মঙ্গলবার, ৩রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

এবার এ টি এম শামসুজ্জামানকে দেশের বাহিরে নেওয়ার সিদ্ধান্ত প্রধানমন্ত্রীর

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
মে ৮, ২০১৯
news-image

 

ডেস্ক রিপোর্ট :

বরেণ্য অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান গত কয়েকদিন ধরে অসুস্থ হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজধানীর আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি আছেন। সেখানে তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে। বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে।

এটিএম শামসুজ্জামানের ফুসফুসে সংক্রমণ আছে। তবে শ্বাস-প্রস্বাসের পাশাপাশি অ্যাজমার সমস্যাটা নিয়ন্ত্রণে আছে। তার শ্বাস ৭০ ভাগ কাজ করছে। বাকি ৩০ ভাগের জন্য তাকে এখনও লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে। তবে তার অবস্থা আগের চেয়ে স্থিতিশীল। বিষয়টি জানিয়েছেন তাঁর চিকিৎসা তত্ত্বাবধান সমন্বয়কারী অধ্যাপক রাকিব উদ্দিন।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, এটিএম শামসুজ্জামানের চিকিৎসা এখানে যেভাবে চলছে তা অনেকটা প্রসংশা পাওয়ার মতো। আমাদের দেশে যে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে তা দেশের বাহিরে নিয়ে গেলেও একই হবে। তাই এখানকার চিকিৎসকরা দেশের বাইরে নিয়ে যাওয়ার পক্ষে মত দিচ্ছেন না।

এ বিষয়ে এটিএম শামসুজ্জামানের ছোট ভাই সালেহ জামান সেলিম জানান, ‘বর্তমানে আমার ভাই অনেকটা ভালো আছেন। তাকে দেশের বাইরে নিয়ে যাওয়ার পুরো বিষয় প্রধানমন্ত্রীর হাতে। তিনি দেশে ফিরলে আমি এটিএম ভাইয়ের বর্তমান অবস্থা জানাবো তারপরই তার চিকিৎসার বিষয় নিয়ে যে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন তা করা হবে।

মূলত্যাগজনিত সমস্যার কারণে শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) রাত ১১টার দিকে এটিএম শামসুজ্জামানকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরদিন সকালে তার অবস্থা অবনতির দিকে গেলে জরুরি ভিত্তিতে অস্ত্রোপচার করা হয়। যদিও সফলভাবে অস্ত্রোপচার হয়, তারপরও বয়সের কারণে তাঁর শারীরিক কিছু সমস্যার সৃষ্টি হয়। ফুসফুসে সংক্রমণ দেখা দেওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়।

অস্ত্রোপচারের পর ৭২ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণ শেষে তার অবস্থার অবনতি ঘটে। পরে মঙ্গলবার ৩০ এপ্রিল তাকে লাইফ সাপোর্ট দেয়া হয়। গত শুক্রবার (৩ মে) এটি এম শামসুজ্জামানের লাইফ সাপোর্ট খুলে দেওয়া হয়। এরপর শ্বাস নিতে সমস্যা দেখা দিলে সোমবার (৬ মে) আবারো তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়।

গুণী এ অভিনেতা ১৯৪১ সালের ১০ সেপ্টেম্বর নোয়াখালীর দৌলতপুরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা, পরিচালক, কাহিনীকার, চিত্রনাট্যকার, সংলাপকার ও গল্পকার।

অভিনয়ের জন্য পাঁচ বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। শিল্পকলায় অবদানের জন্য ২০১৫ সালে রাষ্ট্রীয় সর্বোচ্চ সম্মাননা একুশে পদক পেয়েছেন তিনি।

আর পড়তে পারেন