বুধবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কুমিল্লায় এক বছরে প্রায় ৬২ টি আত্নহত্যা

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জানুয়ারি ১৩, ২০১৮
news-image

।।পারিবারিক কোন্দল , আর্থিক সমস্যা, প্রেমে ব্যর্থতা, যৌতুক প্রথা ও পরীক্ষায় অকৃতকার্য, ঋণগ্রস্থ হয়ে আত্নহত্যার পথ বেছে নিচ্ছে বিভিন্ন বয়সের নারী-পুরুষ।।

ইমতিয়াজ আহমেদ জিতুঃ
কুমিল্লা জেলাজুড়ে বিগত বছরে প্রায় ৬২ টি আত্নহত্যার ঘটনা ঘটেছে। পারিবারিক কোন্দল , আর্থিক সমস্যা, প্রেমে ব্যর্থতা, যৌতুক প্রথা ও পরীক্ষায় অকৃতকার্য, ঋণগ্রস্থ হয়ে আত্নহত্যার পথ বেছে নিচ্ছে বিভিন্ন বয়সের নারী-পুরুষ। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে গৃহবধুরাই আত্নহত্যার পথ বেছে নিচ্ছে। ফাঁসি ঝুলে, বিষপান করেই বেশিরভাগ আত্নহত্যার ঘটনা ঘটছে।

১০ ডিসেম্বর দাউদকান্দি উপজেলার জিংলাতলি ইউনিয়নের চান্দের চর গ্রামের সরকার বাড়িতে বাবার সাথে অভিমান করে কেরির বড়ি(এক ধরনের বিষক্রিয়া) খেয়ে জয় মিয়া (২১) আত্মহত্যা করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। নিহত জয় মিয়া উপজেলার জিংলাতলি ইউনিয়নের চান্দের চর গ্রামের সরকার বাড়ির মহসিন মিয়ার ছেলে।
২৮ নভেম্বর বুড়িচং উপজেলায় চার সন্তানের জননী বিলকিস আক্তার (৪৫) ঋণের বোঝা সইতে না পেরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। বুড়িচং উপজেলার বাকশীমূল ইউনিয়ন কালীকৃষ্ণনগর গ্রামের নিহতের শশুর বাড়ি থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে। নিহত বিলকিস আক্তার উপজেলা বাকশীমূল ইউনিয়নের কালীকৃষ্ণনগর মধ্যপাড়া ও সৌদি প্রবাসী মো: জাকির হোসেনের স্ত্রী । তিনি এক ছেলে ও তিন কন্যার জননী ।
২১ নভেম্বর ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার শশীদল ইউনিয়নে এক সন্তানের জনক সিলিং ফ্যানের সাথে ওড়না পেচিয়ে গলায় ফাঁস লাগাইয়া আত্মহত্যা করেছে। মল্লিকাদীঘি গ্রামের আলহাজ্ব শহীদ ইসলামের ছেলে মেছবাউল ইসলাম রবিন (২৪) গত মধ্য রাতে বাড়ির সকলের অজান্তে নিজ বসত ঘরে সিলিং ফ্যানের সাথে ওড়না পেচিয়ে গলায় ফাঁস লাগাইয়া আত্নহত্যা করে।


৬ নভেম্বর বুড়িচং উপজেলায় জিয়াপুর গ্রাম থেকে জহিরুল ইসলাম(২৭) নামের এক মাদকাসক্ত যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। নিহত জহিরুল ইসলাম উপজেলার জিয়াপুর গ্রামের হারুনুর রশিদের ছেলে ।
৫ নভেম্বর মেঘনা উপজেলায় হেলাল( ৪০)নামের এক কাপড় ব্যবসায়ি কীটনাশক ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করেছে। উপজেলার মানিকার চর ইউনিয়নের করিমাবাদ গ্রামে রবিবার এ আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে। জানা যায়, হেলাল মিয়া দুটি বিয়ে করে, প্রথম সংসারে তিন ছেলে মেয়ে রেখে কয়েক মাস আগে সে আরো একটি বিয়ে করে।ফলে প্রথম স্ত্রী তার সন্তান নিয়ে বাপের বাড়ি উপজেলার ব্রাম্মন চর বসবাস করে সে সন্তানাদি নিয়ে খুব কষ্টে জীবন যাপন করছিলো । হেলাল তাকে কোন ভরন পোষন না দেয়ায় সম্প্রতি উপজেলার নারী ও শিশু বিষয়ক কার্যালয়ে গিয়েছিলো পরামর্শের জন্য । সেখান থেকে হেলালের বিরুদ্ধে মামলা করার পরামর্শ দেন, পড়ে প্রথম স্ত্রী আর যোগাযোগ করেনি। অন্য দিকে ২য় স্ত্রীকে নিয়ে সংসার চলাকালীন সময়ে বিভিন্ন সময় ঝগড়া লেগে থাকতো । দু দিন আগে হেলাল প্রথম স্ত্রীর নিকট যায়। সেখান থেকে এসে রবিবার রাতে কীটনাশক ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করে। সোমবার ময়নাতদন্তের জন্য লাশ কুমেক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।
