বৃহস্পতিবার, ১৪ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দাউদকান্দিতে নিষেধাজ্ঞার পরও চলছে বেসরকারি ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২১
news-image

 

স্টাফ রিপোর্টারঃ

নানা অব্যবস্থাপনার অভিযোগে কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে ২২ সেপ্টেম্বর উপজেলার মলয় বাজারের রেনেসাাঁ মেডিকেল সেন্টার,সানল্যাব ডায়াগনিষ্টিক এন্ড ডায়াবেটিক সেন্টারসহ তিনটি বেসরকারি হাসপাতালের কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয়া হলেও অবাধে চলছে এসব প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম।

এসব ক্লিনিকে বেশিরভাগ সময়েই চিকিৎসক থাকেন না। নেই প্রশিক্ষিত সেবিকা ও প্যাথলজিস্ট। ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলোতে রক্ত, মলমূত্রসহ বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার কাজ করছেন অদক্ষ কর্মীরা। ফলে চিকিৎসাসেবা নিতে এসে গ্রামের সহজ-সরল মানুষ প্রতিনিয়তই প্রতারণার শিকার হচ্ছেন।

বুধবার দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ শহিদুল ইসলাম শোভন সরেজমিন পরিদর্শন করে সরকারী নীতিমালার শর্ত ভঙ্গ করায় তিনটি প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম সাময়িক বন্ধের লিখিত নির্দেশ প্রদান করেন।

কিন্তু বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিনে দেখা যায়, এ নির্দেশ অমান্য করে উপজেলার মলয় বাজারের সানল্যাব ডায়াগনিস্টিক সেন্টার ও রেনেসাঁ মেডিকেল সেন্টার তাদের কার্যক্রম চালাচ্ছেন। সানল্যাব ডায়াগনিস্টিক সেন্টারের পরিচালক সাইফুল ইসলাম ও রেনেসাাঁ মেডিকেল সেন্টারের পরিচালক জিয়া উদ্দিন মজুমদার বলেন, আমাদের কিছু কাগজ পত্র প্রসেসিংয়ে রয়েছে। বুধবার সন্ধ্যায় স্যারের( উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা) সাথে কথা বলেই আমরা খোলা রেখেছি।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকত ডাঃ শহিদুল ইসলাম শোভন বলেন, বুধবার সরেজমিনে পরিদর্শন করে বিভিন্ন ত্রুটি পাওয়া গেছে। তাই বেসরকারী ক্লিনিক ও ল্যবরটরী (নিয়ন্ত্রণ) অধ্যাদেশ-১৯৮২ অনুযায়ী পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত তিনটি প্রতিষ্ঠানের সকল কার্যক্রম বন্ধ রাখার জন্য লিখিত নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এখন কেউ এ নির্দেশ অমান্য করলে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

আর পড়তে পারেন