মঙ্গলবার, ২০শে আগস্ট, ২০১৯ ইং

হকার হওয়ার যোগ্যতা নেই,হয়ে গেছেন সম্পাদক –আসিফ আকবর

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৯
news-image

 

আসিফ আকবরের ফেসবুক পেইজ থেকেঃ

ব্যাক্তিগত জীবন নিয়ে খোঁচাখুঁচি করায় জনৈক সাংবাদিকের ওপর ক্ষেপেছেন কণ্ঠশিল্পী কুমিল্লার আসিফ আকবর। নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে লিখেছেন অনেক কথাই। পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো।

“হকার হওয়ার যোগ্যতা নেই, হয়ে গেছে সম্পাদক। এক বড় ভাই গায়কের শালীকে বিয়ে করার সময় হাতে পায়ে ধরে, মামা মামা করে শুধু জামা ছেড়ার বাকী রেখেছিলো, আক্রমনাত্মক দাওয়াত। সেই ঘরে একটা ছোট্ট পরীও আছে। সেই তথাকথিত সম্পাদক আবার বিয়ে করছে, পাত্রী আমার ইন্ডাস্ট্রি’র বোন। দ্বিতীয় বিয়েতে আমার আপত্তি থাকার কথা নয় কখনোই, আমি নিজেও চাই। পাত্র বিভিন্ন পত্রিকায় কাজ করার সময় তারকাদের বিবাহ ডিভোর্স নিয়ে প্রচূর নিউজ ছেপেছে সারাজীবন। খুব মজা করে শিল্পীদের হৃদয় রক্তাক্ত করেছে কলমের খোঁচায়। অবশ্য এটা পত্রিকার একটা বিবেকহীন ব্যবসা, নিজেদের বেলায় ষোল আনা হালাল। এই অপদার্থদের কারনে মানুষের মনে শিল্পীদের সম্পর্কে নেতিবাচক ধারনা জন্মেছে। পৃথিবীর বিয়ে ডিভোর্স শুধু আমাদেরই হয়, আর কোথাও এসব ঘটনা ঘটেনা।

এবার দেখি ঐ সম্পাদকের নিউজ কোন কোন পত্রিকা ছাপায় পুরনো ইতিহাসসহ। যদি পত্রিকা গুলো এই বিয়ের খবর না ছাপে, আমি রাগে কিছু কমুনা। শুধু “দৈনিক বিনোদন সাংবাদিক সংবাদ ” নামে একটা অনলাইন পত্রিকা চালু করবো। চাটুকারিতা, তৈলমর্দন এবং সবার অলক্ষ্যে পায়ে পড়ে সুবিধা নেয়া একটা খচ্চর যদি পত্রিকা সম্পাদক হয়ে যায়, তাহলে জাতি পাবে একটা মোনাফেক আর বেইমান প্রতিনিধি।

আজকে আর বেশী কিছু লিখবো না। তার মুখটার কি অবস্থা !! এই লেখাটা পড়ার পর ঐ ভুঁইফোড় সম্পাদকের চেহারা কি হবে!! আন্দাজ করে শান্তি পাচ্ছি। একবার জেলে গিয়েছি বিনা অপরাধে, আবারো যাবো প্রয়োজনে, তবুও ইন্ডাস্ট্রিকে এই বিষাক্ত বিচ্ছুমুক্ত করে ছাড়বো ইনশাল্লাহ। খেলা হবে, ৫৭ ধারা প্রয়োজনে ১১৪ তে পরিণত হউক, আপত্তি নাই, এই মানসিক বিকারগ্রস্তদের মুখোশ উন্মোচন করেই যাবো। আমি তো ভালা না, এটা জানি। তুই যে ভালা না (২), এটা আমি জানাবো সবাইকে। তবে আমার বোন আমাকে বিয়ের দাওয়াত দিয়েছে, যেতেও পারি, শুভকামনা রইলো। একটা সম্পাদকের দুই বিয়ে খাওয়ার সৌভাগ্য কয়জনের হয়!!! এই মনে করেন ভাল্লাগে, তাই খুশিতে ঠ্যালায় একখান ছবি দিলাম। এখন ঘোরতে যাইৃ ভালবাসা অবিরামৃ………

আর পড়তে পারেন