মঙ্গলবার, ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ঐক্য ও অসাম্প্রদায়িকতার ডাক দিয়ে কুমিল্লায় বর্ষবরণ চলছে

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
এপ্রিল ১৪, ২০১৭
news-image

 

ইমতিয়াজ আহমেদ জিতু ঃ

ঐক্য ও অসাম্প্রদায়িকতার ডাক দিয়ে কুমিল্লায় বাঙ্গালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখের মঙ্গল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ শোভাযাত্রায় প্রশাসন, রাজনীতিবিদ, সাংস্কৃতিক, সুশীল সমাজ এবং স্কুল-কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরাও সর্বস্তরের মানুষ অংশগ্রহণ করেন।

শুক্রবার (১৪ এপ্রিল) সকাল ৭ টায় কুমিল্লা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে কুমিল্লা নগরীর কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ উচ্চ মাধ্যমিক শাখায় সুর সংগীতের মাধ্যমে বর্ষবরণ শুরু হয়। এ সময় প্রধাণ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা সদর সাংসদ আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার। এছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মোঃ জাহাংগীর আলম, কুমিল্লা পুলিশ সুপার মোঃ শাহ আবিদ হোসাইন প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক দেশ। বাঙ্গালি জাতির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ তারই প্রমান। সকল ধর্ম-বর্ন নির্বিশেষে সকল স্তরের মানুষ এ প্রাণের উৎসবে নিজেদের শামিল করছে। ঐক্য ও অসাম্প্রদায়িকতার আহ্বান করেই এ প্রাণের উৎসবের দিন ব্যাপি অনুষ্ঠান শুরু হয়।

সকাল ৮ টায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ উচ্চ মাধ্যমিক শাখা হতে মঙ্গল শোভাযাত্রা শুরু হয়। পরে তা কুমিল্লা স্টেশন ক্লাবে গিয়ে শেষ হয়। এ শোভাযাত্রায় অতিথিরা ছাড়াও কুমিল্লা মর্ডাণ স্কুল, ফয়জুন্নেসা স্কুল, জিলা স্কুল, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ, কুমিল্লা সরকারি কলেজসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার হাজার হাজার মানুষ অংশগ্রহণ করে।

মঙ্গল শোভা যাত্রায় সাদা, লাল, হলুদ ও মেরুন রংয়ের বৈশাখী পাঞ্জাবি এবং মাথায় গামছা পেঁচিয়ে যুবক ও কিশোরা এবং সাদা, লাল, নীলের মিশ্রনের বিভিন্ন কালারফুল শাড়ি পড়ে ও মাথার খোপাঁয় বিভিন্ন ফুল পড়ে তরুনীরা এ মঙ্গল শোভা যাত্রায় অংশগ্রহণ করে। ছোট বাচ্চাদের গালে, হাতে শোভা পাচ্ছে শুভ নববর্ষের চিত্রাংকন। সব মিলিয়ে বর্ণময় উৎসবমুখর পরিবেশে এ মঙ্গল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়।

সকাল ৯ টায় কুমিল্লা স্টেশন ক্লাবে জেলা শিল্পকলা একাডেমি এবং জেলা শিশু একাডেমির আয়োজনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এদিকে কুমিল্লা নগরীর ধর্মসাগর পাড়ের জামতলায় দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান চলছে।

এদিকে নগরীজুড়ে দম্পতি, প্রেমিক জুটিদের রিকসায়-মোটরসাইকেলে করে ঘুরতে দেখা যাচ্ছে। নগরীর ধর্মসাগর পাড়া, সিটি পার্ক, চিড়িয়াখানায় প্রেমিক জুটি, তরুণ-তরুনী এবং সপরিবারে মানুষ ভিড় জমাচ্ছেন। সব মিলিয়ে প্রাণের উৎসবকে প্রাণ ভরে উপভোগ করছেন বিভিন্ন শ্রেণির পেশার মানুষ। ঢাকা, চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন এলাকার কুমিল্লার মানুষ নাড়ির টানে ছুটে এসেছে কুমিল্লায়। লক্ষ্য একটায় সপরিবারে পহেলা বৈশাখের দিনটি উদযাপন।

কুমিল্লা পার্কে ঘুরতে আসা সোহেল ও শিবলী জানান, আমরা ঢাকায় চাকরি করি। পহেলা বৈশাখের ছুটি পেয়ে ফিরে এসেছি কুমিল্লায় । সপরিবারে সকাল থেকে বাইরে ঘুরছি। সব ধর্ম-বর্ণের মানুষ এক সাথে ঘুরছি। সবখানে যেন প্রাণের ছোঁয়া। এটাই তো চাই অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ। যেখানে থাকবে না কোন জঙ্গিবাদ, রাজনৈতিক নোংরামি,খুন-রাহাজানি। সোহেল-শিবলীর মত কুমিল্লার বাইরে থাকা অনেকেই ফিরে এসেছে কুমিল্লায় পহেলা বৈশাখকে পূর্ণতা দান করতে। এবার অন্যান্যবারের চেয়ে কুমিল্লায় বাইরের মানুষের উপস্থিতি বেশি, যারা জীবিকার টানে কুমিল্লার বাইরে গিয়ে চাকুরি করছেন। এবার উপস্থিতির কারণটা ভিন্ন।

আশিক নামের এক ব্যবসায়ী বলেন, আমরা সপরিবারে ঢাকায় থাকি। কিন্তু ঢাকায় এ পহেলা বৈশাখ পালনটা ঝুঁকিপূর্ণ মনে হয়। জঙ্গি-বোমা হামলা এসব ভয় সব সময় তারিয়ে বেড়ায়। তাই নিজ শহর কুমিল্লায় ফিরে এসেছে। এখানে সব কিছু নিরাপদ মনে হয়। আমরা শান্তিপূর্ণ বাংলাদেশ চাই।

মানুষের নিরাপত্তায় বিভিন্ন সড়ক, পর্যটন স্থানগুলোতে আইনশৃংখলা বাহিনীর সরব উপস্থিতি রয়েছে।

আর পড়তে পারেন