মঙ্গলবার, ২২শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

চাঁদপুরে বৃদ্ধের উপর হামলার প্রতিবাদে এলাকাবাসীর বিশাল মানববন্ধন

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
মে ৬, ২০১৯
news-image

 

মাসুদ হোসেন, চাঁদপুর:

চাঁদপুর সদর উপজেলার ২নং আশিকাটি ইউনিয়নের রালদিয়া হাজরা বাড়িতে জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে এক বৃদ্ধকে কুপিয়ে গুরুত্বর জখম করার প্রতিবাদে ও হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। সোমবার (৬ মে) সকাল ১০টায় বাবুরহাট মতলব রোডের রালদিয়া এলাকায় এ মানববন্ধন করা হয়। উক্ত মানববন্ধনে এলাকার বিভিন্ন স্তরের শত শত নারী পুরুষের উপস্থিতি দেখা গেছে।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন আশিকাটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোঃ রফিক খান, বাবুরহাট বাজার ম্যানেজিং কমিটির সাধারন সম্পাদক মোঃ হুমায়ুন কবির দুলাল মাল, মুন্সিরহাট কলেজের প্রভাষক মোঃ তাজুল ইসলাম, সমাজ সেবক মোঃ খলিল সর্দার, জহির হাজরা, মতলব পৌর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মোশরফ হাজরা, আশিকাটি ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি মোঃ বিল্লাল হোসেন খান, সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ সিরাজসহ বিভিন্ন ব্যক্তিবর্গ। এসময় আশিকাটি ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ আক্কাছ, মোঃ সিরাজ, সমাজসেবক মোঃ শাহাবুদ্দিন, বারেক খান, মোঃ আবু গাজী, খোকন মিজি, মোঃ লালু পাটওয়ারী, ইব্রাহিম পাটওয়ারী, মোহাম্মদ হোসেন খান, শাহাজান মিজি, মোঃ কবির হোসেন খান, সৈয়দ মোঃ আলমগীর, মোঃ সুজন ও সোহাগসহ এলাকার বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

এসময় বক্তারা বলেন, চাঁদপুর সদর উপজেলার ২নং আশিকাটি ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড রালদিয়া হাজরা বাড়ির মৃত মোঃ রসুল হাজরার পুত্র মোঃ তৈয়ব আলী হাজরার উপর অতর্কিত হামলার আসামী মৃত হাফেজ হাজরার দুই পুত্র লিটন হাজরা ও মজিব হাজরাকে দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দিতে হবে। ৪ শরীকদারের একটি সম্পত্তির সীমানার পিলার নিয়ে মতবিরোধ চলে আসছে। ৪ শরীকদারের মধ্যে তৈয়ব আলী হাজরাও একজন। কিন্তু তিনি বাড়ির মুরব্বী হিসেবে উভয়ের মধ্যে সম্পত্তির ঝামেলা সমাধান করার জন্য তার পুরনো বাড়িতে গেলে কোন কিছু না বলেই তার উপর এই এলোপাতারি হামলা করেন।

জানা যায়, খোশ সম্পত্তির সীমানার পিলার তুলে ফেলার অভিযোগে হাজরা বাড়ির মৃত হাফেজ হাজরার দুই পুত্র লিটন হাজরা ও মজিব হাজরা গত ২৭ এপ্রিল শনিবার দুপুর আড়াইটার সময় মৃত রসুল হাজরার পুত্র মোঃ তৈয়ব আলী হাজরার মোবাইল ফোনে কল দিয়ে তাদের বাড়িতে এনে। এসময় তৈয়ব আলী হাজরা সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ আক্কাছকে নিয়ে ঐ বাড়িতে গিয়ে মজিবের স্ত্রী ফেরদৌসী বেগম ও খোকনের স্ত্রী আছমা বেগমের কাছে পানি চাইলে তারা তাকে পানি দেন। পানি পান করে বাড়ির মসজিদের কাছে মজিব ও লিটনের সাথে তার অন্য ভাই দেয়াল নির্মাণের বিষয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে মজিব হাজরা পেছন থেকে রাম দা দিয়ে এলোপাতারি কুপিয়ে তৈয়ব আলী হাজরাকে মরাত্মক জখম করে ফেলে।

এসময় সাথে থাকা তার মেঝো ছেলে মহিবুল্লাহ হাজরা বাধা দিলে তাকেও কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে। এসময় প্রত্যক্ষদর্শীরা এমন গুরুত্বর অবস্থা দেখে দ্রুত উদ্ধার করে চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। এবং ভুক্তভোগী পরিবার বাদী হয়ে মজিব হাজরা ও লিটন হাজরারসহ পরিবারের কয়েকজনকে আসামী করে চাঁদপুর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

 

আর পড়তে পারেন