১ নভেম্বর ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার শশীদল ইউনিয়নের দেউস গ্রামে পারিবারিক কহলহের জের ধরে বিষপান করে আত্মহত্যা করে এক সন্তানের জননী রিমা আক্তার (২২) । নিহত রিমা আক্তার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার চান্দলা ইউনিয়নের চরের পাথর গ্রামের মৃত আঃ রহিমের মেয়ে এবং একই উপজেলার শশীদল ইউনিয়নের দেউস গ্রামের ডাক্তার হাজী রৌশন আলীর ছেলে প্রবাস ফেরত আমান উল্লাহ জীবনের স্ত্রী।

১৯ অক্টোবর নাঙ্গলকোট উপজেলার রায়কোট পশ্চিম পাড়া গ্রামে বৃহস্পতিবার বিষপানে মৃত আলী হোসেনের ছেলে ইমাম হোসেন (২৮) এর মৃত্য হয়েছে। ইমান হোসেন একজন অটোরিক্সা ড্রাইভার। তার ২ ছেলে রয়েছে। সে দীর্ঘদিন যাবৎ নেশাগ্রস্ত এবং গতকাল নেশা টাকা না পেয়ে আতœহত্যা করে।
১৮ অক্টোবর নগরীর ২১ নং ওয়ার্ডের ইয়াছিন মার্কেট এলাকায় বাচ্চু মিয়ার বাড়িতে চিরকুট লিখে এক মহিলা গলায় ফাঁস দিয়ে আতœহত্যা করে। নিহত মেয়েটি রংপুর জেলার সিরাজুল হকের মেয়ে । নগরীর ২১ নং ওয়ার্ড মধ্যম আশ্রাফপুর এলাকায় জামাই সেলিমের বাড়ির ভাড়াটিয়া ইপিজেড শ্রমিক শিউলি মৃতুর আগে একটি চিরকুট লিখে যায়।
১৮ অক্টোবর মহানগরীর আশ্রাফপুর এলাকার সড়ক ভবন মসজিদের বিপরীত পার্শ্বের ইদ্রিস মিয়ার বাড়িতে খোকন মিয়া (৫৫) নামের এক তিন সন্তানের জনক গলায় ফাঁস দিয়ে আতœহত্যা করেছে। নিহত খোকন নগরীর সংরাইশ এলাকার বাসিন্দা। সে আশ্রাফপুর এলাকায় ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করছিল। তিনি অটোরিক্সা চালক ছিলেন।
১৭ অক্টোবর গ্রামীন ব্যাংকের কিস্তি ও ঋণের বোঝা সইতে না পেরে কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলায় এক কৃষক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। উপজেলার ছোট ধুশিয়া গ্রামের কনু মিয়ার ছেলে মোঃ ফারুক (৩৮) বাড়ির পাশে পুকুরের পাড়ে কদম গাছের সাথে গামছা পেচিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে।
৩ অক্টোবর হোমনায় পরীক্ষায় ফেল করায় মাহিনুর আক্তার (১৬) নামের এক স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করার খবর পাওয়া গেছে। উপজেলার ভাষানিয়া ইউনিয়নের মনাইরকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মাহিনুর আক্তার এ গ্রামের বিল্লাল হোসেনের মেয়ে।


