বুধবার, ১৯শে জুন, ২০১৯ ইং

কুমিল্লার বি-পাড়ায় পুলিশের কন্সটেবলের বিরুদ্ধে মামলা

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুন ১২, ২০১৯
news-image

 

মহিউদ্দিন ভূইয়াঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ লাইন্সে কন্সটেবল পদে কর্মরত কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার সাহেবাবাদ গ্রামের এক যুবকের বিদ্যুতের বকেয়া বিল থাকায় তার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে পল্লী বিদ্যুতের লোকজন। এ সময় পল্লী বিদ্যুতের লোকজনের উপর হামলা চালিয়ে তাদের আহত করেছে ওই যুবক । এ ঘটনায় ব্রাহ্মণপাড়া পল্লী বিদ্যুৎ জোনাল অফিসের ডিজিএম মোহাম্মদ ইউনুছ বাদী হয়ে ওই পুলিশকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার এজাহার ও পল্লী বিদ্যুৎ অফিস সুত্রে জানা যায়, গত রবিবার সকালে পল্লী বিদ্যুতের এজিএম দীপক কুমার সিংহ, জুনিয়র ইঞ্জিনিয়ার মোঃ আনোয়ারুল হক, লাইনম্যান মোঃ মিজানুর রহমান, মিটার রিডার কাম ম্যাসেঞ্জার মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন ও ড্রাইভার মোঃ শাহআলম উপজেলার সাহেবাবাদ গ্রামের বিভিন্ন বাড়িতে ও সাহেবাবাদ বাজারের বিভিন্ন দোকানে বিদ্যুতের বকেয়া বিল থাকায় সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেন। তারপর তারা তাদের ব্যবহত পিকআপ ভ্যান যার নাম্বার-কুমিল্লা ঠ-১১-০০৮৬ নিয়ে ফিরে আসার সময় সাহেবাবাদ গ্রামের মৃত শাহআলম মাষ্টারের ছেলে ছুটিতে বাড়িতে আসা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কর্মরত পুলিশ সদস্য মোঃ শাহ তামিমুল রাজীব হোসাইন ও তার সহযোগীরা তার আত্নীয় স্বজনের লাইন কেন কাটা হয়েছে জানতে চেয়ে রাগান্বিত হয়ে লাঠি ও অন্যান্য দেশীয় অস্ত্র  নিয়ে হামলা চালিয়ে পল্লী বিদ্যুতের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের আহত করে।

তারা অকথ্য ভাষার তাদের গালাগালি করতে থাকলে খবর পেয়ে থানার ওসি’র নির্দেশে থানার এসআই তীথংকর দাস ও সঙ্গীয় ফোর্স পল্লী বিদ্যুতের লোকজনদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। আহত পল্লী বিদ্যুতের কর্মকর্তা ও কর্মচারিরা ব্রাহ্মণপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা নেন। এ ঘটনায় পল্লী বিদ্যুতের উধ্বতন কর্তব্য কাজে বাধা ও হামলা করার কারনে ডিজিএম বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন।

থানার ওসি এসএএম শাহজাহান কবির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযুক্ত আসামীকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

আর পড়তে পারেন