মঙ্গলবার, ২০শে আগস্ট, ২০১৯ ইং

পরিবার পরিকল্পনায় দেশের শ্রেষ্ঠ উপজেলা কুমিল্লা আদর্শ সদর

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুলাই ১১, ২০১৯
news-image

স্টাফ রিপোর্টার :

পরিবার পরিকল্পনায় কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা দেশের শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাচিত হয়েছে। পরিবার পরিকল্পনা,মা ও শিশু স্বাস্থ্য কার্যক্রম বাস্তবায়নে প্রশংসনীয় অবদানের জন্য কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলাকে জাতীয় ভাবে শ্রেষ্ঠ উপজেলা হিসাবে স্বীকৃতি ও সম্মাননা প্রদান করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) ঢাকায় বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস ২০১৯ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এড. মো.আমিনুল ইসলামের হাতে ‘জাতীয় ভাবে শ্রেষ্ঠ উপজেলা’ সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) রাজধানীর খামারবাড়ির কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট অডিটরিয়ামে ‘বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক,বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক স্বাস্থ্য মন্ত্রী ডা. আ ফ ম রুহুল হক।

বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস ২০১৯ উপলক্ষে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রনালয়ের পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর কর্তৃক পরিবার পরিকল্পনায় বিশেষ অবদানের জন্য ১০ টি ক্যাটাগরিতে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

কুমিল্লা সদর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা,মা ও শিশু স্বাস্থ্য বিশেষ অবদান রাখায় শ্রেষ্ঠ উপজেলার সম্মাননা প্রদান করা হয়। এসময় মন্ত্রীর হাত থেকে কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এড. মো.আমিনুল ইসলাম টুটুল ও কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা চৌধুরী মোরশেদুল আলম কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলার সম্মাননা ক্রেস্ট গ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের শ্রেষ্ঠ কর্মীদের পুরস্কৃত করা হয়। স্বাস্থ্যমন্ত্রী কর্মীদের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন।

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, আমাদের দেশের জনসংখ্যা সম্পদে রূপান্তরিত করতে হবে। দেখা গেছে দেশের ১৫ শতাংশ লোক অপুষ্টির শিকার হচ্ছে। এজন্য তাদের সেবা নিতে স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোতে যেতে হবে। আমাদের কর্মীদের কেন্দ্রগুলোতে উপস্থিতিও বাড়াতে হবে। কেন্দ্রগুলোও পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন আরও বাড়াতে হবে। তা না হলে সেখানে মানুষ যেতে আকৃষ্ট হবে না।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, দেশে এখনো ৫০ শতাংশেরও কম মায়ের অপ্রাতিষ্ঠানিক ডেলিভারি হচ্ছে। এই হারকে আমাদের অবশ্যই বাড়াতে হবে। তা না হলে মাতৃমৃত্যুর হার শূন্যের কোঠায় আনা সম্ভব হবে না। তবে আমাদের জনসংখ্যার বৃদ্ধির হার আরও কমাতে হবে। বর্তমানে কমেছে ১ দশমিক ৩ শতাংশে। যা আগে ছিল ৩ শতাংশ।

মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব শেখ ইউসুফ হারুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের মহাপরিচালক কাজী মোস্তফা সারোয়ার, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ, জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিলের (ইউএনএফপিএ) বাংলাদেশ প্রতিনিধি আশা টোর্কেলসন, পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের আইইএমের পরিচালক ডা. আশরাফুন্নেসা প্রমুখ।

উল্লেখ্য,কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এড.মো.আমিনুল ইসলাম টুটুল গত ১৬ জুন দ্বিতীয়বারের মতো কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন। শিক্ষায় বিশেষ অবদান রাখার কারণে তিনি গত বছর জেলার শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন।এছাড়া ইতিপূর্বে তিনি পল্লী উন্নয়ন ও স্থানীয় সরকার বিভাগের কর্মকান্ডে বিশেষ অবদান রাখায় প্রশিক্ষন নিতে সরকারিভাবে বিদেশ সফরের গিয়েছিলেন।

আর পড়তে পারেন