১৪ সেপ্টেম্বর পরিবারের সাথে অভিমান করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে মুরাদ হোসেন রাজু(২৬) নামের এক যুবক ট্রেনের নিচে মাথা দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। নিহত মুরাদ হোসেন রাজু কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার বাইশগাঁও ইউনিয়নের পেয়ারাতলী গ্রামের মোশারফ হোসেনের একমাত্র ছেলে। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ৪ বছর আগে মুরাদ হোসেন রাজুর সাথে পারিবারিক বিষয় নিয়ে মা-বাবার সাথে মনোমালিন্য হয়। এরপর থেকে ৪ বছর পরিবারের আর কারো সাথে কোন যোগাযোগ রাখেনি রাজু । তার মা শাহানারা বেগম দীর্ঘদিন চেষ্টা করেও তার সাথে কোন প্রকার যোগাযোগ করতে পারেনি। পরিবারের উপর ক্ষুব্ধ অভিমান করে আত্মহত্যার পথ বেঁছে নেয় রাজু। মুরাদ হোসেন রাজু আত্মহত্যার আগে তার ফেইসবুক আইডিতে একটি স্ট্যাটাস লিখেন” ছোট থাকতে ভালো ছিলাম, কোন চিন্তা ছিলনা। আর এখন বড় হয়ে আপনজন বলতে কেউ নেই। ভালো থাকি আর না থাকি কারও কিছু আসে যায় না। আমিও চাইনা আমার জন্য কারও সমস্যা হোক। আমি আর পারছিনা জীবনটাকে টেনে নিতে। ভালো থেকো সবাই, বিদায়”। এই স্ট্যাটাস দেওয়ার কিছুক্ষন পরেই আত্মহত্যা করে রাজু। খবর পেয়ে তেজগাঁও রেলওয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়। এই বিষয়ে তেজগাঁও রেলওয়ে পুলিশ বাদী হয়ে একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করে।
১২ সেপ্টেম্বর বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি ইউনিয়নের বাজেহোরা গ্রামে শিমুল আক্তার (২৯) নামের এক গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। শশুরবাড়ির পরিত্যক্ত রান্নাঘরের সিলিংয়ের সাথে গলায় দড়ির ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে দেবপুর ফাঁড়ি পুলিশ। নিহত শিমুল আক্তার উপজেলার ময়নামতি ইউনিয়নের বাজেহোরা গ্রামের সৌদি আরব প্রবাসী হাবিবুর রহমানের স্ত্রী। সে একই উপজেলার উঃ ভারেল্লা পশ্চিমসিংহ গ্রামের ভুইঞা বাড়ির মৃত. হারুনুর রশিদ ভুইয়ার মেয়ে । শিমুল দুই সন্তানের জননী ছিলেন।
১১ সেপ্টেম্বর মোবাইল সেট কিনে না দেওয়ায় কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলায় বিষপানে বেলায়েত হোসেন (১৯)নামের এক যুবক আতœহত্যা করেছে। নিহত বেলায়েত হোসেন উপজেলার উনাইসার গ্রামের জাকির মুহুরির বাড়ির মাহে আলমের ছেলে।
১০ সেপ্টেম্বর দেবিদ্বার উপজেলায় চার সন্তানের জননী হালিমা আক্তার (৩৫)গলায় ফাঁস ও দাখিল পরীক্ষার্থী ফারজানা আক্তার (১৫)বিষপান করে আতœহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। গভীররাতে ও বিকেলে এ দুটি আতœহত্যার ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, উপজেলার রসূলপুর পূর্ব পাড়া গ্রামের মোঃ মোস্তফার স্ত্রী হালিমা আক্তার ও উপজেলার বড় কামতা ইউনিয়নের আশোরা গ্রামের মোবারক হোসেনের মেয়ে ফারজানা আক্তার। উপজেলার রসূলপুর পূর্ব পাড়া গ্রামে শশুর বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আতœহত্যা করে গৃহবধু হালিমা আক্তার। অপরদিকে মায়ের সাথে অভিমান করে দাখিল পরীক্ষার্থী ফারজানা আক্তার গভীররাতে বিষপান করে। পরে বাড়ির লোকজন তাকে চিকিৎসার জন্য দাউদকান্দি নেওয়ার পথে গৌরীপুরে সে মারা যায়।
৩১ আগষ্ট বরুড়ায় অফিস পাড়ায় পারিবারিক কলহের জের ধরে গলায় ফাসঁ দিয়ে সোমা রানী কর্মকার (৩০) নামের ২ সন্তানের জননী আত্মহত্যা করে। তার স্বামী পরিমল নিজ গ্রাম উপজেলার কাঞ্চঁন পুরে পল্লি চিকিৎসক হিসেবে চেম্বার করে।
