বুধবার, ১৯শে জুন, ২০১৯ ইং

‘কুমিল্লা’ নামের বিভাগের জন্য আর কতদিন অপেক্ষা করতে হবে কুমিল্লাবাসিকে?

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জুন ১১, ২০১৯
news-image

 

অনলাইন ডেস্কঃ
১৭৯০ সালে ত্রিপুরা জেলা গঠিত হয়ে ১৯৬০ সালে কুমিল্লাকে স্বতন্ত্র জেলার মর্যাদা দেওয়া হয়, কুমিল্লা দেশের প্রাচীন জেলা। ৬২ লক্ষাধিক মানুষের বসবাস এ জেলায়, ১১টি নির্বাচনী আসন। পরপর চারবার বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে কুমিল্লা প্রথম। ১১.৬% মানুষ ব্যবসার সাথে জড়িত, একাধিক শিল্প প্রতিষ্ঠান, গ্যাস ফিল্ড, বিমান বন্দর, অর্ধশতাধিক চিত্তাকর্ষক স্থান, রসমালাই,খদ্দরসহ বহু বিখ্যাত পণ্য রয়েছে কুমিল্লার। কুমিল্লার বহু শিক্ষাবিদ, রাজনৈতিক, কৃষিবিদ, শিল্পী, সাহিত্যিক, সাংবাদিক, অভিনেতা, ক্রীড়াবিদ, বিজ্ঞানীসহ দেশ পরিচালনার কাজে নিয়োজিত। এত কিছুর পরেও কেন কুমিল্লা নামে বিভাগ হবে না? কুমিল্লা নামে বিভাগ নিয়ে সামাজিক, রাজনৈতিক, শিক্ষাবিদ, সাংবাদিক ও সাধারণ মানুষে প্রতিক্রিয়া তুলে ধরা হল।

প্রফেস রতন কুমার সাহা-অধ্যক্ষ, ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ ঃ
শিক্ষা, সাহিত্য- সংস্কৃতির পাদপিঠ কুমিল্লা। এ জেলার ঐতিহ্য রয়েছে। ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত, নবাব ফয়জুন্নেসা, শহীদ রফিকুল ইসলামসহ বহু সূর্য সন্তানকে এ কুমিল্লা বুকে ধারণ করেছে। সংসদে প্রথম কুমিল্লা বিভাগের দাবি জানিয়েছেন ৬ আসনের এমপি হাজী বাহার সাহেব। ভিক্টোরিয়া কলেজের ২৭ হাজার সদস্যের পরিবার থেকে আমি আশাবাদী অতিশীঘ্রই কুমিল্লা বিভাগ বাস্তবায়ন হবে।

ডা. মোসলেহ উদ্দিন, সাবেক অধ্যক্ষ, কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ ঃ
কুমিল্লা নামে বিভাগ এটা আমাদের অনেক দিনের দাবি। সামাজিক, রাজনৈতিক সকল পেশার মানুষ কুমিল্লা বিভাগের বিষয়ে একমত। বিভাগীয় হেড কোয়ার্টারের জন্য সকল ব্যবস্থা কুমিল্লায় রয়েছে, শুধু প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাকী। আমরা চাই কুমিল্লা বিভাগ কুমিল্লা নামেই হবে, প্রধানমন্ত্রীর নিকট এটাই প্রত্যাশা।

হাসান ইমাম মজুমদার ফটিক- অধ্যক্ষ, অজিতগুহ মহাবিদ্যালয়ঃ
কুমিল্লা নামে বিভাগ দল মত নির্বিশেষে এটা আমাদের দীর্ঘ দিনের দাবি, কুমিল্লা বিভাগ হওয়ার জন্য যা প্রয়োজন, সকল আয়োজন কুমিল্লায় রয়েছে। এখন বিষয় হলো কুমিল্লা বিভাগ অবশ্যই যেন কুমিল্লা নামে হয়। অন্য কোন নামে হলে কুমিল্লার মানুষ তা গ্রহণ করবে না।

বদরুল হুদা জেনু -সভাপতি, সচেতন নাগরিক কমিটি, কুমিল্লাঃ
কুমিল্লার ১১টি আসনের মধ্যে শতভাগ প্রধানমন্ত্রীকে উপহার দিয়েছে কুমিল্লাবাসী। সাধারণ মানুষ তাদের ওয়াদা পূরণ করেছে, আশা করি প্রধানমন্ত্রীও মানুষের মনের আশা পূরণ করবেন। ভৌগলিক ভাবে, বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল কলেজ, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, জনসংখ্যা, খাদ্যপূর্ণতা, বৈদেশিক মুদ্রা সার্বিকবাবে চিন্তা করলে বহু আগে কুমিল্লা বিভাগ হওয়ার কথা। বিভাগ দাবি করেছে কুমিল্লা বিভাগ হয়েছে বরিশাল, বিভাগ চেয়েছে কুমিল্লা বিভাগ হয়েছে ময়মনসিংহ। কুমিল্লায় ২১টি বিভাগীয় অফিস রয়েছে, সরকারি ও বেসরকারি বহু পদে কুমিল্লার মানুষ দায়িত্বরত। ৮ লক্ষেরও বেশী প্রবাসী রয়েছে এ জেলার। কুমিল্লা বিভাগ কুমিল্লা নামেই চাই, নয়তো এ অঞ্চল নিয়ে অন্য নামে বিভাগ দরকার নাই। আশা করি প্রধানমন্ত্রী কুমিল্লার মানুষের ইচ্ছা পূরণ করবেন।

মিতা সফিনাজ- বিভাগীয় প্রধান, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ, ভিক্টোরিয়া কলেজঃ
জন্মসূত্রে আমি নোয়াখাইল্লাহ, আমি নোয়াখালীর আগে কুমিল্লা বিভাগ চাই। কারণ কুমিল্লা সকল দিক থেকে সমৃদ্ধ। নোয়াখালী যদি পৃথক বিভাগ হতে চায় হোক। কুমিল্লায় আমরা দু’জন মন্ত্রী পেয়েছি, আশা করি আমাদের রাজনীতিবিদদের সহযোগিতায় দ্রুত কুমিল্লা বিভাগ বাস্তবায়ন হবে।

ইয়াসমীন রীমা – সভাপতি, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি, কুমিল্লা জেলা শাখাঃ
চাকুরির বিষয়ে, বিসিএস পরীক্ষাসহ কুমিল্লার মানুষের ঢাকা, চট্টগ্রাম যেতে হয়। কুমিল্লা বিভাগ হলে মানুষের জীবন যাত্রার মানের পরিবর্তন হয়ে যাবে। কী নেই কুমিল্লায়? তারপরও কুমিল্লা কেন বিভাগ হবে না এটা আমার প্রশ্ন? আমরা চাই দ্রুত কুমিল্লা বিভাগ বাস্তবায়ন হোক।

 

আর পড়তে পারেন