রবিবার, ১৮ই আগস্ট, ২০১৯ ইং

নাঙ্গলকোটে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃ ত্যু, নিহতের পরিবারের দাবি হ ত্যা

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুলাই ২৮, ২০১৯
news-image

 

মোঃ কামাল হোসেন জনি ঃ
কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে সুমি আক্তার (২২) নামের এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।

উপজেলার শ্রীফলিয়া মুন্সি বাড়িতে শনিবার (২৭ জুলাই) রাতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সুমি আক্তার ওই গ্রামের সোহেল হোসেন সোহাগের স্ত্রী এবং উপজেলার মেরকট গ্রামের খোরশেদ আলমের মেয়ে।

রোববার (২৮ জুলাই) বেলা সকাল সাড়ে ১১টায় থানা পুলিশ তার মর দেহ উদ্ধার ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠান। এ ঘটনার পর সুমির শশুর বাড়ির লোকজন পলাতক রয়েছে।

নিহতের পিতা খোরশেদ আলম বলেন, প্রায় ২ বছর পূর্বে পারিবারিকভাবে শ্রীফলিয়া গ্রামের মাঈন উদ্দিনের ছেলে সোহাগের সাথে সুমির বিয়ে হয়। বিয়ের পর আমার কাছ থেকে দেড় লক্ষ টাকা যৌতুক নিয়ে দুবাই যায় সোহাগ। এরপর থেকে সে আরো যৌতুক আনার জন্য চাপ দিত এবং এনিয়ে আমার মেয়েকে ফোনে গালমন্দ করতো। তাছাড়া সোহাগের মা আমার মেয়েকে মারধর করতো। তারা আমার মেয়েকে নির্যাতন করে মেরে ফেলেছে। আমি এর সঠিক তদন্ত ও বিচার চাই।

এ বিষয়ে ওই গ্রামের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল হামিদ বলেন, দুই পরিবারে যৌতুক নিয়ে যে বিরোধ ছিল আমরা উভয় পক্ষের লোকজন নিয়ে বসে বিষয়টি সমাধান করে দিয়েছি। এখন কিভাবে সুমি মারা গেল আমরা জানিনা। একই কথা বলেছেন ওই গ্রামের বর্তমান ইউপি সদস্য নুরুল ইসলাম।

জানতে চাইলে নাঙ্গলকোট থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, আমরা খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে এনেছি। ময়নাতদন্তের পর তার মৃত্যুর সঠিক কারন জানা যাবে। তবে তার শরীরে কোন আঘাতে চিহৃ পাওয়া যায়নি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আর পড়তে পারেন