২৭ আগষ্ট বুড়িচংয়ের ফরিজপুর এলাকায় নিজের ঘরে গলায় ফাঁস লাগিয়ে অবসরপ্রাপ্ত এক সেনা কর্মকর্তার স্ত্রী আত্মহত্যা করে। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ফাঁড়িতে নিয়ে আসে। উপজেলার ময়নামতি ইউনিয়নের ফরিজপুর দক্ষিন পাড়া নজরুল ইসলাম বাড়ীতে দীর্ঘ ৪ বছর যাবত ভোলা সদরের উত্তর বাপতা গ্রামের সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত লেঃ কর্পোরাল অফিসার আবদুর রব স্ত্রী ও দুই ছেলেকে নিয়ে ভাড়া থাকতো।
২৪ আগষ্ট বুড়িচং উপজেলা সদরের উত্তর পাড়া গ্রামের সেলিনা আক্তার (৩২) নামের এক সন্তানের জননী সকালে সবার অজান্তে বিষ পান করলে বাড়ির লোকজন উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢামেকে প্রেরন করলে রাস্তায় দুপুর আড়াইটায় মারা যায়। নিহত সেলিনা আক্তার বুড়িচং উপজেলা সদরের উত্তর পাড়া আবদুস সালামের মেয়ে। স্থানীয় সূত্র জানায়, ১০ বছর আগে সেলিনা আক্তারের সাথে সিলেটের নাজিম উদ্দিন নামের এক দিনমজুরের সঙ্গে বিয়ে দেয়। বিয়ের পর থেকে দিনমজুর নাজিম উদ্দিন বুড়িচংয়ে দিনমজুরি ও বসবাস করে । তাদের দাম্পত্য জীবনে আবু নাইম(৭) নামের এক পুত্র সন্তান রয়েছে।
১৯ আগষ্ট রাত ৭টায় চৌদ্দগ্রাম উপজেলার আমানগন্ডা শালুকিয়া এলাকায় পরিবারের সাথে অভিমান করে বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন আলমগীর হোসেন (৩২) নামের এক পল্লী চিকিৎসক। নিহত আলমগীর হোসেন উপজেলার আমানগন্ডার শালুকিয়া এলাকায় মৃত. ফটিক মিয়ার ছেলে। তিনি উপজেলার ঘোলপাশা ইউনিয়নের নারায়নপুর এলাকার পল্লী চিকিৎসক।
একই দিন দুপুরে বরুড়া উপজেলার খোশবাস (উঃ) ইউনিয়নের দেওয়াননগর গ্রামে বিষপান করে সুমি আক্তার (২০) নামের এক গৃহবধু আতœহত্যা করেছে। নিহত সুমি আক্তার উপজেলার খোশবাস (উঃ) ইউনিয়নের দেওয়াননগর গ্রামের জাকির হোসেনের স্ত্রী । পারিবারিক কলহের জের ধরে শশুর বাড়ির নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে সুমি আক্তার বিষপান করে।
১৬ আগষ্ট দুপুরে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলা সদরের নোয়াপাড়া গ্রামের সাদিয়াতুর জান্নাত (১৯) নামের এক কলেজ ছাত্রী মার সঙ্গে অভিমান করে গলায় উড়না পেচিয়ে তীরের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করে। সাদিয়াতুল জান্নাত বুড়িচং উপজেলার কালিকাপুর আব্দুল মতিন খসরু ডিগ্রি কলেজের ১ম বর্ষের ছাত্রী ছিল।
১১ আগষ্ট উপজেলার দাউদকান্দি উপজেলায় সামিয়া আক্তার নামের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী সামিরা আক্তার ও রকিবুল্লাহ (৩২) নামের এক যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আতœহত্যা করেছে। ৯ আগষ্ট কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে পিতা-মাতার সাথে অভিমান করে বিষপানে আত্মহত্যা করেছে মীম আক্তার (১৫) নামের এক স্কুল ছাত্রী। নিহত মীম উপজেলার কাশীনগর ইউনিয়নের হিলালনগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকা মোস্তফা কামাল ও নাছরিন সুলতানার মেয়ে এবং কাশিনগর বিএম উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী । ৭ আগষ্ট সকালে ব্রাহ্মনপাড়া উপজেলার সিদলাই ইউনিয়নের বেড়াখলা গ্রামে এক দাদন ব্যাবসায়ীর প্রতিনিয়ত হুমকি ধমকির ভয় ভীতির