেলায় অন্যান্য সংস্থার মতো পুলিশ সদস্যরাও নিয়োজিত থাকবো।