শনিবার, ১৬ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কুমিল্লায় মানসিক চিকিৎসার নামে শিকল দিয়ে বেঁধে শারিরীক নির্যাতন

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ডিসেম্বর ২১, ২০২০
news-image

স্টাফ রিপোর্টারঃ

কুমিল্লার আদর্শ সদরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলা প্রশাসন ও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের যৌথ উদ্যোগে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।

রবিবার (২০ ডিসেম্বর) আদর্শ সদর উপজেলার দূর্গাপুর ইউনিয়নে অবস্থিত মধ্যপাড়া এলাকার একটি বাড়িতে এই অভিযান পরিচালনা করেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট জনাব মাজহারুল ইসলাম ও কুমিল্লা সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডাঃ সৌমেন রায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার দূর্গাপুর ইউনিয়নে অবস্থিত মধ্যপাড়ার ওই বাড়িতে সরকারি অনুমোদন ছাড়াই মানসিক চিকিৎসার নামে রোগীদের শারীরিক নির্যাতন করা, পূতি গন্ধময় পরিবেশে রোগীদের শিকল বেঁধে রাখা, তীব্র শীতের মধ্যেও রোগীদের পুকুরে নেমে গোসল করতে বাধ্য করানোসহ নানা রোমহর্ষক ঘটনার অভিযোগ পাওয়া যায়।

 

অভিযানের সময় প্রতিটি রোমহর্ষক অভিযোগের সাথে সত্যতা পাওয়া যায়। এ সময় সুস্থ রোগীকেও অসুস্থ হিসেবে আটকে রাখা, মানবাধিকারের চরম লংঘন, অতি নিম্নমানের খাদ্য সরবরাহ, অননুমোদিত ঔষধ রাখা ও অনুমোদন ছাড়াই প্রতিষ্ঠান চালানোর দায়ে বাড়ির মালিককে অভিযুক্ত করা হয়।

এসময় বাড়ির মালিককে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয় ও রোগীদেরকে আগামী ৭ দিনের মধ্যে তাদের স্ব স্ব অভিভাবকগণের কাছে পৌঁছে দেয়াসহ ভবিষ্যতে এ ধরনের কাজ না করার মুচলেকা আদায় করা হয়।

আর পড়তে পারেন