শনিবার, ১৭ই আগস্ট, ২০১৯ ইং

কুমিল্লার হাউজিংয়ে স্ত্রীকে তুলে নিতে চাইলো স্বামী তার বাহিনী দিয়ে, বাধাঁ দেওয়ায় প্রতিবেশিকে খুন

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৯
news-image

স্টাফ রিপোর্টারঃ
কুমিল্লা নগরীর হাউজিং স্টেটে স্বামী-স্ত্রীর দুই পরিবারের সংঘর্ষে চাপতির কোঁপে নিহত হলেন প্রতিবেশি এজাজ খান (৩০) ।

সোমবার (৪ ফ্রেবুয়ারী) সন্ধ্যায় হাউজিং এস্টেটের ৩ নং সেকশনের বকশি মসজিদের সামনের সড়কে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটনা। রাত ৮ টায় ঢাকায় নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

নিহত এজাজ খান নগরীর হাউজিং এস্টেটের ৩ নং সেকশনের মৃত. সেকান্দর আলীর ছেলে। এজাজ গাড়ির ওয়ার্কশপের মালিক।

জানা যায়, একই এলাকার দুলাল মিয়ার সাথে পারিবারিক বিষয় নিয়ে তার স্ত্রী মুন্নীর ঝগড়া হয়। ঝগড়ার পর মুন্নী তার বাড়িতে চলে যায়। পরে দুলাল মিয়া লোকবল নিয়ে মুন্নীর বাড়িতে আসে মুন্নীকে জোর করে নিয়ে যাওয়ার জন্য। এ সময় পাশের বাড়ির এজাজ খান স্বামীর বাড়ির লোকদের কাছ থেকে মুন্নীকে ছাড়িয়ে নিতে আসলে চাপাতির কোপে এজাজ গুরুতর আহত হয়। পরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

নিহতের মা রানু বেগম জানান, মুন্নীকে জোর করে তুলে নিতে চাইলে আমার ছেলেসহ এলাকার লোকজন তাতে বাধাঁ দেয়। তখন ছাত্রলীগ নেতা পলাশ ও আকাশ চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে আমার ছেলেকে হত্যা করে। পলাশ নগরীর ১৮ নং ওয়ার্ডের ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক বলে জানা গেছে।

কোতয়ালী মডেল থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মোঃ সালাহ উদ্দিন জানান, স্বামী-স্ত্রীর পরিবারের সদস্যদের মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালে প্রতিবেশি এজাদকে কুপিয়ে আহত করা হয়। ঢাকায় নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এ বিষয়ে তদন্ত হচ্ছে।

আর পড়তে পারেন