রবিবার, ১৮ই আগস্ট, ২০১৯ ইং

তিন বছরেও শেষ হয়নি তনু হত্যার বিচার; ভিক্টোরিয়া কলেজে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন বিক্ষোভ মিছিল

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
মার্চ ২০, ২০১৯
news-image

 

দেলোয়ার হোসাইন আকাইদঃ

২০ মার্চ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ ছাত্রী সোহাগী জাহান তনু হত্যার তিন বছর পূর্ণ হল। এখন পর্যন্ত তনুর হত্যাকারীদের শনাক্ত করা যায়নি,নেই মামলার তদন্তের উল্লেখযোগ্য কোনও অগ্রগতি। এদিকে তনুর হত্যাকারীদের চিহিৃত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের ইতিহাস বিভাগের তনুর সহপাঠীরা।

বুধবার দুপুরে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল শেষে প্রশাসনিক ভবনের সামনে বঙ্গবন্ধু ম্যুরাল প্রাঙ্গনে মানববন্ধন করে।

নাট্যকর্মী সোহাগী জাহান তনুর আত্মার মাগফেরাত কামনা করে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ থিয়েটারের পক্ষ থেকে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয় কলেজ থিয়েটার কার্য্যালয়ে।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ২০ মার্চ সন্ধ্যায় কুমিল্লা সেনানিবাসের ভেতরে একটি বাসায় টিউশনি করতে গিয়ে নিখোঁজ হয়। পরে তার স্বজনরা খোঁজাখুঁজি করে রাতে বাসার অদূরে সেনানিবাসের ভেতর একটি জঙ্গলে তনুর মরদেহ পায়। পরদিন তার বাবা কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের অফিস সহায়ক ইয়ার হোসেন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন। থানা পুলিশ ও ডিবি’র পর ২০১৬ সালের ১ এপ্রিল থেকে মামলাটির তদন্তের দায়িত্ব পায় সিআইডি কুমিল্লা। তনুর দুই দফা ময়নাতদন্তে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ফরেনসিক বিভাগ মৃত্যুর সুস্পষ্ট কারণ উল্লেখ করেনি। শেষ ভরসা ছিল ডিএনএ রিপোর্ট। ২০১৭ সালের মে মাসে সিআইডি তনুর জামা-কাপড় থেকে নেওয়া নমুনার ডিএনএ পরীক্ষা করে তিনজন পুরুষের শুক্রানু পাওয়ার কথা গণমাধ্যমকে জানিয়েছিল। পরে সন্দেহভাজনদের ডিএনএ ম্যাচিং করার কথা থাকলেও তা করা হয়েছে কিনা- এ নিয়েও সিআইডি বিস্তারিত কিছু বলছে না। সর্বশেষ সন্দেহভাজন হিসেবে তিনজনকে ২০১৭ সালের ২৫ -২৭ অক্টোবর পর্যন্ত সিআইডির একটি দল জিজ্ঞাসাবাদ করে। তবে সিআইডির পক্ষ থেকে তাদের নাম জানানো হয়নি।

আর পড়তে পারেন