রবিবার, ১৮ই আগস্ট, ২০১৯ ইং

চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মত অনেক উপাদানই রয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সে

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
জানুয়ারি ৩, ২০১৯
news-image

স্পোর্টস ডেস্কঃ
২০১৫ সালে বিপিএলে খেলার সুযোগ পেয়েই শিরোপা তুলে নিয়েছিল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। অধিনায়ক ছিলেন মাশরাফি। এরপরেরবারও নেতৃত্বে ছিল সেই মাশরাফির হাতে। তবে, সেবার কুমিল্লা খুব বেশি এগুতে পারেনি। ২০১৭ সালে তামিম ইকবালকে করা হয় কুমিল্লার কান্ডারি। তার নেতৃত্বে কুমিল্লা চ্যাম্পিয়ন হতে না পারলেও চ্যালেঞ্জিং একটি দলে পরিণত হয় তারা।

সেই তামিম ইকবালের নেতৃত্বে আরও বেশি শক্তিশালী কুমিল্লা। দেশি-বিদেশি, নবীন-প্রবীনের দারুণ সমন্বয় এই দলটিতে। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মত একটি দল। যে কারণে ফ্রাঞ্চাইজিটির ওপেনার এনামুল হক বিজয় জানিয়ে দিলেন, ‘চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মত অনেক উপাদানই রয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সে।’

নিজেরদের দল প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হলে বিজয় বলেন, ‘আসলে খুবই ভালো দল হয়েছে। অভিজ্ঞ দল বলা যায়। তামিম ভাই আছে, ইমরুল কায়েস ভাই আছেন, বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে শোয়েব মালিক আছে, স্মিথ আছে, আফ্রিদির মতো খেলোয়াড় আছে। আমার কাছে মনে হয় যে, দল হিসেবে কুমিল্লা খুবই দারুণ আর খুবই বন্ধুত্বপূর্ণ। যেটি আসলে এরকম ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এটি আমাদের মধ্যে আছে। আমাদের কোচ বলেন, ম্যানেজমেন্ট বলেন- সবাই আলাদাভাবে অনেক সাহায্য করে। সব মিলিয়ে বলতে পারি, যে অনেক গোছালো এবং বাহবা দেয়ার মতো একটি দল।’

চ্যাম্পিয়ন হতে হলে কি কি করা দরকার? জানতে চাইলে বিজয় বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয়, আসলে দলগত প্রচেষ্টাটা দরকার। যে জিনিসটি আমাদের মধ্যে আছে। ফিল্ডিং টি-টোয়েন্টিতে অনেক বেশি তারতম্য করে এবং একটি দলকে অন্যদের সঙ্গে পার্থক্য গড়ে তোলে।’

বিজয় মনে করেন, ছোট ছোট কিছু কাজ, যেমন রান আটকানো, প্রয়োজনের সময় ৫-১০ রান দ্রুত তোলাতে অনেক কিছু পরিবর্তন করে দেয়। তার দলের সেই সামর্থ্য আছে বলেন মনে করেন তিনি। বিজয় বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয়, দলে এমন তরুণ কিছু ক্রিকেটার রয়েছে যাদের জন্য ১০-১৫ রান আটকাতে পারবো। অভিজ্ঞ কিছু বোলারও প্রয়োজন রয়েছে। টি-টোয়েন্টিতে রান অনেক কম করেও অনেক সময় ম্যাচ জেতা যায়, যদি ভালো বোলার থাকে। আমার কাছে মনে হয় ব্যাটিংয়ের ক্ষেত্রে যেটি করতে পারি, আমরা যদি একটি ভালো রান দাঁড় করাতে পারি, তাহলে বোলিংয়ের যে অভিজ্ঞতা রয়েছে সব মিলিয়ে আমরা ভালো কিছু করতে পারব, ইনশাল্লাহ।’

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের যে টিম কম্বিনেশন রয়েছে, তা দিয়ে কি চ্যাম্পিয়ন হওয়া সম্ভব? জানতে চাইলে বিজয় বলেন, ‘আসলে, প্রথম চার-পাঁচটি ম্যাচ আমরা কেমন খেলি, সেটি অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। শুরুটা কেমন হয়, বিদেশি ক্রিকেটাররা আসার পর দলের সাথে কেমন মানিয়ে নিতে পারে, সেটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আর বিপিএলে মূল খেলা সেমিফাইনাল-ফাইনাল। এই দুটি হলো বড় ক্রিকেটারদের ম্যাচ, বড় দলের ম্যাচ। এই দুটি ম্যাচে একটি চাপ থাকে। সবমিলিয়ে সবার চোখ থাকে এই ম্যাচগুলোর ওপরে। আমার কাছে মনে হয়, এই দুটি ম্যাচ অনেক গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, এই দুই ম্যাচের ওপর ট্রফি জেতা নির্ভর করে। আমরা যদি পুরো টুর্নামেন্টে ভালো খেলতে পারি, তখন আমাদের জন্য ওই ম্যাচগুলো সহজ হয়ে যাবে। আর পুরোটা খেলতে পারলেই ইনশাল্লাহ ফাইনালে শিরোপা আসতে পারে।’

আর পড়তে পারেন