রবিবার, ১৮ই আগস্ট, ২০১৯ ইং

২ দিনের শ্রমিক ধর্মঘটে চাঁদপুরে ট্রেন-লঞ্চে ছিলো যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড়

আজকের কুমিল্লা ডট কম :
অক্টোবর ২৯, ২০১৮
news-image

 

মাসুদ হোসেন, চাঁদপুর :

পরিবহন আইন সংশোধন ও ৮ দফা দাবীতে সারা দেশের ন্যায় চাঁদপুরে শ্রমিক ফেডারেশনের ধর্মঘটে যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে।

রবিবার সকাল থেকে সোমবার পর্যন্ত পৌর বাস টার্মিনাল থেকে দুর পাল্লার কোন বাস ছেড়ে যায়নি। এতে দূর-দুরান্ত থেকে আসা যাত্রীরা তাদের গন্তব্যে যেতে না পারায় চরম দুভোর্গে পড়েছে। দুর দুরান্তে যাতায়াতের কোন বাস চলাচল না করলেও ট্রেন ও লঞ্চে ছিলো যাতীদের উপচেপড়া ভিড়।

পরিবহন ধর্মঘটের দ্বিতীয় দিন সোমবার (২৯ অক্টোবর) জেলার প্রতিটি রেলস্টেশন ও চাঁদপুর লঞ্চ ঘাটে যাত্রীদের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। চাঁদপুর থেকে দেশের বিভিন্ন রুটে চলাচলকারী ট্রেনের কামরায় যাত্রীদের দাড়ানোর মতো তিল পরিমান জায়গা নেই। এছাড়াও চাঁদপুর-ঢাকায় চলাচলের সবগুলো লঞ্চে একই চিত্র দেখা যায়। চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়ক ছাড়াও জেলার প্রতিটি ছোট বড় রাস্তায় কোন ধরনের যানবাহন চলতে বেশী একটা দেখা যায়নি। মাঝে মাঝে রিক্সা চললেও চাকার হাওয়া ছেড়ে দেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে রিক্সা চালকদের। রিক্সা, সাইকেল-মোটরসাইকেল পর্যন্ত চলতে বাধা দেওয়া হয়। কোথাও কোথাও রিক্সার চাকার হাওয়া ছেড়ে দেন শ্রমিকরা। এমন পরিস্থিতিতে পড়ে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয় যাত্রীদের। এ ছাড়া ভোগান্তির পথে পথে গুনতে হয়েছে বাড়তি টাকা। গণপরিবহন ধর্মঘটের কারণে দূরপাল্লার যাত্রীসহ ভোগান্তিতে পড়েছেন কর্মস্থলগামী মানুষ ও স্কুল-কলেজগামী ছাত্রছাত্রীরা। মহাসড়ক ছিলো রিক্সা ও ভ্যানের রাজত্ব। ১০ টাকার ভাড়া ১০০ টাকা। গন্তব্যে পৌঁছাতে তাতেও কোন আপত্তি ছিলো না যাত্রীদের। এদিকে চাঁদপুরে স্মরণ অতীত কালের স্বতস্পূর্ত ধর্মঘট পালন হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন অনেকেই।

আর পড়তে পারেন