বৃহস্পতিবার, ১৫ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

তিতাসে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন, হুমকিতে ফসলি জমি

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২১
news-image

 

মোঃ জুয়েল রানা, তিতাসঃ
কুমিল্লার তিতাস উপজেলার ভিটিকান্দি ইউনিয়নের কাশিপুরে অবৈধভাবে জমি থেকে সেলু ইঞ্জিন (ড্রেজার) দিয়ে বালু উত্তোলনের ফলে ফসলি জমি ভেঙ্গে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার ওই গ্রামের পশ্চিম চকে অবৈধভাবে জমি থেকে উক্ত ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার মুক্তার হোসেন দীর্ঘদিন ধরে ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলন করে আসছেন। তার ফলে পাশের ফসলী জমিন ভেঙ্গে গর্তে চলে যাচ্ছে বলে এমন অভিযোগ করেন ওই গ্রামের কৃষক ওহিদ মিয়া, আব্দুল জব্বর ও মহসিন।

অভিযোগ করে তারা বলেন, মুক্তার মেম্বার গেল কয়েক বছর ধরে অবৈধভাবে জমি থেকে বালু উত্তোলন করার ফলে আমাদের ফসলী জমি ভেঙ্গে যাচ্ছে। এতে গ্রামের সবাই একত্রি হয়ে প্রশাসন বরাবর অভিযোগ করলে তখন প্রশাসন তার ড্রেজার বন্ধ করে দেয়। কিন্তু এবছর আবারও ব্রীজের এপ্রোচের মাটি ভরাটের কথা বললে তখন গ্রামের মানুষের চলাচলের সুবিধার্থে বালু উত্তোলনের অনুমতি দেয়। কিন্তু মুক্তার মেম্বার তা না করে অন্যত্র বালু বিক্রি করে আসছে যার ফলে আমাদের ফসলী জমি ভেঙ্গে যাচ্ছে। এমন ক্ষতি থেকে আমাদের রক্ষা পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন ভূক্তভোগিরা।

এবিষয়ে জানতে চাইলে ইউপি সদস্য মোক্তার হোসেন জানান , পুর্বে বালু উত্তোলনের সময় প্রশাসনের কাছে অভিযোগ করলে আমি ড্রেজার চালানো বন্ধ করে দেই। এখন তিতাস উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা প্রকৌশলী অফিসার মরিচা নদীর উপর সংযোগ ব্রিজের এপ্রোচের মাটি না পাওয়ায় আমাকে অনুরোধ করলে আমার নিজ জমি থেকে এপ্রোচের মাটি ভরাট করে দিতে রাজি হই। সেই সুবাদে জনগনের সার্থে আমার জমি থেকে বালু উত্তোলন করে ভরাট করে দিচ্ছি। এতে অন্যর জমি ভাঙ্গার প্রশ্নই উঠে না। কারন আমি নিয়ম অনুয়ায়ী আমার জমির চারপাশে পর্যাপ্ত পরিমান জায়গা রেখে মাটি উত্তোলন করছি। এছাড়াও তিনি আরো বলেন, একটি মহল প্রতিহিংসাপরায়ন হয়ে আমার পিছনে উঠে পরে লেগেছে এবং মিথ্যা বানোয়াট তথ্য প্রচার করছে। আমি তাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। আমি জনগনের সার্থে কাজ করে যাচ্ছি এবং কাজ করে যাবো।

আর পড়তে পারেন