শুক্রবার, ১৫ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কুমিল্লায় ম্যাজিক প্যারাডাইস পার্কে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জানুয়ারি ৩১, ২০২০
news-image

 

স্টাফ রিপোর্টার:

লক্ষ্মীপুর থেকে বনভোজনে কুমিল্লার একটি পার্কে গিয়ে স্থানীয় ইলেভেন কেয়ার একাডেমির ছাত্রী ফৌজিয়া আফরিন সামিয়ার মৃত্যু হয়েছে।

এ খবর ছড়িয়ে পড়লে নিহতের স্বজনসহ স্থানীয়রা ওই শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের আঙিনায় ভিড় করেন। বৃহস্পতিবার রাতে অন্য সহপাঠী ও শিক্ষকরা তার মরদেহ নিয়ে ফিরে আসেন।

এর আগে পার্কে তার মরদেহ পাওয়া যায়। এদিকে মৃত্যুর সুনির্দিষ্ট কারণ এখনো জানা যায়নি। তবে পরিবার বলছে তাকে হত্যা করা হয়েছে।

নিহত আফরিন সামিউন ফৌজিয়া সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ইউপির বাসিন্দা গিয়াস উদ্দিনের মেয়ে ও ইলেভেন কেয়ার একাডেমির দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

নিহতের পিতা গিয়াস উদ্দিন জানান, বৃহস্পতিবার সকালে ইলেভেন কেয়ার একাডেমির উদ্যোগে ৫০ জন ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে কুমিল্লার ম্যাজিক প্যারাডাইস পার্কে পিকনিকে যায়। বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে মেয়ের সঙ্গে মোবাইলে কথা হয়। বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে পিকনিক স্পট থেকে এক শিক্ষক ফোন করে তাকে জানান, পার্কের ভিতরে পুকুরে গোসলের সময় তার মেয়ে ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত হয়। পরে তাকে কুমিল্লার একটি হাসপাতালে নিলে মৃত্যু হয়। মেয়ের সঙ্গে কথা বলার ঘণ্টাখানেক পর মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে তা মানতে রাজি নন বাবা গিয়াস উদ্দিন ও মা কানিস ফাতেমা।

তিনি আরো জানান, মেয়েকে বনভোজনে যেতে দিতে না চাইলেও শিক্ষকরা জোর করে তাকে নিয়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছেন। এ ঘটনার বিচার দাবি করেন বাবা-মা।

নিহতের মা কানিস ফাতেমা বলেন, আমার মেয়েকে ওরা খুন করেছে। সে পুকুরের পানিতে ডুবে মরে নাই। একপর্যায়ে তিনি বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন।

এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অসচেতনতা ও গাফলতিকে দায়ী করেন সচেতন মহল। একই সঙ্গে শিক্ষার নামে গড়ে উঠা এ সব বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান বন্ধের দাবি জানান তারা।

প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক দেলোয়ার হোসেন জানান, পার্কের ভিতরে পুকুরে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে যায় সে। পরে খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

লক্ষ্মীপুর সদর ইউএনও শফিকুর রিদোয়ান আরমান শাকিল জানান, পিকনিকে গিয়ে ছাত্রীর মৃত্যুর বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আর পড়তে পারেন