মঙ্গলবার, ১৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কুমিল্লা উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি-সম্পাদকের পদ পেতে লবিং

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ডিসেম্বর ৩, ২০১৯
news-image

 

স্টাফ রিপোর্টারঃ

কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন ঘিরে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা বিরাজ করছে। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ গুরুত্বপূর্ণ পদ পেতে অনেকেই লবিং-গ্রুপিং চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে মাঠের আন্দোলন সংগ্রামে কর্মীদের সাথে কাজ করতে গিয়ে মিথ্যা মামলা ও হামলার শিকার হয়েছেন, এমন ত্যাগী নেতাদের নেতৃত্বের দায়িত্ব দিতে দলের শীর্ষ নেতাদের নিকট দাবি জানিয়েছেন দলের তৃণমূল।

আগামী ৯ ডিসেম্বর জেলার চান্দিনা মহিলা কলেজ মাঠে ওই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন প্রধান অতিথি দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম। এতে দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক আইনমন্ত্রী অ্যাড. আবদুল মতিন খসরু এমপি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ এমপি, পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীমসহ কেন্দ্রীয় ও জেলার নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখবেন।

জানা যায়, কুমিল্লা উত্তরের ৭টি উপজেলা ও ৫টি সংসদীয় আসন নিয়ে রাজনৈতিক উত্তর জেলা।

আগামী ২০-২১ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলন সামনে রেখে সারা দেশের মত কুমিল্লা উত্তর জেলা এবং এ জেলার অধীনে সব উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কমিটির কাউন্সিল সম্পন্ন করতে কেন্দ্র থেকে নির্দেশনা আসলেও অধিকাংশ উপজেলা ও ইউয়িনের কমিটি গঠন কিংবা অনুমোদন না হওয়ায় উপজেলার আগেই আগামী ৯ ডিসেম্বর সম্মেলন হতে যাচ্ছে। ওই সম্মেলনে কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের পদকে পাচ্ছেন, কমিটি কি পুরনো বৃত্তেই বন্দী থাকবে, নাকি নতুন ও ত্যাগীরা শীর্ষ পদে নেতৃত্বে আসবেন এ নিয়েও গুঞ্জন চলছে দলীয় ফোরামে।

পদ পেতে সম্ভাব্য প্রার্থীরা জোর লবিং-গ্রুপিং চালিয়ে যাচ্ছেন দলের হাই-কমান্ডের নিকট। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন ৪ জন। এরা হলেন সভাপতি প্রার্থী বর্তমান কমিটিসহ তিনবারের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর আলম সরকার ও সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক ম. রুহুল আমিন।

অপরদিকে, সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় রয়েছেন বর্তমান কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. রোশন আলী মাস্টার এবং বর্তমান কমিটির সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ এম হুমায়ুন মাহমুদ।

দলীয় সূত্র জানায়, সম্মেলনকে সফল করতে এরই মধ্যে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি। এবারের সম্মেলনে দলের ত্যাগী ও নির্যাতিত নেতাদের গুরুত্বপূর্ণ পদে আনার দাবি তৃণমূলের। সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী রোশন আলী মাষ্টার জানান, দলের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব কিছুই অবগত আছেন, তাই আশা করি ভবিষ্যতে দলের জন্য কাজ করে কর্মীদের পাশে থাকতে নেত্রী সুযোগ করে দেবেন।

কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান কমিটির সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট নিজামুল হক বলেন,  বিগত সময়ে দলের জন্য যাদের ত্যাগ রয়েছে, নির্যাতিত হতে হয়েছে, মিথ্যা মামলায় কারাগারে যেতে হয়েছেঅ তাদের খবর নেত্রী ও কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ অবগত আছেন। তাই যোগ্যদের হাতে নেতৃত্ব আসলে দল ও কর্মীরা ভাল থাকবে।

অপরদিকে, দলের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ও সভাপতি প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম সরকার জানান, গত ২৭ বছর যাবৎ দলের জন্য কাজ করছি, কর্মীদের দুঃসময়ে পাশে গিয়ে দাঁড়িয়েছে, তাই আশা করি নেত্রী আমাকে হতাশ করবেন না। সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক  ম. রুহুল আমিন জানান, সময় মতো উপজেলা ও ইউনিয়ন সম্মেলন শেষ করতে না পারায় কেন্দ্রের নির্দেশে জেলার সম্মেলন আগে করা হচ্ছে, দলের জন্য যোগ্য ও ত্যাগীরা দলের গুরুত্বপূর্ণ পদে আসবে বলে আশা করি।

আর পড়তে পারেন