কারনে অতিষ্ঠ হয়ে ৩ সন্তানের জনক নাছির উদ্দিন (৪৩) বিষপানে আতœহত্যা করে। ৪ আগষ্ট সকালে স্বামীর সাথে অভিমান করে কুমিল্লার নগরীতে গলায় ফাঁস দিয়ে ভিক্টোরিয়া কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী নাজমা আক্তার (২২) আতœহত্যা করেছে। নিহত নাজমা আক্তার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার পৌর এলাকার ফালগুনকরা গ্রামের মো: মোতালেব হোসেনের মেয়ে। ৪ আগস্ট বিকেলে বি পাড়া উপজেলায় বড়ধুশিয়া কলেজের দ্বিতীয় তলা ভবনের ছাদের উপর থেকে শাহীনুর আক্তার (৩৮) নামের গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। কলেজের ছাদের উপর থেকে তার অগ্নিদগ্ধ মরদেহ উদ্ধার করে থানা পুলিশ। নিহত শাহীনুর আক্তার উপজেলার বড়ধুশিয়া এলাকার রফিকুল ইসলামের স্ত্রী। তাদের সংসারে দুই ছেলে ও দুই মেয়ে রয়েছে। ৩ আগষ্ট চান্দিনা উপজেলার মাধাইয়া ইউনিয়নের নাওতলা গ্রামের নিজ বসত ঘরের ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস, দুই পা মাটিতে ভর করে আছে এমন অবস্থায় রাসেল (১৯) নামে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে চান্দিনা থানা পুলিশ। নিহত রাসেল ওই গ্রামের মৃত আলী আহাম্মদ এর ছেলে। ২ আগষ্ট ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার চান্দলা গ্রামে শশুর বাড়িতে ইয়াছমিন আক্তার (২০) নামের এক গৃহবধু গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। নিহত ইয়াছমিন আক্তার উপজেলার দুলালপুর ইউনিয়নের নাল্লা গ্রামের মোঃ আবদুল হকের মেয়ে। একই দিন দেবিদ্বার উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের ভৈষেরকোট ভেলানগর গ্রামের নিজ বাড়ির পাশের জঙ্গলে সীমা আক্তার (১৪) নামের এক কিশোরীর গাছের ডালের সাথে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। নিহত সীমা আক্তার মোহনপুর ইউনিয়নের ভৈষেরকোট ভেলানগর গ্রামের বাসিন্দা। সে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিলেন।
৩০ জুলাই সন্ধায় ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার চান্দলা ইউনিয়নের বলাখাল গ্রামে যৌতুকের নির্যাতন সইতে না পেরে আছমা আক্তার (২২) নামের এক গৃহবধূ গলায় ফাসঁ লাগিয়ে আতœহত্যা করেছে। পুলিশ নিহতের শাশুড়ী হাজেরা বেগমকে রাতেই আটক করা হয়। নিহত আছমা আক্তার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার চান্দলা ইউনিয়নের বলাখাল গ্রামের ফারুক মিয়ার স্ত্রী। একই দিন বরুড়া উপজেলার আড্ডা ইউনিয়নের ভাতেশ্বর গ্রামে সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী ইসরাত জাহান (২২) ফাঁসিতে ঝুলে আতœহত্যা করেছে। নিহত ইসরাত জাহান চাদঁপুর জেলার হাজীগঞ্জের বাসিন্দা। একই দিন গভীর রাতে বুড়িচং উপজেলার খাড়াতাইয়া নতুন বাজারে রঞ্জিতের সেলুনের এক কর্মচারী নরসুন্দর বিকাশ চন্দ্র শীল ওরফে কমল চন্দ্র শীল সেলুনের ফ্যানের সঙ্গে গলায় চাঁদর পেচিয়ে ঝুলে রহস্যজনকভাবে আত্মহত্যা করে। ২৯ জুলাই সন্ধ্যায় মোবাইল কিনে না দেওয়ায় অভিমান করে বাপ্পি চক্রবর্তী (১৯) নামের এক তরুণ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সে মুরাদনগর উপজেলার নবীপুর পূর্ব ইউনিয়নের