রবিবার, ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

চা দোকানদারকে পেটালেন ছাত্রলীগ নেতা

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুন ৬, ২০২১
news-image

ডেস্ক রিপোর্ট:

মৌলভীবাজারের জুড়ীতে ছেলে কলা খেয়ে ফেসবুকে ছবি পোস্ট করার অপরাধে চা দোকানি বাবাকে ধরে নিয়ে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাহাব উদ্দিন সাবেলের বিরুদ্ধে।

এই ঘটনায় বিচার চেয়ে শুক্রবার (৪ জুন) জুড়ী থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী স্বপন মিয়া।

ভুক্তভোগীর স্ত্রী মনোয়ারা বেগম বলেন, প্রবাসী ছেলে নাইম আহমদ কয়েকদিন আগে দুবাইয়ে বসে কলা খাওয়ার একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের আইডিতে পোস্ট করে লিখেন ‘কলা খাচ্ছি, আরাম পাচ্ছি’। এ ছবি দেখে ক্ষিপ্ত হন উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাহাব উদ্দিন সাবেল। ক্ষোভ থেকে বৃহস্পতিবার (৩ জুন) রাতে স্বামী স্বপন মিয়াকে তার চা দোকান থেকে জুড়ী নিউ মার্কেটে তুলে নিয়ে যান ছাত্রলীগ সভাপতি সাবেলের লোকজন। সেখানে ছাত্রলীগ সভাপতি সাবেলসহ তার কর্মীরা চড়-থাপ্পড় মেরে কান ধরে ওঠবস করায়। পরে উপস্থিত সবার সামনে স্বপন মিয়াকে সাবেলের পা ধরে ক্ষমা চাওয়ায়। ছেলের বয়সী ছাত্রলীগ সভাপতির পায়ে ধরে ক্ষমা চেয়ে রক্ষা পান চা দোকানি স্বপন মিয়া। পরে তিনি জুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নেন।

তিনি আরও বলেন, ঘটনার পরদিন শুক্রবার (৪ জুন) রাতে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতার মধ্যস্থতায় থানায় সালিশ বৈঠক বসে। সেখানেও ছাত্রলীগ সভাপতি সাবেলসহ তার কর্মীরা বিচার না মেনে দা নিয়ে উল্টো ধাওয়া করেন।

মনোয়ারা বেগম বলেন, এ ঘটনার পর থেকে আমার স্বামী মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েছেন। বর্তমানে তিনি সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

তিনি বলেন, এক সময় তার (সাবেলের) বাবা কলা বিক্রি করতেন। এই কারণে নাকি আমার ছেলে কলার ছবি ফেসবুকে ছেড়ে তাকে অপমান করেছে।

এ বিষয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাহাব উদ্দিন সাবেল বলেন, আমি প্রতিহিংসার শিকার। আমাকে রাজনৈতিকভাবে হেনস্থার জন্য মিথ্যা ও গুজব ছড়ানো হচ্ছে। অভিযোগটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

জুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সঞ্জয় চক্রবর্তী বলেন, এ ব্যাপারে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সূত্র: জাগোনিউজ।

আর পড়তে পারেন