বুধবার, ৪ঠা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কুমিল্লা টাউনহলের দুর্দশা, বিবর্ণ তোরণ, ভেঙ্গে গেছে ব্যারিকেড

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
মার্চ ১৮, ২০২০
news-image

 

মাছুম কামাল:

অযত্নে-অবহেলায় ভেঙে গেছে কুমিল্লার বিভিন্ন উৎসব, ঐতিহ্যের মূল ভেন্যু বীরচন্দ্র নগর মিলনায়তনের (টাউনহল) গেইট সংলগ্ন সম্মুখভাগের বাউন্ডারি দেয়ালের স্টিলের ব্যারিকেড। ভেঙ্গে গেছে টাউনহলের বাউন্ডারির ইটের দেয়ালের কিছু কিছু জায়গাও। অবশিষ্ট দেয়াল ঘেঁষে ও দেয়ালের উপর অস্থায়ী দোকান বসিয়েছে হকাররা।

সরেজমিনে ঘুরে এই চিত্র দেখা গেছে। মূলত পলেস্তরা নেই বলেই দ্রুত নষ্ট হয়ে যাচ্ছে বাউন্ডারি দেয়াল। দীর্ঘদিন ধরে ভেঙ্গে পড়ে আছে ওয়ালের উপরের অংশের লোহার ব্যারিকেডও। সংস্কার করার যেনো কেউ নেই। এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

এ বিষয়ে কথা হয় মনোহরপুর এলাকার বাসিন্দা এরশাদ মিঞার সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘দেখভালের অভাবেই এই দুর্দশা। কুমিল্লার এত গুরুত্বপূর্ণ জায়গাটির এমন ভগ্নদশা দেখে খারাপ লাগে।’

রঙ উঠে বিবর্ণ হয়ে গেছে টাউনহলের প্রধান গেইটের তোরণটিরও। গেইট সংলগ্ন দেয়ালের সাথে বসা হকারের দোকান, এবং গেইটের গায়ে নানা রকমের পোস্টার, দেয়ালিকা লাগানোর ফলেই এমন অবস্থা হয়েছে বলে মনে করছেন সাধারণ জনগণ।

এদিকে, কিছুদিন আগে টাউনহলের পূর্বপাশে মসজিদ সংলগ্ন জায়গাটিতে দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করা নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে সেখানে অস্থায়ী ভিত্তিতে প্লাস্টিকের বস্তা টানিয়ে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সিটি কর্পোরেশন।

তবে, বরাবরের মতই টয়লেট নির্মাণ কিংবা অন্য কোনো কার্যকর ব্যবস্থা না নেয়ায়, সেখানে এখনো সুযোগ পেলেই দাঁড়িয়ে-বসে প্রস্রাব করেন অনেকেউ। তবে টয়লেট নির্মাণের ব্যাপারে সিটি কর্পোরেশন দুষছে ক্লাব কর্তাদের অনীহাকে।

এ সব বিষয়ে জানতে চাইলে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মনিরুল হক সাক্কু মুঠোফোনে জানান, “টাউনহল মেরামতের সরাসরি এখতিয়ার আমার হাতে নেই। এর জন্য আলাদা কমিটি রয়েছে। কমিটির তরফ থেকে নির্দেশনা এলে আমি কাজ করতে পারবো”।

স্থানীয়দের দাবি অনতিবিলবম্বেটে টাউনহল গেইট এবং এর বাহ্যিক কাঠামোর সংস্কারের। তবে, সিটি কর্পোরেশন এবং টাউনহল কর্তৃপক্ষের কর্তারা কবে সমন্বয়ের মাধ্যমে সংস্কার কাজ করেন সেটিই এখন দেখার বিষয়।

আর পড়তে পারেন