নগরপাড় গ্রামের রতন চক্রবর্তীর ছেলে। ২৮ জুলাই বখাটেদের উৎপাত সহ্য করতে না পেরে সুইসাইড নোটে সব কিছু উল্লেখ করে লাকসামে কলেজ ছাত্রী স্মৃতি আক্তার (১৭) ফ্যানের সাথে ওড়না দিয়ে ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে। সে উপজেলার কান্দিরপাড় ইউনিয়নের অশ্বতলা গ্রামের বিল্লাল হোসেনের মেয়ে লাকসাম নওয়াব ফয়জুন্নেছা সরকারি কলেজের ২য় বর্ষের ছাত্রী । ২৫ জুলাই এইচএসসি পরীক্ষার ঘোষিত ফলাফলে নিজের ব্যর্থতা সহ্য করতে না পেরে এক বুক কষ্ট নিয়ে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেছেন অরিন্দম বরুয়া সৈকত। থাকতেন কুমিল্লা নগরীর মগবাড়ি চৌমুহনী এলাকায়। ১৮ জুলাই পারিবারিক কলহের জের ধরে চৌদ্দগ্রামে গলায় ওড়না পেছিয়ে শাহানাজ মজুমদার শিলা(২২) নামের এক তরুণী আত্মহত্যা করেছে। সে পৌর এলাকার রামরায় গ্রামের মৃত. এছাক মজুমদারের মেয়ে। ১৫ জুলাই বুড়িচং উপজেলার হালগাঁও গ্রামের শাওন (১৮) বছরের এক যুবক প্রেমে ব্যর্থ হয়ে বিষপানে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। সে বুড়িচং উপজেলার মোকাম ইউনিয়নের হালগাঁও গ্রামের অধিবাসী মো. তাজুল ইসলামের ছেলে মো. মেহেদী হাসান শাওন । একই দিন বুড়িচং উপজেলার খাড়াতাইয়া গাজীপুর গ্রামে পুত্রের নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় রশি বেধে ঝুলে আত্মহত্যা করেছেন মিনুয়ারা বেগম (৫২)। নিহত মিনুয়ারা বেগম উপজেলার ষোলনল ইউনিয়নের খাড়াতাইয়া গাজীপুর গ্রামের ভূইয়া বাড়ির আবদুল হক ভূইয়ার স্ত্রী । ৫ জুলাই ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার মালাপাড়া ইউনিয়নের অলুয়া মধ্যপাড়া গ্রামের নিজ বাড়ির পাশের তেতুল গাছের সাথে মানসিকভাবে অসুস্থ এক দিনমজুর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। ৪ জুলাই ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার বাগড়া গ্রামে ব্যবসায়ে লোকসান ও ঋণগ্রস্ত হয়ে মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত পাঁচ সন্তানের জনক মৎস্য ব্যবসায়ী ইদ্রিস মিয়া প্রকাশ ধনু মিয়া (৫০) এক বাড়ীর পাশে কড়–ই গাছের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।
৬ জুন বিকালে পারিবারিক কলহের জের ধরে আত্মহত্যা করে আনিকা । মৃত্যুর আগে ফেসবুকে স্ট্যাটাস । এর পরে কুমিল্লা ইস্পাহানী পাবলিক স্কুল এণ্ড কলেজের একাদশ শ্রেণির ২য় বর্ষের ছাত্রী আনিকা ইসলামের(১৭) রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। একাধিক সূত্র বলছে, আনিকা ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে প্রেম ঘটিত বিষয় নিয়ে পারিবারিক কলহের জের ধরে আত্মহত্যা করেছে। কিন্তু নিহতের পরিবার বলছে, আনিকা সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৮ জুন) ফেসবুকের মাধ্যমে আনিকার মৃত্যুর বিষয়টি ছড়িয়ে পড়ে। ২৬ জুন বরুড়ার ঝলম ইউনিয়নের ঝলম গ্রামের মৃত. মোকশত আলীর ছেলে মো. আবদুল কুদ্দুস (৪০) পারিবারিক কলহের জের ধরে বিষ পান করে আতœহত্যা করে।
