সোমবার, ১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

তারেকের বিরুদ্ধে রেড নোটিশ প্রত্যাহারে পুলিশের অসন্তোষ

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
মার্চ ১৩, ২০১৭
news-image

 

ডেস্ক রিপোর্টঃ

বিদেশে পালিয়ে থাকা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে পুলিশের আন্তর্জাতিক সংস্থা ইন্টারপোলের সাহায্য চেয়েছে পুলিশ। আর বিএনপির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট তারেক রহমানকে দেশে ফেরানোর বিষয়ে ইন্টারপোলের রেড নোটিশ প্রত্যাহার বিষয়েও নিজেদের অসন্তোষের কথা জানিয়েছে বাংলাদেশ পুলিশ।

ঢাকায় পুলিশপ্রধানদের আন্তর্জাতিক সম্মেলনে   সোমবার এক প্রেস কনফারেন্সে সাংবাদিকদের পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের তথ্য বিভিন্ন সময় আমরা ইন্টারপোলকে দিয়েছি। কিছুদিন আগে জেনেছিলাম, খুনি ডালিম চৌধুরী স্পেনে আছে। কিন্তু তাদের অবস্থান সুনির্দিষ্ট করতে পারিনি। আমরা ইন্টারপোলকে অনুরোধ করেছি বঙ্গবন্ধুর খুনিদের তথ্য দিলে তারা যেন সিরিয়াসলি দেখে এবং সংশ্লিষ্ট দেশের সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের চিহ্নিত করে গ্রেপ্তারের ব্যবস্থা করে। ইন্টারপোলের সেক্রেটারি জেনারেল আশ্বাস দিয়েছেন তিনি সিরিয়াসলি দেখবেন।’

ইন্টারপোলের রেড নোটিশ নিয়ে বাংলাদেশের অসন্তোষের বিষয়েও জানানো হয়েছে উল্লেখ করে আইজিপি বলেন, ‘আমাদের দেশের হাইয়েস্ট কোর্ট যাঁদের দণ্ডিত করেন, তাঁদের বিষয়ে রেড নোটিশ দেওয়ার পরে সেটা যদি ইন্টারপোল উঠিয়ে নেয়, সেটা আমরা ভালোভাবে দেখছি না। আমাদের সরকার ভালোভাবে দেখছে না। আমরা আমাদের উদ্বেগ ইন্টারপোলের মহাসচিবকে জানিয়েছি। আমাদের উচ্চ আদালতের ওপর ইন্টারপোল এবং এর সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী স্বাধীন বডি সিসিএফের সম্মান থাকা উচিত। আমাদের উচ্চ আদালত যে রায় দিয়েছেন, তার প্রতি তাদের শ্রদ্ধাবোধ থাকতে হবে। তা না থাকলে তাহলে আমাদের কিছু সীমাবদ্ধতা আছে। তিনি (মহাসচিব) বলেছেন, বিষয়টি তিনি তুলে ধরবেন। কোনো দণ্ডিত আসামি যেন ইন্টারপোলের কোনো ধরনের পক্ষপাতিত্ব না পায়।’

পুলিশের সূত্রগুলো জানায়, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক রহমানের নামে রেড নোটিশ জারির বিষয়েই ইন্টারপোলের প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা হয়েছে। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার আসামি বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে রেড নোটিশ জারির জন্য ২০১৫ সালে ১১ ফেব্রুয়ারি ইন্টারপোলে বার্তা পাঠায় বাংলাদেশ পুলিশ। ওই বছরের ১৩ এপ্রিল নোটিশটি প্রকাশ করে ইন্টারপোল। ২০১৬ সালের ২৮ জানুয়ারি নোটিশটি মুছে ফেলে ইন্টারপোল। এরপর ইন্টারপোলের শাখা সিসিএফের কাছে যৌক্তিকতা (জাস্টিফিকেশন) পাঠানো হয়। এর মধ্যে আরেকটি আদালত তারেক রহমানকে সাত বছরের কারাদণ্ড ও ২০ কোটি টাকা জরিমানা করেন। কিন্তু তারা এখনো রেড নোটিশটি তাদের ওয়েবসাইটে তুলে ধরেনি।

এ ছাড়া বাংলাদেশে ইন্টারপোলের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের একটা কার্যালয় করার বিষয়ে ইন্টারপোলের মহাসচিব অনেক ইতিবাচক বলে জানিয়েছেন আইজিপি। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ যদি সাপোর্ট দেয়, তাহলে তারা (ইন্টারপোল) এখানে একটা কার্যালয় করার কথা ভাববে বলে জানিয়েছে। এখন আমাদের ভাবার বিষয় আমরা তাদের কার্যালয়ের জায়গা, ভবন, আসবাব, যন্ত্রপাতি ইত্যাদি দিতে পারব কি না। এখন আমরা আলাপ করব। সরকারের কাছ থেকে সবুজ সংকেত পেলে এগোব।’

পুলিশের আরেকটি সূত্র জানায়, জঙ্গিবাদ নিরসনে এ অঞ্চলে ইন্টারপোলের সঙ্গে মিলে পৃথক প্ল্যাটফর্ম করা যায় কি না, তার জন্য ইন্টারপোলের মহাসচিবকে প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ।

গতকাল রোববার সকাল থেকে তিন দিনের এ সম্মেলন শুরু হয়েছে প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে। বাংলাদেশ পুলিশ ও পুলিশের আন্তর্জাতিক সংস্থা ইন্টারপোল যৌথভাবে সম্মেলনটির আয়োজন করেছে। এতে ১৪টি দেশের পুলিশের প্রতিনিধিরা ছাড়াও ফেসবুক, ইন্টারপোল গ্লোবাল কমপ্লেক্স ফর ইনোভেশন (আইজিসিআই), যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই), আসিয়ানাপোল, ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ট্রেনিং অ্যাসিস্ট্যান্স প্রোগ্রামসহ (আইসিআইটিএপি) বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অংশ নিচ্ছেন।

আর পড়তে পারেন