রবিবার, ১৮ই আগস্ট, ২০১৯ ইং

কুয়েতে নিজ কক্ষে মারা গেলেন কুমিল্লার বরুড়ার মামুন

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
আগস্ট ১০, ২০১৯
news-image

স্টাফ রিপোর্টারঃ

শোক যেন আর পিছু ছাড়তে চায় না। একই দিনে কুমিল্লা বরুড়ার আরো এক প্রবাসীর মৃত্যু। জেলার বরুড়া মধ্যে লক্ষীপুর গ্রামের কাজী বাড়ির কাজী অলী উল্লাহ’র ছেলে কুয়েত প্রবাসী মোঃ মামুন কাজী (৪২) শুক্রবার বিকেল (দেশের সময়) ৪টায় ইন্তেকাল করেছেন।  (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন।)

পরিবারের ঘানি টেনে ৪২টি বছর পেরিয়ে গেছে প্রবাসী মামুনের তবুও বিয়েই করা হয়নি আজো। আরো কোন দিনই হবেও না। পরিবার আর ছোট ৪ বোন, ভাই ও স্বজনদের সুখের কথা ভেবে, প্রবাসেই কাটিয়ে দিয়েছেন নিজের সোনালী যৌবনের ১৮টি বছর। নিজের সুখ বিসর্জ্জন দিয়ে কুয়েতের তপ্ত রোদে পুড়িয়েছেন নিজের সব স্বাদ আহ্লাদ। তিন ভাই ও ছোট ৪বোনের মাঝে পরিবারের দ্বিতীয় সন্তান মামুন। একে একে ছোট ৪ বোনের বিয়ে দিয়েছেন জমি কিনেছেন, বাড়ি ঘর করেছেন এর মাঝেই কেটে গেছে ১৮টি বসন্ত। এবার নিজের সংসার গোছাবার পালা।

গত ৩ বছর আগেও দেশে এসেছিলো বিয়ে করবে বলে। কিন্তু পারিবারিক নানা ঝামেলায় সেবারেও আর করা হয় নি বিয়ে । ছুটে শেষে আবারো পাড়ি দিলেন বিদেশে। কথা ছিলো এবারই ঈদের পর দেশে এসে ধুমধাম করে বিয়ে করবে মামুন। বিয়ের গয়না শাড়ী সহ সব কেনাকাটাও শেষ করে রেখেছিলো আগেই, আর কত বয়স তো মেলা হলো।

কেবল বিলিয়ে যাওয়া প্রবাসীর সুখ যে আর কপালে নাই কে জানতো? প্রবাসী মামুনের জেঠাত ভাই আহমেদ ফয়সাল জানায়, শুক্রবার দুপুরে রুমে খাবার খেতে বসে হঠাৎই প্রচন্ড বুকের ব্যাথা ওঠে। রুমমেট ও সহকর্মীরা দ্রুত হাসপাতালে নেয়ার পর ডাক্তার জানায় মামুন আর বেঁচে নেই। দেশে খবর এলে কান্নার রোল পড়ে মামুনের বাড়িতে। সহকর্মীরা জানায় লাশ দেশে পাঠানোর ব্যাবস্থা করা হচ্ছে। বর্তমানে মামুনের লাশ কুয়েতের একটি হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। নিয়ম অনুযায়ী শীঘ্রই লাশ দেশে পাঠানো হবে।

আর পড়তে পারেন