৩১ মে বুড়িচং উপজেলার কাচারিতলা এলাকায় ছোট বোনের সাথে ঝগড়া করায় মায়ের বকুনি খেয়ে অভিমানে গলায় ফাঁস দিয়ে কানিজ ফাতেমা মীম নামে নবম শ্রেণির এক ছাত্রী আতœহত্যা করে। ১৯ মে প্রবাসী স্বামীর ঋণের টাকা শোধের বিষয় নিয়ে দালালের সাথে ঝগড়া করে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার জামতলী গ্রামে বিষপান করে আতœহত্যা করে প্রবাসী মোরশেদ আলমের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম (২৮)। ১৮ মে বুড়িচং উপজেলার রামপুর মিলগেইট এলাকার ভাই-ভাই অটো রাইস মেইলের শ্রমিক মিলন মিয়া (৪০) গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে। ৮ মে এসএসসি পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়ায় ক্ষোভে-অভিমানে আত্মহত্যা করেছে দেবিদ্বার উপজেলার ফতেহাবাদ ইউনিয়নের নয়াকান্দি গ্রামের জান্নাতুল ফেরদৌসী (১৬) নামে এক পরীক্ষার্থী। ৭ মে কুমিল্লা শাসনগাছা রেলস্টেশনের ট্রেনের নিচে ঝাপ দিয়ে বরুড়া উপজেলার ঘোষপা ইউনিয়নের এক কন্যা সন্তানের জননী আতœহত্যা করে। ৪ মে মুরাদনগর উপজেলার সদর ইউনিয়নের ঘোড়াশাল গ্রামে ঢাকা ইডেন কলেজের শিক্ষার্থী জেসমিন আক্তার(২০) কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যা করে। নিহত কলেজ ছাত্রী সৌদি আরব প্রবাসী মো: হারুন আর রশিদের মেয়ে এবং ইডেন কলেজের অর্নাস ইসলামী ইতিহাস বিষয়ের ১ম বর্ষের ছাত্রী।
২৩ এপ্রিল চৌদ্দগ্রাম উপজেলায় বাতিসা ইউনিয়নের উল্লাপাড়া গ্রামের বেলাল হোসেনের মেয়ে ঝুমুর আক্তার (১৫) গলায় ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।
২৯ মার্চ চৌদ্দগ্রাম উপজেলায় বিষপানে নুরুন নবী (২৫) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। নিহত যুবক বরিশাল সদর উপজেলার গনপাড়া গ্রামের জামাল হোসেনের ছেলে। ২০ মার্চ সমিতির সাপ্তাহিক কিস্তির টাকা পরিশোধ নিয়ে স্বামীর সাথে কথা কাটাকাটি করে অভিমান করে নগরীর মুরাদপুর এলাকায় ঘরের সিলিংয়ের সাথে ফাঁসিতে ঝুলে ফয়জুন্নেসা বেগম (৪০) নামের এক গৃহবধু আতœহত্যা করেছে। নিহত ফয়জুন্নেসা বেগম নগরীর মুরাদপুর এলাকার মনির হোসেনের স্ত্রী। তাদের সংসারে দুইজন ছেলে সন্তান রয়েছে।
২৭ ফেব্রুয়ারী চৌদ্দগ্রামে পারিবারিক কলহের জের ধরে কোহিনুর নামের এক গৃহবধু গলায় ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সে উপজেলার ঘোলপাশা ইউনিয়নের ধনুসাড়া গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী।
স্ত্রীর সাথে পারিবারিক বিষয় নিয়ে অভিমান করে ২৭ জানুয়ারী নগরীর কাটাবিল এলাকায় সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আতœহত্যা করে শুভ (২২)। ২৩ জানুয়ারী মুরাদনগর উপজেলার টনকী ইউনিয়নের বড় পুকুরিয়া গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে বাচ্চু মিয়া (৬৫) নামের এক বৃদ্ধের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। পারিবারিকভাবে প্রেমের বিয়ে মেনে না নেওয়ায় ৪ জানুয়ারী কুমিল্লা নগরীর শাকতলা এলাকায় মোবারক হোসেন (২১) ও শারমিন (১৯) ফাঁস দিয়ে আতœহত্যা করে।

সমাজ বিজ্ঞানীর মতে, যৌতুক রোধ, সামাজিক অবক্ষয় রোধ, পারিবারিক সম্প্রীতি বৃদ্ধি, বেকারত্ব দূরীকরণের মাধ্যমে আত্নহত্যার সংখ্যা হ্রাস করা সম্ভব। এজন্য সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধি করা দরকার।

আর পড়তে পারেন