বুধবার, ৮ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কুমিল্লা নগরীতে ছোট্ট খাদিজাকে খুঁজে ফিরছেন অন্ধ মা

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
এপ্রিল ২৯, ২০১৮
news-image

 

সেলিম সজীবঃ

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মা রেহেনা বেগমের একমাত্র অবলম্বন ছিল ৬ বছরের মেয়ে খাদিজা। কিন্তু তাকে হারিয়ে গত এক সপ্তাহ যাবৎ আলোহীন চোখেই কুমিল্লা নগরীর অলি-গলিতে খুঁজে ফিরছেন মা। নিজের কাছে মেয়ের কোনো ছবি না থাকায় কাউকে দেখাতেও পারছেন না। শুধু শরীরের বিবরণ বলেই খুঁজে বেড়াচ্ছেন হারিয়ে যাওয়া মেয়েকে।

গত ২২ এপ্রিল থেকে নিখোঁজ খাদিজা বেগম। নগরীতে মাইকিং ও সম্ভাব্য সকল স্থানে খুঁজেও মেয়ের সন্ধান না পেয়ে কোতয়ালি মডেল থানায় সাধারণ ডায়রি করেছেন রেহেনা বেগম। পুলিশ জানায়, দৃষ্টি প্রতিবন্ধী রেহেনা বেগম ও তার মেয়ে খাদিজা কুমিল্লা নগরীর কান্দিরপাড় ও টাউনহলের আশপাশের এলাকায় ভিক্ষা করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। গত ২২ এপ্রিল মা-মেয়ে যথারীতি ভিক্ষা করার সময় সুমি আক্তার (১৮), শারমিন আক্তার (১৬), আরিফ (২০) ও শরীফ (১৭) নামের ৪ ব্যক্তি এসে অন্ধ মায়ের কাছ থেকে তার মেয়েকে নিয়ে যায়। নগরীতে টাকা তুলে আবারও তাকে রাতে ফিরিয়ে দেয়ার কথা ছিল। কিন্তু তাকে আর ফেরত দিয়ে যায়নি ওই ৪ জন। পরদিন অভিযুক্তদের কুমিল্লা টাউন হল এলাকায় পেয়ে মেয়ের কথা জিজ্ঞাস করলে তারা পালিয়ে যায়।

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী রেহেনা বেগম জানান, একমাত্র মেয়েকে নিয়ে তিনি ভিক্ষা করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। কিন্তু চারজন এসে তার মেয়েকে নিয়ে যাওয়ার পর এখনও ফেরত দিয়ে যায়নি। হারিয়ে যাওয়ার সময় তার মেয়ের পরণে ছাপা প্রিন্টের লাল জামা ও সাদা হাফ প্যান্ট ছিল। তার কপালে কাটা দাগ আছে এবং চুল খুব ছোট করে কাটা।

এ বিষয়ে কুমিল্লা কান্দিরপাড় পুলিশ ফাঁড়ির এসআই নূহ নবী জানান, খাদিজাকে উদ্ধারের বিষয়ে পুলিশের অভিযান চলছে। তবে অভিযুক্তরা ভিক্ষা করে ভাসমান জীবন-যাপন করে। তাই তাদের খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

আর পড়তে পারেন