মঙ্গলবার, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ঈদের কেনাকাটায় কুমিল্লা কাপড়ের দোকানে ক্রেতাদের ভিড়

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুন ২৩, ২০১৭
news-image

 

সেলিম সজীব

পবিত্র ঈদুল ফেতরকে সামনে রেখে কুমিল্লা মহানগরীর মাকের্টগুলোতে ক্রেতাদের ব্যাপক ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। মাহে রমজানের প্রথম ১০ দিন ছিট কাপড় ও কাপড়ের মার্কেটগুলোতে ভিড় দেখা না গেলেও গত কয়েক দিন ধরে মার্কেটগুলোতে ক্রেতাদের ব্যাপক ভিড় দেখা যাচ্ছে। ক্রেতাদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে কুমিল্লা মহানগরীর প্রাণকেন্দ্র কান্দিরপাড়। শপিং কমপ্লেক্স মধ্যে রয়েছে সাত্তার খান, খন্দকার, বাহার, খাদি, জুতার দোকান। সকাল ১০ টা থেকে শুরু করে প্রায় রাত ১০ টা পর্যন্ত প্রচুর লোকের সমাগম হচ্ছে মার্কেটগুলোতে। ক্রেতারা নিচের পছন্দ অনুযায়ী শাড়ি, থ্রি-পিচ ও ছিট কাপড়সহ অন্যান্য কাপড় কিনছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, অন্যান্য বছরের মত এবার রমজানের শুরুতে কাপড়ের দোকানগুলোতে ক্রেতার তেমন দেখা মেলেনি। প্রায় ১০ রোজা পর্যন্ত মার্কেটগুলো ক্রেতাশূণ্যই ছিল। কিন্তু গত কয়েক দিন ধরে কুমিল্লা মার্কেটগুলোতে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় দেখা যাচ্ছে। ক্রেতাদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে কাপড়ের মার্কেটগুলো। তবে অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার কাপড়ের দাম একটু বেশি বলেই অভিযোগ করছেন ক্রেতারা। সাত্তার খান এ কাপড় কিনতে আসা এক ক্রেতা বলেন, গত বছর যে কাপড় এক হাজার টাকায় কেনা হয়েছে সেই একই কাপড়ের দাম এবার অনেক বেশি। কোন কোন কাপড়ের ক্ষেত্রে আবার দ্বি-গুণ দাম ধরা হচ্ছে। কাপড় কিনতে আসা এক নারীর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, বছর ঘুরে আসা পবিত্র ঈদুল ফেতর। ঈদের আনন্দ সবার মাঝে ভাগাভাগি করে নিতে নতুন কাপড় কিনছি। পরিবারের সবার জন্য কেনকাটা করছি। যাতে সবার সাথে ঈদ ভাল কাটাতে পারি। আরেক তরুণী বলে, ঈদে নতুন পোশাক না হলে বেমানান লাগে। তাই ঈদের আনন্দ বাড়িয়ে দিতে নতুন পোশাক কেনা। কান্দিরপাড় সবগুলো মার্কেট ঘুরে দেখা গেছে প্রায় প্রত্যেক দোকানেই ক্রেতাদের ভিড় রয়েছে। ইফতারের পরে আরো বেশি ভিড় হচ্ছে বলে ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, কান্দিপাড় খন্দকার শপিং কমপ্লেক্স এক ব্যবসায়ীর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, গত বছরের থেকে এবার দাম বেড়েছে তাই বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে। রোজার শুরুর দিকে তেমন বেচাকেনা তেমন হয়নি। তবে গত কয়েক দিন থেকে ভাল বেচাকেনা হচ্ছে।

আর পড়তে পারেন